০৫:১১ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৮ মে ২০২৪

ইসরায়েল কখনোই হামাসকে হারাতে পারবে না: যুক্তরাষ্ট্র

ছবি সংগৃহীত

ফিলিস্তিনের স্বাধীনতাকামী সশস্ত্র গোষ্ঠী হামাসকে নির্মূলের লক্ষে গাজার দক্ষিণাঞ্চলের শহর রাফায় হামলা শুরু করেছে ইসরায়েলি সেনাবাহিনী। তবে এ হামলা চালিয়ে ইসরায়েল কখনোই হামাসকে হারাতে পারবে না বলে মনে করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।

স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার (৯ মে) হোয়াইট হাউসে এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান দেশটির জাতীয় নিরাপত্তা পরিষদের যোগাযোগবিষয়ক উপদেষ্টা জন কিরবি। বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

হোয়াইট হাউস মুখপাত্র বলেন, ইসরায়েল জোরালোভাবেই হামাস গোষ্ঠীকে চাপের মুখে ফেলতে সক্ষম হয়েছে। সেটাই যথেষ্ট ছিল। নতুন করে রাফায় আগ্রাসন কেবল বেসামরিকদের ঝুঁকিই বাড়াবে; এর বেশি কিছু না।

তিনি আরও জানান, রাফা আগ্রাসনে যুক্তরাষ্ট্র ইসরায়েলকে সাহায্য করছে না। তবে তার মানে এই না যে যুক্তরাষ্ট্র ইসরায়েলের পাশে নেই বা হামাসের নির্মূল চায় না। আমরা এখনও ইসরায়েলকে নিয়ে আশাবাদী। আমরা কেবল রাফা আগ্রাসনের বিকল্প নিয়ে আলোচনা করছি।

গাজায় ইসরায়েলি আগ্রাসনের সাত মাস পেরিয়ে গেছে। এই সময়ে ইসরায়েলি আগ্রাসনে নিহত হয়েছে প্রায় ৩৫ হাজার ফিলিস্তিনি। আহত হয়েছে প্রায় ৮০ হাজার। ইসরায়েলি বাহিনী উত্তর গাজা, মধ্য গাজাসহ অঞ্চলটির বেশির ভাগ এলাকায় অভিযান চালালেও রাফাহ এর বাইরে ছিল। এবার সেখানেও স্থল অভিযান শুরু করেছে তেল আবিব।

যুক্তরাষ্ট্র শুরু থেকেই গাজার রাফাহে ইসরায়েলি অভিযানের বিরোধিতা করে আসছে। এমনকি রাফায় সেনা অভিযান চালালে ইসরায়েলকে অস্ত্র দেবে না যুক্তরাষ্ট্র। মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের প্রশাসন এমন ঘোষণা দেওয়ার পর আরও বেঁকে বসেছেন ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু। এবার নেতানিয়াহু ঘোষণা দিয়েছেন, ইসরায়েল একাই লড়বে।

এই ইসরায়েলি কট্টরপন্থী নেতা বলেছেন, যদি আমাদের দরকার পড়ে আমরা একাই লড়বো। আমি বলছি যদি প্রয়োজন হয় আমরা আমাদের হাতের আঙুলের (অস্ত্রের বদলে) নখ দিয়েই লড়াই করবো।

 

বিজনেস বাংলাদেশ/DS

ইসরায়েল কখনোই হামাসকে হারাতে পারবে না: যুক্তরাষ্ট্র

প্রকাশিত : ০৬:২৮:১৩ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১০ মে ২০২৪

ফিলিস্তিনের স্বাধীনতাকামী সশস্ত্র গোষ্ঠী হামাসকে নির্মূলের লক্ষে গাজার দক্ষিণাঞ্চলের শহর রাফায় হামলা শুরু করেছে ইসরায়েলি সেনাবাহিনী। তবে এ হামলা চালিয়ে ইসরায়েল কখনোই হামাসকে হারাতে পারবে না বলে মনে করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।

স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার (৯ মে) হোয়াইট হাউসে এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান দেশটির জাতীয় নিরাপত্তা পরিষদের যোগাযোগবিষয়ক উপদেষ্টা জন কিরবি। বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

হোয়াইট হাউস মুখপাত্র বলেন, ইসরায়েল জোরালোভাবেই হামাস গোষ্ঠীকে চাপের মুখে ফেলতে সক্ষম হয়েছে। সেটাই যথেষ্ট ছিল। নতুন করে রাফায় আগ্রাসন কেবল বেসামরিকদের ঝুঁকিই বাড়াবে; এর বেশি কিছু না।

তিনি আরও জানান, রাফা আগ্রাসনে যুক্তরাষ্ট্র ইসরায়েলকে সাহায্য করছে না। তবে তার মানে এই না যে যুক্তরাষ্ট্র ইসরায়েলের পাশে নেই বা হামাসের নির্মূল চায় না। আমরা এখনও ইসরায়েলকে নিয়ে আশাবাদী। আমরা কেবল রাফা আগ্রাসনের বিকল্প নিয়ে আলোচনা করছি।

গাজায় ইসরায়েলি আগ্রাসনের সাত মাস পেরিয়ে গেছে। এই সময়ে ইসরায়েলি আগ্রাসনে নিহত হয়েছে প্রায় ৩৫ হাজার ফিলিস্তিনি। আহত হয়েছে প্রায় ৮০ হাজার। ইসরায়েলি বাহিনী উত্তর গাজা, মধ্য গাজাসহ অঞ্চলটির বেশির ভাগ এলাকায় অভিযান চালালেও রাফাহ এর বাইরে ছিল। এবার সেখানেও স্থল অভিযান শুরু করেছে তেল আবিব।

যুক্তরাষ্ট্র শুরু থেকেই গাজার রাফাহে ইসরায়েলি অভিযানের বিরোধিতা করে আসছে। এমনকি রাফায় সেনা অভিযান চালালে ইসরায়েলকে অস্ত্র দেবে না যুক্তরাষ্ট্র। মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের প্রশাসন এমন ঘোষণা দেওয়ার পর আরও বেঁকে বসেছেন ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু। এবার নেতানিয়াহু ঘোষণা দিয়েছেন, ইসরায়েল একাই লড়বে।

এই ইসরায়েলি কট্টরপন্থী নেতা বলেছেন, যদি আমাদের দরকার পড়ে আমরা একাই লড়বো। আমি বলছি যদি প্রয়োজন হয় আমরা আমাদের হাতের আঙুলের (অস্ত্রের বদলে) নখ দিয়েই লড়াই করবো।

 

বিজনেস বাংলাদেশ/DS