০৬:৩৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪

রাজধানীতে গলায় ফাঁস দিয়ে তরুণীর আত্মহত্যা

রাজধানীর পূর্ব রামপুরা পুলিশ ফাঁড়ি এলাকায় গলায় ফাঁস দিয়ে লিমা আক্তার (২০) নামে এক তরুণী আত্মহত্যা করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

মাগুরার মোহাম্মদপুর উপজেলার মন্ডলগাতি গ্রামের কবির হোসেনের তৃতীয় সন্তান লিমা আক্তার। বর্তমানে তিনি বাবা-মায়ের সঙ্গে পূর্ব রামপুরার ভাড়া বাসায় থাকতেন।

লিমার মা আলেয়া বেগম জানান, তিন বছর আগে সাভারের ইমারত হোসেন নামে এক ব্যক্তির সঙ্গে লিমার বিয়ে হয়। বিয়ের পর স্বামীর সঙ্গে সেখানে থেকে স্থানীয় একটি গার্মেন্টেসে চাকরি করতো লিমা। কিন্তু মোবাইলে কথা নিয়ে প্রায়ই স্বামীর সঙ্গে ঝগড়া হতো তার। এজন্য গত ৬ মাস তাকে আমাদের বাসায় (পূর্ব রামপুরা) নিয়ে আসি। এরপর থেকে আমাদের সঙ্গেই থাকতো লিমা।

তিনি আরো জানান, মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে বাথরুমে গিয়ে বের হচ্ছিলো না লিমা। এসময় তার সারা শব্দ না পেয়ে বাথরুমের দরজা ভেঙে দেখা যায় নিচে পড়ে আছে লিমা। এসময় ভেন্টিলেটরের সঙ্গে ওড়না বাধা দেখতে যায়।

তাংক্ষণিক তাকে উদ্ধার করে প্রথমে স্থানীয় ফরাজি হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নেওয়ার পরামর্শ দেন। পরে ঢামেক হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক বেলা সাড়ে ১১টায় তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ঢামেক পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ উপ-পরিদর্শক (এসআই) বাচ্চু মিয়া বিষয়টি নিশ্চিব করে জানান, ময়নাতদন্তের জন্য লাশ মর্গে রাখা হয়েছে।

ট্যাগ :
জনপ্রিয়

রাজধানীতে গলায় ফাঁস দিয়ে তরুণীর আত্মহত্যা

প্রকাশিত : ০৩:১০:১৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৭

রাজধানীর পূর্ব রামপুরা পুলিশ ফাঁড়ি এলাকায় গলায় ফাঁস দিয়ে লিমা আক্তার (২০) নামে এক তরুণী আত্মহত্যা করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

মাগুরার মোহাম্মদপুর উপজেলার মন্ডলগাতি গ্রামের কবির হোসেনের তৃতীয় সন্তান লিমা আক্তার। বর্তমানে তিনি বাবা-মায়ের সঙ্গে পূর্ব রামপুরার ভাড়া বাসায় থাকতেন।

লিমার মা আলেয়া বেগম জানান, তিন বছর আগে সাভারের ইমারত হোসেন নামে এক ব্যক্তির সঙ্গে লিমার বিয়ে হয়। বিয়ের পর স্বামীর সঙ্গে সেখানে থেকে স্থানীয় একটি গার্মেন্টেসে চাকরি করতো লিমা। কিন্তু মোবাইলে কথা নিয়ে প্রায়ই স্বামীর সঙ্গে ঝগড়া হতো তার। এজন্য গত ৬ মাস তাকে আমাদের বাসায় (পূর্ব রামপুরা) নিয়ে আসি। এরপর থেকে আমাদের সঙ্গেই থাকতো লিমা।

তিনি আরো জানান, মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে বাথরুমে গিয়ে বের হচ্ছিলো না লিমা। এসময় তার সারা শব্দ না পেয়ে বাথরুমের দরজা ভেঙে দেখা যায় নিচে পড়ে আছে লিমা। এসময় ভেন্টিলেটরের সঙ্গে ওড়না বাধা দেখতে যায়।

তাংক্ষণিক তাকে উদ্ধার করে প্রথমে স্থানীয় ফরাজি হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নেওয়ার পরামর্শ দেন। পরে ঢামেক হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক বেলা সাড়ে ১১টায় তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ঢামেক পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ উপ-পরিদর্শক (এসআই) বাচ্চু মিয়া বিষয়টি নিশ্চিব করে জানান, ময়নাতদন্তের জন্য লাশ মর্গে রাখা হয়েছে।