০৫:২০ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪

শাকিব খান ও আমার পরে বাংলাদেশে কোনো নায়ক নেই: কাজী মারুফ

বাংলাদেশে শাকিব খান ও কাজী মারুফের পরে কোনো নায়ক নেই। এমনটাই মন্তব্য করেছেন ইতিহাসখ্যাত এই অভিনেতা। একটি টেলিভিশন শোতে হাজির হয়ে উপস্থাপকের প্রশ্নের উত্তরে মারুফ বলেন, শাকিব খান ও আমার পরে কোনো নায়ক নেই।

এবারের ঈদে কাজী মারুফের চলচ্চিত্র গ্রিনকার্ড সেন্সর ছাড়পত্র পেয়েছে। ছবিটি নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র থেকে হাজির হয়েই প্রচারণা শুরু করেছেন। এই প্রচারণার অংশ হিসেবেই শাহরিয়ার নাজিম জয়ের মুখোমুখি হয়েছিলেন। জয়ের প্রশ্নের উত্তরে মারুফ বলেন, এবারের ঈদের দুইটা ছবি সেরা একটা রাজকুমার, আরেকটা গ্রিনকার্ড। শাকিবের কাছে শাকিবেরটা সেরা, আমার কাছে আমারটা। কাজী মারুফ ফুরিয়ে যায়নি।

লাদাখে ১৫ দিন ধরে অনশনে ‘থ্রি ইডিয়টস’-এর আসল র‌্যাঞ্চোলাদাখে ১৫ দিন ধরে অনশনে ‘থ্রি ইডিয়টস’-এর আসল র‌্যাঞ্চো
শুধু তাই নয়, দেশে পূজা চেরী ছাড়া আর কোনো নায়িকাই নেই বলে মন্তব্য করেন অভিনেতা।

কাজী হায়াতের মাধ্যমে ২০০২ ‘ইতিহাস’ ছবি দিয়ে রুপালি পর্দায় অভিষিক্ত হয়েছিলেন কাজী মারুফ। প্রথম ছবিতেই তিনি বাজিমাৎ করেছিলেন। পরে তিনি একে একে অভিনয় করেন অন্ধকার, অন্য মানুষ, ক্যাপ্টেন মারুফ, ওরা আমাকে ভালো হতে দিল না, দেহরক্ষীর মতো ছবিতে। কয়েকবছর ধরে যুক্তরাষ্ট্রের লং আইল্যান্ডে বসবাস করছেন মারুফ। নিজে প্রযোজক হয়ে দীর্ঘদিন পর মারুফ নির্মাণ করলেন ‘গ্রিন কার্ড’।

মেয়ের ছবি প্রকাশ্যে আনলেন আবিরমেয়ের ছবি প্রকাশ্যে আনলেন আবির
যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী হওয়ায় দেশটিতে বাংলাদেশিদের নানা কষ্ট নিজ চোখে দেখেছেন কাজী মারুফ। জীবন ঘনিষ্ঠ সেই গল্প তিনি তুলে ধরছেন ‘গ্রিন কার্ড’-এ।

কাজী মারুফ বলেন, আমেরিকা থেকে যেটা আমি নিজ চোখে দেখেছি সেই গল্প নিয়ে এ ছবি বানিয়েছি। যারা ওই জীবন দেখেছে তারা একবাক্যে বলবে ‘গ্রিন কার্ড’ বাস্তব ও জীবনের গল্পের ছবি। আমার ছবির জন্য এক শ্রেণির দর্শক আছে। আমার বিশ্বাস তারা এ ছবি দেখে পছন্দ করবে।

বিজনেস বাংলাদেশ/একে

ট্যাগ :
জনপ্রিয়

শাকিব খান ও আমার পরে বাংলাদেশে কোনো নায়ক নেই: কাজী মারুফ

প্রকাশিত : ০১:৪৪:৫৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৭ মার্চ ২০২৪

বাংলাদেশে শাকিব খান ও কাজী মারুফের পরে কোনো নায়ক নেই। এমনটাই মন্তব্য করেছেন ইতিহাসখ্যাত এই অভিনেতা। একটি টেলিভিশন শোতে হাজির হয়ে উপস্থাপকের প্রশ্নের উত্তরে মারুফ বলেন, শাকিব খান ও আমার পরে কোনো নায়ক নেই।

এবারের ঈদে কাজী মারুফের চলচ্চিত্র গ্রিনকার্ড সেন্সর ছাড়পত্র পেয়েছে। ছবিটি নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র থেকে হাজির হয়েই প্রচারণা শুরু করেছেন। এই প্রচারণার অংশ হিসেবেই শাহরিয়ার নাজিম জয়ের মুখোমুখি হয়েছিলেন। জয়ের প্রশ্নের উত্তরে মারুফ বলেন, এবারের ঈদের দুইটা ছবি সেরা একটা রাজকুমার, আরেকটা গ্রিনকার্ড। শাকিবের কাছে শাকিবেরটা সেরা, আমার কাছে আমারটা। কাজী মারুফ ফুরিয়ে যায়নি।

লাদাখে ১৫ দিন ধরে অনশনে ‘থ্রি ইডিয়টস’-এর আসল র‌্যাঞ্চোলাদাখে ১৫ দিন ধরে অনশনে ‘থ্রি ইডিয়টস’-এর আসল র‌্যাঞ্চো
শুধু তাই নয়, দেশে পূজা চেরী ছাড়া আর কোনো নায়িকাই নেই বলে মন্তব্য করেন অভিনেতা।

কাজী হায়াতের মাধ্যমে ২০০২ ‘ইতিহাস’ ছবি দিয়ে রুপালি পর্দায় অভিষিক্ত হয়েছিলেন কাজী মারুফ। প্রথম ছবিতেই তিনি বাজিমাৎ করেছিলেন। পরে তিনি একে একে অভিনয় করেন অন্ধকার, অন্য মানুষ, ক্যাপ্টেন মারুফ, ওরা আমাকে ভালো হতে দিল না, দেহরক্ষীর মতো ছবিতে। কয়েকবছর ধরে যুক্তরাষ্ট্রের লং আইল্যান্ডে বসবাস করছেন মারুফ। নিজে প্রযোজক হয়ে দীর্ঘদিন পর মারুফ নির্মাণ করলেন ‘গ্রিন কার্ড’।

মেয়ের ছবি প্রকাশ্যে আনলেন আবিরমেয়ের ছবি প্রকাশ্যে আনলেন আবির
যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী হওয়ায় দেশটিতে বাংলাদেশিদের নানা কষ্ট নিজ চোখে দেখেছেন কাজী মারুফ। জীবন ঘনিষ্ঠ সেই গল্প তিনি তুলে ধরছেন ‘গ্রিন কার্ড’-এ।

কাজী মারুফ বলেন, আমেরিকা থেকে যেটা আমি নিজ চোখে দেখেছি সেই গল্প নিয়ে এ ছবি বানিয়েছি। যারা ওই জীবন দেখেছে তারা একবাক্যে বলবে ‘গ্রিন কার্ড’ বাস্তব ও জীবনের গল্পের ছবি। আমার ছবির জন্য এক শ্রেণির দর্শক আছে। আমার বিশ্বাস তারা এ ছবি দেখে পছন্দ করবে।

বিজনেস বাংলাদেশ/একে