০৪:৫০ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪

‘এটা অগ্রহণযোগ্য’, ফাইনালে উঠেও কেন ক্ষুব্ধ গার্দিওলা

তিনদিন আগে উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে খেলেছিল ম্যানচেস্টার সিটি। ঘরের মাঠে টাইব্রেকারে হেরে বিদায় হয়ে গেছে ইতিহাদের ক্লাবটির। এরপরই আবার গতকাল (শনিবার) তারা এফএ কাপের সেমিফাইনালে চেলসির মুখোমুখি হয়েছিল। মরিসিও পচেত্তিনোর দলকে হারিয়ে পেপ গার্দিওলার দল এফএ কাপের ফাইনালে উঠে গেছে। তবে এমন জয়ের পরও ক্ষুব্ধ স্প্যানিশ মাস্টারমাইন্ড, ব্যস্ত সূচি নিয়ে তিনি দুশ্চিন্তা প্রকাশ করেছেন।

ওয়েম্বলি স্টেডিয়ামে এদিন চেলসিকে ১-০ গোলে হারিয়ে টানা দ্বিতীয়বারের মতো এফএ কাপের ফাইনালে উঠেছে ম্যানসিটি। এদিকে, আজ (রোববার) বাংলাদেশ সময় রাতে কভেন্ট্রি সিটির মুখোমুখি হচ্ছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। এদিন জয় পেলেই ফাইনালে নগর প্রতিদ্বন্দ্বী সিটির মুখোমুখি হবে রেড ডেভিলরা। এরপর প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচে বৃহস্পতিবার ব্রাইটন ও রোববার নটিংহ্যাম ফরেস্টের বিপক্ষে ম্যাচ রয়েছে গতবারের ট্রেবলজয়ীদের। তবে তাদের মূল ক্ষোভ গতকালের ম্যাচ নিয়ে।

ম্যাচ জিতলেও তাই বিবিসি স্পোর্টসকে দেওয়া মন্তব্যে নিজের বিরূপ প্রতিক্রিয়া দেখাতে ভুল করেননি গার্দিওলা। তিনি বলেন, ‘আজকে আমাদেরকে খেলতে নামানোটা পুরোপুরি অগ্রহণযোগ্য। খেলোয়াড়দের স্বাস্থ্যের জন্য এটা অসম্ভব। স্বাভাবিক কিছু নয় এটা। মেনে নেওয়ার মতো নয়। আমি জানি, এই দেশে ব্যাপারটি একটু আলাদা (এফএ কাপের কারণে)। তবে খেলোয়াড়দের শরীরের কথা তো ভাবতে হবে। জানি না, আজকে আমরা কীভাবে উতরে গেলাম।’

এর আগে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে কঠিন চ্যালেঞ্জের ম্যাচে ১২০ মিনিট খেলার পর রিয়ালের সঙ্গে সিটির ফয়সালা হয় টাইব্রেকারে। এরপর স্রেফ দুই দিন বিরতি দিয়েই গতকাল আরও একটি বড় ম্যাচ খেলতে হয়। এজন্যই মূলত ক্ষেপেছেন গার্দিওলা। চেলসির বিপক্ষে ক্লান্তির পুরো চিহ্ন ফুটে উঠেছে সিটির ফুটবলারদের মাঝে। তাদের খেলায় চেনা ছন্দ, গতি ও ধার ছিল না একদমই। খানিকটা চোট সমস্যা থাকলেও মূলত শ্রান্তির কারণে এই ম্যাচে খেলানো হয়নি মূল স্ট্রাইকার আর্লিং হলান্ডকেও। এরপরও ৮৪তম মিনিটে বার্নার্দো সিলভার গোলে তারা কোনোরকমে ম্যাচটি জিতেছে।

গার্দিওলার প্রশ্ন, ‘আমাদের ম্যাচ আগামীকাল কেন রাখা হলো না? চেলসি, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড, কভেন্ট্রি সিটি, কোনো দলকেই তো সপ্তাহের মাঝে খেলতে হয়নি। বুধবার ১২০ মিনিট খেলার পর আজকে ছেলেরা আবার যেভাবে খেলেছে, আমার দেখা কোনো এক দল ফুটবলারের সেরা প্রদর্শনী এটি। তবে আমি চাই স্রেফ আমার ছেলেদের সুরক্ষা দিতে। স্বাভাবিক বোধের ব্যাপার এটা। কোনো বিশেষ কিছু বা বাড়তি কিছুর দাবি তো করছি না।’

সিটি কোচের এমন দাবির সঙ্গে পরে সুর মেলান আর্সেনাল কোচ মিকেল আর্তেতাও। তিনি বলেন, ‘এটা আমাদের কোনো ব্যাপার নয়, পেপ (গুয়ার্দিওলা) কিংবা আমার ব্যাপার নয়, ফুটবলারের ভালো থাকার ব্যাপার। ইউরোপিয়ান প্রতিযোগিতায় অংশ নিলে সব দলকেই একইভাবে লড়তে হবে। সাতদিন ধরে খেলছে না বা তিনদিন আগে খেলেনি, এই দল কোনোভাবেই রিকভারির সময় বেশি পেতে পারে না। এটা ঠিক নয়। কোনো দিক থেকেই এটা ঠিক নয়।

বিজনেস বাংলাদেশ/একে

ট্যাগ :

