০৫:৫৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪

বনানীতে খুনের ঘটনায় ফুটেজ সংগ্রহ করবে পুলিশ

রাজধানীর বনানীতে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ঢুকে ব্যবসায়ীকে গুলি করে হত্যার ঘটনায় সিসি ক্যামেরার ফুটেজ সংগ্রহ করবে পুলিশ। হত্যার ক্লু জানতে ফুটেজগুলো উদ্ধার করা হবে।

বুধবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে নিজ কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে ঢাকা মহানগর পুলিশের গুলশান বিভাগের উপ কমিশনার মোশতাক আহমেদ এ কথা জানান।

তিনি জানান, বনানীতে মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে কয়েকজন মুখোশধারী ব্যক্তি এক রিক্রুটিং এজেন্সির কার্যালয়ে প্রবেশ করে এলাপাতাড়ি গুলি চালায়। এ সময় প্রতিষ্ঠানটির মালিক সিদ্দিক হোসেন (৫৫) নিহত হন। এছাড়া গুলিতে প্রতিষ্ঠানটির আরো তিন কর্মচারী আহত হন। এ হত্যার ঘটনায় কোনো পারিবারিক, ব্যবসায়িক বা স্থানীয় কোনো দ্বন্দ্ব আছে কি না তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তবে এ ঘটনায় এখনো কাউকে গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি।

মোশতাক আহমেদ জানান, হত্যাকারীদের শনাক্ত করতে আমরা ওই ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের আশপাশের সিসি ক্যামেরার ফুটেজ সংগ্রহ করবো। আশা করছি কোনো একটা ক্লু ধরতে পারবো।

এর আগে, মঙ্গলবার রাতে বনানী বি ব্লকের ৪ নম্বর রোডের ১১৩ নম্বর বাড়ির নিচতলায় এস মুন্সি ওভারসিজের কার্যালয়। সিদ্দিক মুন্সির ওই প্রতিষ্ঠানে চার দুর্বৃত্ত অতর্কিতে ঢুকে পড়ে। দুই দুর্বৃত্ত সিদ্দিক মুন্সির কক্ষে ঢুকে কয়েকটি গুলি চালায়। এরপর তারা অফিস রুমে এলোপাতাড়ি গুলি চালায়। এতে তার প্রতিষ্ঠানের তিন কর্মী আহত হন।

তাদের উদ্ধার করে ইউনাইটেড হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকেরা সিদ্দিক মুন্সিকে মৃত ঘোষণা করেন।

ট্যাগ :
জনপ্রিয়

বনানীতে খুনের ঘটনায় ফুটেজ সংগ্রহ করবে পুলিশ

প্রকাশিত : ০৩:১২:২৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৭

রাজধানীর বনানীতে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ঢুকে ব্যবসায়ীকে গুলি করে হত্যার ঘটনায় সিসি ক্যামেরার ফুটেজ সংগ্রহ করবে পুলিশ। হত্যার ক্লু জানতে ফুটেজগুলো উদ্ধার করা হবে।

বুধবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে নিজ কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে ঢাকা মহানগর পুলিশের গুলশান বিভাগের উপ কমিশনার মোশতাক আহমেদ এ কথা জানান।

তিনি জানান, বনানীতে মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে কয়েকজন মুখোশধারী ব্যক্তি এক রিক্রুটিং এজেন্সির কার্যালয়ে প্রবেশ করে এলাপাতাড়ি গুলি চালায়। এ সময় প্রতিষ্ঠানটির মালিক সিদ্দিক হোসেন (৫৫) নিহত হন। এছাড়া গুলিতে প্রতিষ্ঠানটির আরো তিন কর্মচারী আহত হন। এ হত্যার ঘটনায় কোনো পারিবারিক, ব্যবসায়িক বা স্থানীয় কোনো দ্বন্দ্ব আছে কি না তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তবে এ ঘটনায় এখনো কাউকে গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি।

মোশতাক আহমেদ জানান, হত্যাকারীদের শনাক্ত করতে আমরা ওই ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের আশপাশের সিসি ক্যামেরার ফুটেজ সংগ্রহ করবো। আশা করছি কোনো একটা ক্লু ধরতে পারবো।

এর আগে, মঙ্গলবার রাতে বনানী বি ব্লকের ৪ নম্বর রোডের ১১৩ নম্বর বাড়ির নিচতলায় এস মুন্সি ওভারসিজের কার্যালয়। সিদ্দিক মুন্সির ওই প্রতিষ্ঠানে চার দুর্বৃত্ত অতর্কিতে ঢুকে পড়ে। দুই দুর্বৃত্ত সিদ্দিক মুন্সির কক্ষে ঢুকে কয়েকটি গুলি চালায়। এরপর তারা অফিস রুমে এলোপাতাড়ি গুলি চালায়। এতে তার প্রতিষ্ঠানের তিন কর্মী আহত হন।

তাদের উদ্ধার করে ইউনাইটেড হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকেরা সিদ্দিক মুন্সিকে মৃত ঘোষণা করেন।