০৫:২৫ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪

শেখ জামালকে গুঁড়িয়ে আবাহনীর বিশাল জয়

চলমান ডিপিএলের দশম রাউন্ডের হাইভোল্টেজ ম্যাচে আবাহনীর মুখোমুখি হয়েছিল শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব। এই ম্যাচে সোহানের শেখ জামালকে ১০ উইকেটে হারিয়েছে তাসকিন-শরিফুলরা।

বৃহস্পতিবার (১৮ এপ্রিল) টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে মাত্র ৮৮ রানে অলআউট হয় শেখ জামাল। জবাব দিতে নেমে মাত্র ১০ ওভার ২ বলেই জয় তুলে নেয় আবাহনী। এতে ১১ ম্যাচের সবগুলোতে জিতে পয়েন্ট টেবিলে সবার ওপরে তারা। ৮ জয় নিয়ে তাদের পরের অবস্থানে শেখ জামাল।

টস হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা কোনো মোটামুটি ভালোই হয়েছিল শেখ জামালের। ৫০ রান তুলতে তারা হারিয়েছিল তিন উইকেট। পরের ৩৮ রানে হারায় সাত উইকেট। আবাহনীর তিন পেসার শরিফুল ইসলাম, তাসকিন আহমেদ ও তানজিম হাসান সাকিব মিলে নেন সাত উইকেট।

সাইফ হাসান (১৬), সৈকত আলী (২৩), তাইবুর রহমান (১৪) এবং ইয়াসির আলী করেন ২৭ বলে ১৭ রান।

আবাহনীর হয়ে ৭ ওভার বল করে ১ মেডেনসহ ৩৫ রান দিয়ে চার উইকেট নেন শরিফুল ইসলাম। ৫ ওভারে ১৬ রান দিয়ে দুই উইকেট পান তাসকিন আহমেদ। ৪ ওভারে ২২ রান দিয়ে একটি উইকেট নেন তানজিম। এছাড়া স্পিনার তানভীর ইসলাম দুটি ও মোসাদ্দেক হোসেন পান এক উইকেট।

ছোট লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে আবাহনীর জন্য জয় ছিল কেবল সময়ের ব্যাপার। কত দ্রুত তারা কাজটি সারতে পারেন সেটিরই ছিল অপেক্ষা। ১০ ওভার ২ বলেই লক্ষ্যে পৌঁছে যায় আবাহনী। ৩ চার ও সমান ছক্কায় ২২ বলে ৩৭ রান করে এনামুল হক বিজয় ও ৪০ বলে ৫৩ রান করে নাঈম শেখ অপরাজিত থাকেন।

বিজনেস বাংলাদেশ/একে

ট্যাগ :

শেখ জামালকে গুঁড়িয়ে আবাহনীর বিশাল জয়

প্রকাশিত : ০৩:৩৬:৩৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪

চলমান ডিপিএলের দশম রাউন্ডের হাইভোল্টেজ ম্যাচে আবাহনীর মুখোমুখি হয়েছিল শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব। এই ম্যাচে সোহানের শেখ জামালকে ১০ উইকেটে হারিয়েছে তাসকিন-শরিফুলরা।

বৃহস্পতিবার (১৮ এপ্রিল) টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে মাত্র ৮৮ রানে অলআউট হয় শেখ জামাল। জবাব দিতে নেমে মাত্র ১০ ওভার ২ বলেই জয় তুলে নেয় আবাহনী। এতে ১১ ম্যাচের সবগুলোতে জিতে পয়েন্ট টেবিলে সবার ওপরে তারা। ৮ জয় নিয়ে তাদের পরের অবস্থানে শেখ জামাল।

টস হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা কোনো মোটামুটি ভালোই হয়েছিল শেখ জামালের। ৫০ রান তুলতে তারা হারিয়েছিল তিন উইকেট। পরের ৩৮ রানে হারায় সাত উইকেট। আবাহনীর তিন পেসার শরিফুল ইসলাম, তাসকিন আহমেদ ও তানজিম হাসান সাকিব মিলে নেন সাত উইকেট।

সাইফ হাসান (১৬), সৈকত আলী (২৩), তাইবুর রহমান (১৪) এবং ইয়াসির আলী করেন ২৭ বলে ১৭ রান।

আবাহনীর হয়ে ৭ ওভার বল করে ১ মেডেনসহ ৩৫ রান দিয়ে চার উইকেট নেন শরিফুল ইসলাম। ৫ ওভারে ১৬ রান দিয়ে দুই উইকেট পান তাসকিন আহমেদ। ৪ ওভারে ২২ রান দিয়ে একটি উইকেট নেন তানজিম। এছাড়া স্পিনার তানভীর ইসলাম দুটি ও মোসাদ্দেক হোসেন পান এক উইকেট।

ছোট লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে আবাহনীর জন্য জয় ছিল কেবল সময়ের ব্যাপার। কত দ্রুত তারা কাজটি সারতে পারেন সেটিরই ছিল অপেক্ষা। ১০ ওভার ২ বলেই লক্ষ্যে পৌঁছে যায় আবাহনী। ৩ চার ও সমান ছক্কায় ২২ বলে ৩৭ রান করে এনামুল হক বিজয় ও ৪০ বলে ৫৩ রান করে নাঈম শেখ অপরাজিত থাকেন।

বিজনেস বাংলাদেশ/একে