০৫:৫০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪

চিটাগং ভাইকিংসকে ৬ উইকেটে হারালো কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স

বিপিএলে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের কাছে দ্বিতীয়বার ধরাশায়ী হল চিটাগং ভাইকিংস। ১৪তম ম্যাচে কুমিল্লার কাছে ৬ উইকেটে পরাজিত হল চিটাগং।

মঙ্গলবার টসে জিতে মিসবাহ-উল-হকের চিটাগং ভাইকিংসকে ব্যাটিংয়ে আমন্ত্রণ জানায় কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স।

ওপেনিংয়ে নেমেই ব্যাটে শুরুটা দারুন হয় চিটাগং ভাইকিংসের। ব্যাটিংয়ে মাঠে ঝড় তলে লুক রনচি। যা দেখে মনে করেছিলো চিটাগং ভাইকিংসের সংগ্রহ ধারবে ২০০ এর মতো। কিন্তু লো স্কোরিংয়ের ধারাবাহিকতায় চিটাগং ভাইকিংসের ৪ উইকেটে হারিয়ে সংগ্রহ দাঁড়ায় ১৩৯ রান।

১৪০ রানের টার্গেটে মাঠে নেমে ভালো করতে পারেনি ওপেনার তামিম ইকবাল। মুনারাবিরা বল করলে ব্যাটে লেগে বল উঠে যায় উপরে ক্যাচ ধরে শুভাশীষ রায় ফিরে যাওয়ার আগে ১০ বল খেলে ৪ রান করে। তামিম ফিরে গেলে দলকে জয়ের দিকে এগিয়ে নিয়ে যায় লিটন দাশ ও ইমরুল কায়েস কিন্তু লিটনকে মুনারাবিরা বোল্ড করলে কিছুটা চাপে পরে কুমিল্লা। লিটন আউট হয়ার আগে করেণ ২০ বলে ২১ রান। এর পর ধীরগতিতে খেলতে শুরু করে ইমরুল কায়েস ও জস বাটলার। এরপর ইমরুল কায়েস ৩৬ বলে ৪৪ রান ও বাটলার ৩১ বলে ৪৪ রান করে আউট হলে জয় থেকে ছিটকে পরেনি কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। দলের হাল ধরে মারলন স্যামুয়েলস ৮ বলে ১৭ রান করে দলকে জয় এনে দেয়।

এখন পর্যন্ত চিটাগং ভাইকিংস ও কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের দেখা হয় দুইবার। প্রথম ম্যাচেই চিটাগং ভাইকিংস ৮ উইকেটে হারে ভিক্টোরিয়ান্সের কাছে। তবে এবার আর প্রতিশোধ নিতে পারেনি চিটাগং ভাইকিংস।

এবার ১৪০ রানের সহজ লক্ষ করতে নেমে ৪ উইকেট হারিয়ে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে কুমিল্লা।

ট্যাগ :
জনপ্রিয়

ইসরায়েলকে সতর্ক করল হোয়াইট হাউজ

চিটাগং ভাইকিংসকে ৬ উইকেটে হারালো কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স

প্রকাশিত : ১০:০৪:১৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৭

বিপিএলে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের কাছে দ্বিতীয়বার ধরাশায়ী হল চিটাগং ভাইকিংস। ১৪তম ম্যাচে কুমিল্লার কাছে ৬ উইকেটে পরাজিত হল চিটাগং।

মঙ্গলবার টসে জিতে মিসবাহ-উল-হকের চিটাগং ভাইকিংসকে ব্যাটিংয়ে আমন্ত্রণ জানায় কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স।

ওপেনিংয়ে নেমেই ব্যাটে শুরুটা দারুন হয় চিটাগং ভাইকিংসের। ব্যাটিংয়ে মাঠে ঝড় তলে লুক রনচি। যা দেখে মনে করেছিলো চিটাগং ভাইকিংসের সংগ্রহ ধারবে ২০০ এর মতো। কিন্তু লো স্কোরিংয়ের ধারাবাহিকতায় চিটাগং ভাইকিংসের ৪ উইকেটে হারিয়ে সংগ্রহ দাঁড়ায় ১৩৯ রান।

১৪০ রানের টার্গেটে মাঠে নেমে ভালো করতে পারেনি ওপেনার তামিম ইকবাল। মুনারাবিরা বল করলে ব্যাটে লেগে বল উঠে যায় উপরে ক্যাচ ধরে শুভাশীষ রায় ফিরে যাওয়ার আগে ১০ বল খেলে ৪ রান করে। তামিম ফিরে গেলে দলকে জয়ের দিকে এগিয়ে নিয়ে যায় লিটন দাশ ও ইমরুল কায়েস কিন্তু লিটনকে মুনারাবিরা বোল্ড করলে কিছুটা চাপে পরে কুমিল্লা। লিটন আউট হয়ার আগে করেণ ২০ বলে ২১ রান। এর পর ধীরগতিতে খেলতে শুরু করে ইমরুল কায়েস ও জস বাটলার। এরপর ইমরুল কায়েস ৩৬ বলে ৪৪ রান ও বাটলার ৩১ বলে ৪৪ রান করে আউট হলে জয় থেকে ছিটকে পরেনি কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। দলের হাল ধরে মারলন স্যামুয়েলস ৮ বলে ১৭ রান করে দলকে জয় এনে দেয়।

এখন পর্যন্ত চিটাগং ভাইকিংস ও কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের দেখা হয় দুইবার। প্রথম ম্যাচেই চিটাগং ভাইকিংস ৮ উইকেটে হারে ভিক্টোরিয়ান্সের কাছে। তবে এবার আর প্রতিশোধ নিতে পারেনি চিটাগং ভাইকিংস।

এবার ১৪০ রানের সহজ লক্ষ করতে নেমে ৪ উইকেট হারিয়ে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে কুমিল্লা।