‘এটা অগ্রহণযোগ্য’, ফাইনালে উঠেও কেন ক্ষুব্ধ গার্দিওলা

প্রকাশিত : ০৩:১৩:১৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪

তিনদিন আগে উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে খেলেছিল ম্যানচেস্টার সিটি। ঘরের মাঠে টাইব্রেকারে হেরে বিদায় হয়ে গেছে ইতিহাদের ক্লাবটির। এরপরই আবার গতকাল (শনিবার) তারা এফএ কাপের সেমিফাইনালে চেলসির মুখোমুখি হয়েছিল। মরিসিও পচেত্তিনোর দলকে হারিয়ে পেপ গার্দিওলার দল এফএ কাপের ফাইনালে উঠে গেছে। তবে এমন জয়ের পরও ক্ষুব্ধ স্প্যানিশ মাস্টারমাইন্ড, ব্যস্ত সূচি নিয়ে তিনি দুশ্চিন্তা প্রকাশ করেছেন।

ওয়েম্বলি স্টেডিয়ামে এদিন চেলসিকে ১-০ গোলে হারিয়ে টানা দ্বিতীয়বারের মতো এফএ কাপের ফাইনালে উঠেছে ম্যানসিটি। এদিকে, আজ (রোববার) বাংলাদেশ সময় রাতে কভেন্ট্রি সিটির মুখোমুখি হচ্ছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। এদিন জয় পেলেই ফাইনালে নগর প্রতিদ্বন্দ্বী সিটির মুখোমুখি হবে রেড ডেভিলরা। এরপর প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচে বৃহস্পতিবার ব্রাইটন ও রোববার নটিংহ্যাম ফরেস্টের বিপক্ষে ম্যাচ রয়েছে গতবারের ট্রেবলজয়ীদের। তবে তাদের মূল ক্ষোভ গতকালের ম্যাচ নিয়ে।

ম্যাচ জিতলেও তাই বিবিসি স্পোর্টসকে দেওয়া মন্তব্যে নিজের বিরূপ প্রতিক্রিয়া দেখাতে ভুল করেননি গার্দিওলা। তিনি বলেন, ‘আজকে আমাদেরকে খেলতে নামানোটা পুরোপুরি অগ্রহণযোগ্য। খেলোয়াড়দের স্বাস্থ্যের জন্য এটা অসম্ভব। স্বাভাবিক কিছু নয় এটা। মেনে নেওয়ার মতো নয়। আমি জানি, এই দেশে ব্যাপারটি একটু আলাদা (এফএ কাপের কারণে)। তবে খেলোয়াড়দের শরীরের কথা তো ভাবতে হবে। জানি না, আজকে আমরা কীভাবে উতরে গেলাম।’

এর আগে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে কঠিন চ্যালেঞ্জের ম্যাচে ১২০ মিনিট খেলার পর রিয়ালের সঙ্গে সিটির ফয়সালা হয় টাইব্রেকারে। এরপর স্রেফ দুই দিন বিরতি দিয়েই গতকাল আরও একটি বড় ম্যাচ খেলতে হয়। এজন্যই মূলত ক্ষেপেছেন গার্দিওলা। চেলসির বিপক্ষে ক্লান্তির পুরো চিহ্ন ফুটে উঠেছে সিটির ফুটবলারদের মাঝে। তাদের খেলায় চেনা ছন্দ, গতি ও ধার ছিল না একদমই। খানিকটা চোট সমস্যা থাকলেও মূলত শ্রান্তির কারণে এই ম্যাচে খেলানো হয়নি মূল স্ট্রাইকার আর্লিং হলান্ডকেও। এরপরও ৮৪তম মিনিটে বার্নার্দো সিলভার গোলে তারা কোনোরকমে ম্যাচটি জিতেছে।

গার্দিওলার প্রশ্ন, ‘আমাদের ম্যাচ আগামীকাল কেন রাখা হলো না? চেলসি, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড, কভেন্ট্রি সিটি, কোনো দলকেই তো সপ্তাহের মাঝে খেলতে হয়নি। বুধবার ১২০ মিনিট খেলার পর আজকে ছেলেরা আবার যেভাবে খেলেছে, আমার দেখা কোনো এক দল ফুটবলারের সেরা প্রদর্শনী এটি। তবে আমি চাই স্রেফ আমার ছেলেদের সুরক্ষা দিতে। স্বাভাবিক বোধের ব্যাপার এটা। কোনো বিশেষ কিছু বা বাড়তি কিছুর দাবি তো করছি না।’

সিটি কোচের এমন দাবির সঙ্গে পরে সুর মেলান আর্সেনাল কোচ মিকেল আর্তেতাও। তিনি বলেন, ‘এটা আমাদের কোনো ব্যাপার নয়, পেপ (গুয়ার্দিওলা) কিংবা আমার ব্যাপার নয়, ফুটবলারের ভালো থাকার ব্যাপার। ইউরোপিয়ান প্রতিযোগিতায় অংশ নিলে সব দলকেই একইভাবে লড়তে হবে। সাতদিন ধরে খেলছে না বা তিনদিন আগে খেলেনি, এই দল কোনোভাবেই রিকভারির সময় বেশি পেতে পারে না। এটা ঠিক নয়। কোনো দিক থেকেই এটা ঠিক নয়।

বিজনেস বাংলাদেশ/একে