০৩:৫২ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪

‘সংবাদ’ নিয়ে ফিরছেন সোহেল আরমান

জনপ্রিয় নির্মাতা সোহেল আরমান। প্রায় তিন দশক ধরে শোবিজে কাজ করছেন তিনি। একাধারে তিনি একজন নাট্যকার, পরিচালক, গীতিকার ও অভিনেতা। ২০১৫ সালে দেশ সেরা নায়ক শাকিব খান ও আফসানা আরা বিন্দুকে জুটি করে নির্মাণ করেন ক্যারিয়ারের প্রথম চলচ্চিত্র ‘এই তো প্রেম’। মুক্তিযুদ্ধের গল্পে নির্মিত প্রথম চলচ্চিত্রটি সেসময় দর্শকমহলে বেশ সাড়া ফেলে। সিনেমাটির ‘হৃদয়ে আমার বাংলাদেশ’ ও ‘আমি তোমার মনের ভিতর’ শিরোনামের গান দুটি আজও মানুষের মুখে মুখে। দ্বিতীয় চলচ্চিত্র ‘ভ্রমর’র বাকি থাকা ৪০ শতাংশ কাজ অচিরেই শেষ করতে চান এই নির্মাতা।

মাঝে বড় পর্দায় নির্মাণে বিরতি থাকলেও শিগগিরই ক্যারিয়ারের তৃতীয় চলচ্চিত্রের নির্মাণ কাজ শুরু করতে যাচ্ছেন সোহেল আরমান। সিনেমার নাম ‘সংবাদ’। এতে অভিনয় করবেন এ সময়ের দর্শকপ্রিয় অভিনয় শিল্পী ইরফান সাজ্জাদ, আইশা খান ও সোহেল মন্ডল। আগামী সপ্তাহে সিনেমাটির মহরতের মাধ্যমে শুটিংয়ের পরিকল্পনা ও বিস্তারিত জানানো হবে বলে জানিয়েছেন সোহেল আরমান।

বড় পর্দায় বিরতি কেন জানতে চাইলে ‘এই তো প্রেম’খ্যাত নির্মাতা বলেন, ‘আমি কখনো সংখ্যা বাড়ানোর চিন্তা করে কাজ করি না। প্রয়োজনে কাজ কম করব তবে, দর্শক মনে গেঁথে যাবে এমন কিছু করার চেষ্টা থাকে সবসময়। আশা করছি, দর্শক দারুণ কিছু পেতে যাচ্ছেন।’

সিনেমার গল্প প্রসঙ্গে সোহেল আরমান বলেন, ‘গল্পটা অনেক পুরনো, ১৮৭২ সালের। সে সময়ের জমিদার বাড়ির একটি হারানো গল্পে এটি নির্মিত হবে। তবে প্রেমের নয়, একটা গ্রামের গল্প। জমিদার বাড়ির চুরি যাওয়া গল্প যেটা পেয়েছি এক সাংবাদিকের মাধ্যমে। আপাতত এটুকুই। বাকিটুকু খুব শিগগিরই সংবাদ সম্মেলন করে জানাব।’

ইরফান সাজ্জাদ বলেন, ‘অনেক দিন পর নতুন সিনেমায় যুক্ত হয়েছি। একেবারে নতুন একটি চরিত্রে দেখা যাবে আমায়। জমিদারদের শাসন ও শোষণ এ গল্পে তুলে ধরা হবে। এ সময়ের দর্শকদের কথা চিন্তা করে গল্পটি তৈরি করেছেন আরমান ভাই। গল্পটি আমার অনেক বেশি ভালো লেগেছে। চ্যালেঞ্জিং একটি চরিত্র। আশা করছি, সবার পছন্দ হবে।’

আইশা খান বলেন, ‘আমি খুবই এক্সাইটেড যে খোকন ভাইয়ের গল্পে সোহেল আরমান ভাইয়ের নির্দেশনায় কাজ করব। সোহেল আরমান ভাই এরই মধ্যে নির্মাতা হিসেবে নিজেকে চিনিয়েছেন। আমি তার লেখার ভীষণ ভক্ত। গল্পটা অনেক সুন্দর যার কারণে কিছু চিন্তা না করেই কাজটি করতে রাজি হয়েছি। সবকিছু মিলিয়ে না বলতে পারিনি। আশা করি, তার নির্মাণের মধ্যে দিয়ে দর্শক ভালো কিছু পেতে যাচ্ছে। আর আমার চরিত্রে চমক আছে, যা সিনেমাটি মুক্তি পেলে দর্শক দেখতে পারবে।’

সোহেল মন্ডল বলেন, ‘এটি একটি সম্পর্কের গল্প। এর আগে এ ধরনের চরিত্রে কাজ করিনি। সোহেল আরমান ভাইয়ের সঙ্গে কাজ করার জন্য মুখিয়ে আছি। এই মুহূর্তে চরিত্র নিয়ে কিছু বলা যাবে না। এটা দর্শকদের জন্য চমক থাকবে।’

দীর্ঘ ক্যারিয়ারে প্রায় পাঁচ শতাধিকেরও বেশি নাটক নির্মাণ করেছেন সোহেল আরমান। ভয়েস টুডের ব্যানারে নির্মিতব্য সিনেমাটির গল্প লেখার পাশাপাশি প্রযোজনা করছেন এন এ খোকন। সিনেমাটির চিত্রনাট্য করেছেন সোহেল আরমান নিজেই। আগামী ১লা জুন শুরু হয়ে ১৩ জুন পর্যন্ত প্রথম লটের শুটিং চলবে বলে জানান নির্মাতা। একই মাসের ২১ জুন থেকে ৩০ জুন পর্যন্ত একটানা কাজ করে শেষ হবে সিনেমার পুরো দৃশ্য ধারণ।

