০৩:২৭ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪

কসবায় ‌‍‍‍‌‘কথিত’ বন্দুকযুদ্ধে নিহত ১

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলায় পুলিশের সাথে ‘কথিত’ বন্দুকযুদ্ধে সাকিব উদ্দিন নামে এক ডাকাত সদস্য নিহত হয়েছে বলে দাবি করেছে পুলিশ। পুলিশের ভাষ্য, গোলাগুলির ঘটনায় আহত হন দুই পুলিশ সদস্য।

শুক্রবার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে উপজেলার বিনাউটি ইউনিয়নের টিঘরিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আহত চার পুলিশ সদস্যের মধ্যে কসবা থানা পুলিশের সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) মো. সালাহউদ্দিন ও ফরুকসহ আরও দুই কনস্টেবল রয়েছেন। তাদেরকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

পুলিশের দাবি, নিহত যুবক একজন ডাকাত। রাতে ডাকাতির উদ্দেশ্যে ওই ব্যক্তি তার সহযোগীদের নিয়ে টিঘরিয়া গ্রামে হানা দিয়েছিল।

বিষয়টি নিশ্চিত করে কসবা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মহিউদ্দিন জানান, শুক্রবার দিবাগত রাতে ১৫-২০ জনের একটি স্বশস্ত্র ডাকাত দল টিঘরিয়া গ্রামে ডাকাতির উদ্দেশ্যে হানা দেয়। পরে স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে ডাকাতরা গুলি চালাতে থাকে। এসময় পুলিশও নিজেদের আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি চালায়।

এসময় ঘটনাস্থল থেকে একটি পাইপগান, তিন রাউন্ড কার্তুজ ও দুইটি রামদা উদ্ধার করা হয়েছে। নিহত ডাকাতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

ট্যাগ :
জনপ্রিয়

ইসরায়েলে আঘাত হেনেছে হিজবুল্লাহর ড্রোন, আহত ১৮

কসবায় ‌‍‍‍‌‘কথিত’ বন্দুকযুদ্ধে নিহত ১

প্রকাশিত : ০১:১৩:১০ অপরাহ্ন, শনিবার, ২১ অক্টোবর ২০১৭

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলায় পুলিশের সাথে ‘কথিত’ বন্দুকযুদ্ধে সাকিব উদ্দিন নামে এক ডাকাত সদস্য নিহত হয়েছে বলে দাবি করেছে পুলিশ। পুলিশের ভাষ্য, গোলাগুলির ঘটনায় আহত হন দুই পুলিশ সদস্য।

শুক্রবার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে উপজেলার বিনাউটি ইউনিয়নের টিঘরিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আহত চার পুলিশ সদস্যের মধ্যে কসবা থানা পুলিশের সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) মো. সালাহউদ্দিন ও ফরুকসহ আরও দুই কনস্টেবল রয়েছেন। তাদেরকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

পুলিশের দাবি, নিহত যুবক একজন ডাকাত। রাতে ডাকাতির উদ্দেশ্যে ওই ব্যক্তি তার সহযোগীদের নিয়ে টিঘরিয়া গ্রামে হানা দিয়েছিল।

বিষয়টি নিশ্চিত করে কসবা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মহিউদ্দিন জানান, শুক্রবার দিবাগত রাতে ১৫-২০ জনের একটি স্বশস্ত্র ডাকাত দল টিঘরিয়া গ্রামে ডাকাতির উদ্দেশ্যে হানা দেয়। পরে স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে ডাকাতরা গুলি চালাতে থাকে। এসময় পুলিশও নিজেদের আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি চালায়।

এসময় ঘটনাস্থল থেকে একটি পাইপগান, তিন রাউন্ড কার্তুজ ও দুইটি রামদা উদ্ধার করা হয়েছে। নিহত ডাকাতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।