ঢাকা দুপুর ২:১৩, বুধবার, ২৮শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৩ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

সৌদি আরবে প্রবাসীর সাথে অভিনব প্রতারণা

সৌদি আরবে অবস্থানরত সকল প্রবাসী বাংলাদেশী ভাইদের প্রতি অনুরোধ করছি নিন্মে ছবি সম্বলিত ব্যাক্তি নাম সাইম মিয়া। বাংলাদেশে তার গ্রামের বাড়ি ব্রহ্মনবাড়িয়া। তার বর্তমান অবস্থান সৌদি আরবের সম্ভবত (রিয়াদ, মক্কা, মদিনা, জেদ্দা) এই শহরগুলোতে তার বিচরণ। তার সাথে আরেক সৌদি প্রবাসী মো: মহিন উদ্দিনের ব্যবসায়িক লেনদেন ছিলো অনেক দিন ধরে। কিন্তু সাইম মিয়া বন্ধুত্বের সুযোগ নিয়ে তার কাছ থেকে ৪০ হাজার (চল্লিশ হাজার) সৌদি রিয়াল যা বাংলাদেশি টাকার ১০ লক্ষ হাতিয়ে নেয়। টাকা নিয়ে চাপ দেয়ায় সাইম মিয়া সব যোগাযোগ বন্ধ করে পলাতক অবস্থায় আছে।

এ প্রসঙ্গে মো: মহিন উদ্দিনের ভাষ্যমতে, তার সাথে আমার দীর্ঘদিনের ব্যবসায়িক কার্যক্রম ছিল। আমাদের ব্যবসায়িক লেনদেন গুলো রিয়াদ বাতা মার্কেট এই সমস্ত এলাকায় বেশি হয়। নিন্ম ছবি সম্বলিত (2841ZHJ) এই গাড়িটা আমার যাহা সে বিগত দুই বছর ভাড়ায় চালিয়েছে।

গত তিন মাস আগে আমি আমার ব্যক্তিগত কারণে বাংলাদেশে যাই। তখনও আমার ব্যবসায়িক হিসাব নিকাশ এবং গাড়ির দায় দায়িত্ব সম্পূর্ণ তার কাছে ছিল। আমি আবার সৌদি আরব ফেরার পরও তার সাথে আমার ব্যবসায়িক কার্যক্রম চলছিল। এক পর্যায়ে তার কাছে আমি প্রায় ৪০ হাজার (চল্লিশ হাজার) সৌদি রিয়াল পাওনা হই। সে টাকা দিমু দিচ্ছি করে নানান তাল বাহানা শুরু করে। রিয়াদে অবস্থানরত বেশ কয়েকজন প্রবাসী বাংলাদেশিদের নিয়ে কয়েকবার তার জন্য বিচার সালিশ হয়। সে টাকা ফেরত দেওয়ার কথা বলে বলে দীর্ঘদিন আমাকে তারিখ বাই তারিখ দিতে থাকে। হঠাৎ করে গত তিনমাস আগে থেকে সে উধাও। এই টাকার ধার-দেনায় আমি খুব অসহায় অবস্থায় আছি। একমাত্র প্রবাসী ভাইয়েরাই বুঝবেন আমার বর্তমান অবস্থা কিভাবে কাটতেছে। সৌদি আরবে অবস্থানরত সকল প্রবাসী ভাইদের কাছে আমার বিনীত অনুরোধ এই প্রতারককে যদি কেউ কখনো দেখেন অথবা কোন ভাবে তার সন্ধান দিতে পারেন। আপনাদের কাছে অবশ্যই চির কৃতজ্ঞ থাকবো।

সন্ধানদাতাকে সম্মানের সহিত উপযুক্ত সম্মানী প্রদান করা হবে। পোস্টটি সবার কাছে পৌছি দিতে বেশি করে শেয়ার করার অনুরোধ রইলো।

সন্ধান পেলে নিম্নে দেয়া হোয়াটসআপ নাম্বারে যোগাযোগ করবেন।

Whatsup: (00966537836827)

বিজনেস বাংলাদেশ/জিসু

এ বিভাগের আরও সংবাদ