০৩:৪৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৮ মে ২০২৪

গণিত আমাদের যুক্তিবাদী হতে শেখায়-এলজিআরডি প্রতিমন্ত্রী

স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী মোঃ আব্দুল ওয়াদুদ দারা বলেছেন, গণিত আমাদের যুক্তিকে শাণিত করে ও যুক্তিবাদী হতে শেখায়। গাণিতিক গবেষণার পৃষ্ঠপোষকতায় সরকার অত্যন্ত আন্তরিক। সরকার স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক কনফারেন্স আয়োজন ও পৃষ্ঠপোষকতা করছে।

বৃহস্পতিবার (১৬ মে) সকালে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় সিনেট ভবনে বাংলাদেশ ম্যাথেমেটিকাল সোসাইটি আয়োজিত ২৩তম ইন্টারন্যাশনাল ম্যাথেমেটিকাল কনফারেন্সে প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রতিমন্ত্রী বলেন, আজ বাংলাদেশের এগিয়ে যাওয়ার সময়। তরুণদের এগিয়ে আসতে হবে তাদের জ্ঞান ও মেধা নিয়ে। মেধাকে কাজে লাগিয়ে বিদেশ থেকে গবেষণার জন্য বিনিয়োগ আকৃষ্ট করতে সবাইকে সমবায়ভিত্তিতে কাজ করতে হবে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, শিশুকাল থেকেই গণিতের প্রতি ভালোবাসা তৈরি করতে মা-বাবার ভূমিকা অপরিহার্য। ছোটবেলা থেকেই গণিতচর্চায় মনোযোগী হতে হবে। জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রেই হিসাব-নিকাশের জন্য গণিত প্রয়োজন হয়।

তিনি আরও বলেন, যুক্তি হলো প্রোগ্রামিংয়ের ভিত্তি। গণিতের পাশাপাশি প্রোগ্রামিং শিখতে হবে। তাছাড়া গবেষণায় নিয়োজিত হয়ে আজকের ছাত্ররাই গড়বে বঙ্গবন্ধুর স্বপের সোনার বাংলা। এভাবেই বাংলাদেশের ৫৬ হাজার বর্গমাইলের নাম ছড়িয়ে পড়বে বিশ্বের আনাচে-কানাচে। এরই ধারাবাহিকতায় সর্বদা কাজ করছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী মাদার অব হিউম্যানিটি শেখ হাসিনা।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. গোলাম সাব্বির সাত্তার। অনুষ্ঠানে বক্তব্য প্রদান করেন আইআইটি বোম্বের অধ্যাপক ড. দীপঙ্কর চোধুরি, রাবি উপউপাচার্য ও গণিত বিভাগের চেয়ারম্যান।

বিজনেস বাংলাদেশ/DS

ট্যাগ :

গণিত আমাদের যুক্তিবাদী হতে শেখায়-এলজিআরডি প্রতিমন্ত্রী

প্রকাশিত : ০৬:৩০:৫০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৬ মে ২০২৪

স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী মোঃ আব্দুল ওয়াদুদ দারা বলেছেন, গণিত আমাদের যুক্তিকে শাণিত করে ও যুক্তিবাদী হতে শেখায়। গাণিতিক গবেষণার পৃষ্ঠপোষকতায় সরকার অত্যন্ত আন্তরিক। সরকার স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক কনফারেন্স আয়োজন ও পৃষ্ঠপোষকতা করছে।

বৃহস্পতিবার (১৬ মে) সকালে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় সিনেট ভবনে বাংলাদেশ ম্যাথেমেটিকাল সোসাইটি আয়োজিত ২৩তম ইন্টারন্যাশনাল ম্যাথেমেটিকাল কনফারেন্সে প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রতিমন্ত্রী বলেন, আজ বাংলাদেশের এগিয়ে যাওয়ার সময়। তরুণদের এগিয়ে আসতে হবে তাদের জ্ঞান ও মেধা নিয়ে। মেধাকে কাজে লাগিয়ে বিদেশ থেকে গবেষণার জন্য বিনিয়োগ আকৃষ্ট করতে সবাইকে সমবায়ভিত্তিতে কাজ করতে হবে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, শিশুকাল থেকেই গণিতের প্রতি ভালোবাসা তৈরি করতে মা-বাবার ভূমিকা অপরিহার্য। ছোটবেলা থেকেই গণিতচর্চায় মনোযোগী হতে হবে। জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রেই হিসাব-নিকাশের জন্য গণিত প্রয়োজন হয়।

তিনি আরও বলেন, যুক্তি হলো প্রোগ্রামিংয়ের ভিত্তি। গণিতের পাশাপাশি প্রোগ্রামিং শিখতে হবে। তাছাড়া গবেষণায় নিয়োজিত হয়ে আজকের ছাত্ররাই গড়বে বঙ্গবন্ধুর স্বপের সোনার বাংলা। এভাবেই বাংলাদেশের ৫৬ হাজার বর্গমাইলের নাম ছড়িয়ে পড়বে বিশ্বের আনাচে-কানাচে। এরই ধারাবাহিকতায় সর্বদা কাজ করছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী মাদার অব হিউম্যানিটি শেখ হাসিনা।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. গোলাম সাব্বির সাত্তার। অনুষ্ঠানে বক্তব্য প্রদান করেন আইআইটি বোম্বের অধ্যাপক ড. দীপঙ্কর চোধুরি, রাবি উপউপাচার্য ও গণিত বিভাগের চেয়ারম্যান।

বিজনেস বাংলাদেশ/DS