০৪:১২ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪

বাংলাদেশকে ১৪৬ রানের টার্গেট ভারতীয় নারী দলের

সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে রোববার পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথমটি মাঠে গড়ায় বিকেল ৪টায়। বাংলাদেশের বিপক্ষে টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করে ৭ উইকেটে ১৪৫ রান তোলে ভারত।

দলীয় ১৮ রানে প্রথম উইকেট হারায় ভারত। বাংলাদেশের পেসার ফারিহা তৃষ্ণার বলে স্মৃতি মান্দানা (৯) বোল্ড হন। দলীয় ৬১ রানে ভারতের শেফালি বর্মা আউট হন। তিনি ২২ বলে ৩১ রান করে রাবেয়া খানের বলে ফাহিমা খাতুনের হাতে ধরা পড়েন। দলীয় ১০৬ রানের মাথায় ভারতের অধিনায়ক হারমনপ্রীত কৌর আউট হন। ফাহিমার বলে তিনি এলবিডব্লিউ হন। ২২ বলে ৩০ রান করেন হারমনপ্রীত। এরপর আরও ২টি উইকেট হারায় ভারত। ইয়াসতিকা ভাটিয়া ৩৬ রানে এবং সাজানা ১১ রানে আউট হন। এই দুজনের উইকেট সহ ৪ ওভারে ৩ শিকার রাবেয়া খানের। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ১৮ ওভারে ৫ উইকেটে ১৩১ রান ভারতের। এরপর রিচা (২৩ রান) এবং পূজার (৪) উইকেট নেন মারুফা খাতুন। তিনি এই ২টি উইকেট নেন ১৩ রানে। তৃষ্ণা ২৩ রানে এবং ফাহিমা ৩১ রানে ১টি করে উইকেট নেন।

গত বছরের জুলাইতে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলতে বাংলাদেশে এসেছিলো ভারত। টি-টোয়েন্টিতে সিরিজ জিতলেও ওয়ানডেতে ড্র নিয়ে সন্তুষ্ট থাকতে হয় সফরকারীদের।

ঘরের মাঠে আগামী সেপ্টেম্বরে অনুষ্ঠিত হচ্ছে নারী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। এবারের আসরের আয়োজক বাংলাদেশ। মূলত সেই কারণেই কন্ডিশনের সঙ্গে মানিয়ে নিতেই অস্ট্রেলিয়ার পর এবার সফরে এসেছে ভারত।

পরিসংখ্যানে এগিয়ে অবশ্য সফরকারীরা। ১৭ বারের দেখায় ১৪ বারই জিতেছে ভারত। সবশেষ সিরিজেও ২-১ ব্যবধানে জয় তুলে নেয় হারমানপ্রীতরা। এবারও সেই ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে মরিয়া সফরকারীরা। অন্যদিকে, অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজে হোয়াইটওয়াশের লজ্জা পেছনে ফেলে ঘুরে দাঁড়াতে মরিয়া নিগার সুলতানার বাংলাদেশ।

বিজনেস বাংলাদেশ/বিএইচ

ট্যাগ :

বাংলাদেশকে ১৪৬ রানের টার্গেট ভারতীয় নারী দলের

প্রকাশিত : ০৬:৩৯:৪০ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৮ এপ্রিল ২০২৪

সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে রোববার পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথমটি মাঠে গড়ায় বিকেল ৪টায়। বাংলাদেশের বিপক্ষে টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করে ৭ উইকেটে ১৪৫ রান তোলে ভারত।

দলীয় ১৮ রানে প্রথম উইকেট হারায় ভারত। বাংলাদেশের পেসার ফারিহা তৃষ্ণার বলে স্মৃতি মান্দানা (৯) বোল্ড হন। দলীয় ৬১ রানে ভারতের শেফালি বর্মা আউট হন। তিনি ২২ বলে ৩১ রান করে রাবেয়া খানের বলে ফাহিমা খাতুনের হাতে ধরা পড়েন। দলীয় ১০৬ রানের মাথায় ভারতের অধিনায়ক হারমনপ্রীত কৌর আউট হন। ফাহিমার বলে তিনি এলবিডব্লিউ হন। ২২ বলে ৩০ রান করেন হারমনপ্রীত। এরপর আরও ২টি উইকেট হারায় ভারত। ইয়াসতিকা ভাটিয়া ৩৬ রানে এবং সাজানা ১১ রানে আউট হন। এই দুজনের উইকেট সহ ৪ ওভারে ৩ শিকার রাবেয়া খানের। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ১৮ ওভারে ৫ উইকেটে ১৩১ রান ভারতের। এরপর রিচা (২৩ রান) এবং পূজার (৪) উইকেট নেন মারুফা খাতুন। তিনি এই ২টি উইকেট নেন ১৩ রানে। তৃষ্ণা ২৩ রানে এবং ফাহিমা ৩১ রানে ১টি করে উইকেট নেন।

গত বছরের জুলাইতে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলতে বাংলাদেশে এসেছিলো ভারত। টি-টোয়েন্টিতে সিরিজ জিতলেও ওয়ানডেতে ড্র নিয়ে সন্তুষ্ট থাকতে হয় সফরকারীদের।

ঘরের মাঠে আগামী সেপ্টেম্বরে অনুষ্ঠিত হচ্ছে নারী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। এবারের আসরের আয়োজক বাংলাদেশ। মূলত সেই কারণেই কন্ডিশনের সঙ্গে মানিয়ে নিতেই অস্ট্রেলিয়ার পর এবার সফরে এসেছে ভারত।

পরিসংখ্যানে এগিয়ে অবশ্য সফরকারীরা। ১৭ বারের দেখায় ১৪ বারই জিতেছে ভারত। সবশেষ সিরিজেও ২-১ ব্যবধানে জয় তুলে নেয় হারমানপ্রীতরা। এবারও সেই ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে মরিয়া সফরকারীরা। অন্যদিকে, অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজে হোয়াইটওয়াশের লজ্জা পেছনে ফেলে ঘুরে দাঁড়াতে মরিয়া নিগার সুলতানার বাংলাদেশ।

বিজনেস বাংলাদেশ/বিএইচ