০৩:০৩ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪

বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বাস্তবায়ন করে এগিয়ে যাচ্ছি: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেছেন, ‘আমাদের মাঝে বঙ্গবন্ধুর কন্যা এলেন। তিনি বাংলার এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে মানুষকে আহ্বান করেছেন। সেই কারণেই আজ আমরা পেরেছি। বঙ্গবন্ধু শাহাদত বরণ করলেও তাঁর আদর্শ বাস্তবায়ন করে মাইলফলক হিসেবে এগিয়ে যাচ্ছি।’

সোমবার বিকালে জেল হত্যা দিবস উপলক্ষে এক আলোচনা সভায় মন্ত্রী এসব কথা বলেন। রাজধানীর কাকরাইলের আইডিইবি মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতি মিলানায়তনে বিকালে মাতৃছায়া পত্রিকা ও স্বাধীনতা একাডেমি এই আলোচনা সভার আয়োজন করে।

তিনি বলেন, ‘১৯৭৫ সালের ৩ নভেম্বর জাতীয় চার নেতাকে কারাগারে হত্যা করার সময় তাদের প্রধানমন্ত্রী হওয়ার প্রস্তাব দিয়েছিল খুনিরা। কিন্তু তারা সেই প্রলোভন গ্রহণ করেননি। খুনিদের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করে মৃত্যুকে তারা আলিঙ্গন করেছিলেন। সেই কারণে আজ তাদেরকে শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করা হয়।’

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘জেলে যারা থাকে তাদের নিরাপত্তা দেয়ার দায়িত্ব সরকারের। কিন্তু সেই সময়ের সরকার এই নিরাপত্তা দেয়নি। পরিকল্পিতভাবে জাতীয় চার নেতাকে হত্যা করা হয়েছে।’

সম্প্রতি ইউনেস্কোর স্বীকৃতি পাওয়া বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, ‘১৯৭১ সালের ৭ মার্চে বঙ্গবন্ধু যে বক্তব্য দিয়েছেন তা কোনো লিখিত বক্তব্য ছিল না। ১৯ মিনিটের সেই ভাষণ আজ পৃথিবীর সর্বশ্রেষ্ঠ ভাষণ। ওই ভাষণটির মতো অন্য কোণ ভাষণ পৃথিবীর মানুষ শোনেনি। তিনি অত্যন্ত দূরদৃষ্টিসম্পন্ন নেতা ছিলেন।’

আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুকে যারা হত্যা করেছে তারা স্বাধীনতা যুদ্ধে পরাজিত শক্তি। লড়াইয়ে হেরে যাওয়ার প্রতিশোধ নিয়েছে বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করে। পরবর্তী সময়ে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নকে যারা বাস্তবায়িত করতে পারতেন তাদেরকে জেলে হত্যা করা হয়েছে। আজ বাংলাদেশ বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নকে বাস্তবায়ন করে এগিয়ে চলছে।’

ট্যাগ :
জনপ্রিয়

ইসরায়েলে আঘাত হেনেছে হিজবুল্লাহর ড্রোন, আহত ১৮

বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বাস্তবায়ন করে এগিয়ে যাচ্ছি: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রকাশিত : ১০:১৪:৪৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ৬ নভেম্বর ২০১৭

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেছেন, ‘আমাদের মাঝে বঙ্গবন্ধুর কন্যা এলেন। তিনি বাংলার এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে মানুষকে আহ্বান করেছেন। সেই কারণেই আজ আমরা পেরেছি। বঙ্গবন্ধু শাহাদত বরণ করলেও তাঁর আদর্শ বাস্তবায়ন করে মাইলফলক হিসেবে এগিয়ে যাচ্ছি।’

সোমবার বিকালে জেল হত্যা দিবস উপলক্ষে এক আলোচনা সভায় মন্ত্রী এসব কথা বলেন। রাজধানীর কাকরাইলের আইডিইবি মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতি মিলানায়তনে বিকালে মাতৃছায়া পত্রিকা ও স্বাধীনতা একাডেমি এই আলোচনা সভার আয়োজন করে।

তিনি বলেন, ‘১৯৭৫ সালের ৩ নভেম্বর জাতীয় চার নেতাকে কারাগারে হত্যা করার সময় তাদের প্রধানমন্ত্রী হওয়ার প্রস্তাব দিয়েছিল খুনিরা। কিন্তু তারা সেই প্রলোভন গ্রহণ করেননি। খুনিদের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করে মৃত্যুকে তারা আলিঙ্গন করেছিলেন। সেই কারণে আজ তাদেরকে শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করা হয়।’

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘জেলে যারা থাকে তাদের নিরাপত্তা দেয়ার দায়িত্ব সরকারের। কিন্তু সেই সময়ের সরকার এই নিরাপত্তা দেয়নি। পরিকল্পিতভাবে জাতীয় চার নেতাকে হত্যা করা হয়েছে।’

সম্প্রতি ইউনেস্কোর স্বীকৃতি পাওয়া বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, ‘১৯৭১ সালের ৭ মার্চে বঙ্গবন্ধু যে বক্তব্য দিয়েছেন তা কোনো লিখিত বক্তব্য ছিল না। ১৯ মিনিটের সেই ভাষণ আজ পৃথিবীর সর্বশ্রেষ্ঠ ভাষণ। ওই ভাষণটির মতো অন্য কোণ ভাষণ পৃথিবীর মানুষ শোনেনি। তিনি অত্যন্ত দূরদৃষ্টিসম্পন্ন নেতা ছিলেন।’

আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুকে যারা হত্যা করেছে তারা স্বাধীনতা যুদ্ধে পরাজিত শক্তি। লড়াইয়ে হেরে যাওয়ার প্রতিশোধ নিয়েছে বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করে। পরবর্তী সময়ে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নকে যারা বাস্তবায়িত করতে পারতেন তাদেরকে জেলে হত্যা করা হয়েছে। আজ বাংলাদেশ বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নকে বাস্তবায়ন করে এগিয়ে চলছে।’