‘সংবাদ’ নিয়ে ফিরছেন সোহেল আরমান

প্রকাশিত : ০৫:৩৬:৫৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ১১ মে ২০২৪

জনপ্রিয় নির্মাতা সোহেল আরমান। প্রায় তিন দশক ধরে শোবিজে কাজ করছেন তিনি। একাধারে তিনি একজন নাট্যকার, পরিচালক, গীতিকার ও অভিনেতা। ২০১৫ সালে দেশ সেরা নায়ক শাকিব খান ও আফসানা আরা বিন্দুকে জুটি করে নির্মাণ করেন ক্যারিয়ারের প্রথম চলচ্চিত্র ‘এই তো প্রেম’। মুক্তিযুদ্ধের গল্পে নির্মিত প্রথম চলচ্চিত্রটি সেসময় দর্শকমহলে বেশ সাড়া ফেলে। সিনেমাটির ‘হৃদয়ে আমার বাংলাদেশ’ ও ‘আমি তোমার মনের ভিতর’ শিরোনামের গান দুটি আজও মানুষের মুখে মুখে। দ্বিতীয় চলচ্চিত্র ‘ভ্রমর’র বাকি থাকা ৪০ শতাংশ কাজ অচিরেই শেষ করতে চান এই নির্মাতা।

মাঝে বড় পর্দায় নির্মাণে বিরতি থাকলেও শিগগিরই ক্যারিয়ারের তৃতীয় চলচ্চিত্রের নির্মাণ কাজ শুরু করতে যাচ্ছেন সোহেল আরমান। সিনেমার নাম ‘সংবাদ’। এতে অভিনয় করবেন এ সময়ের দর্শকপ্রিয় অভিনয় শিল্পী ইরফান সাজ্জাদ, আইশা খান ও সোহেল মন্ডল। আগামী সপ্তাহে সিনেমাটির মহরতের মাধ্যমে শুটিংয়ের পরিকল্পনা ও বিস্তারিত জানানো হবে বলে জানিয়েছেন সোহেল আরমান।

বড় পর্দায় বিরতি কেন জানতে চাইলে ‘এই তো প্রেম’খ্যাত নির্মাতা বলেন, ‘আমি কখনো সংখ্যা বাড়ানোর চিন্তা করে কাজ করি না। প্রয়োজনে কাজ কম করব তবে, দর্শক মনে গেঁথে যাবে এমন কিছু করার চেষ্টা থাকে সবসময়। আশা করছি, দর্শক দারুণ কিছু পেতে যাচ্ছেন।’

সিনেমার গল্প প্রসঙ্গে সোহেল আরমান বলেন, ‘গল্পটা অনেক পুরনো, ১৮৭২ সালের। সে সময়ের জমিদার বাড়ির একটি হারানো গল্পে এটি নির্মিত হবে। তবে প্রেমের নয়, একটা গ্রামের গল্প। জমিদার বাড়ির চুরি যাওয়া গল্প যেটা পেয়েছি এক সাংবাদিকের মাধ্যমে। আপাতত এটুকুই। বাকিটুকু খুব শিগগিরই সংবাদ সম্মেলন করে জানাব।’

ইরফান সাজ্জাদ বলেন, ‘অনেক দিন পর নতুন সিনেমায় যুক্ত হয়েছি। একেবারে নতুন একটি চরিত্রে দেখা যাবে আমায়। জমিদারদের শাসন ও শোষণ এ গল্পে তুলে ধরা হবে। এ সময়ের দর্শকদের কথা চিন্তা করে গল্পটি তৈরি করেছেন আরমান ভাই। গল্পটি আমার অনেক বেশি ভালো লেগেছে। চ্যালেঞ্জিং একটি চরিত্র। আশা করছি, সবার পছন্দ হবে।’

আইশা খান বলেন, ‘আমি খুবই এক্সাইটেড যে খোকন ভাইয়ের গল্পে সোহেল আরমান ভাইয়ের নির্দেশনায় কাজ করব। সোহেল আরমান ভাই এরই মধ্যে নির্মাতা হিসেবে নিজেকে চিনিয়েছেন। আমি তার লেখার ভীষণ ভক্ত। গল্পটা অনেক সুন্দর যার কারণে কিছু চিন্তা না করেই কাজটি করতে রাজি হয়েছি। সবকিছু মিলিয়ে না বলতে পারিনি। আশা করি, তার নির্মাণের মধ্যে দিয়ে দর্শক ভালো কিছু পেতে যাচ্ছে। আর আমার চরিত্রে চমক আছে, যা সিনেমাটি মুক্তি পেলে দর্শক দেখতে পারবে।’

সোহেল মন্ডল বলেন, ‘এটি একটি সম্পর্কের গল্প। এর আগে এ ধরনের চরিত্রে কাজ করিনি। সোহেল আরমান ভাইয়ের সঙ্গে কাজ করার জন্য মুখিয়ে আছি। এই মুহূর্তে চরিত্র নিয়ে কিছু বলা যাবে না। এটা দর্শকদের জন্য চমক থাকবে।’

দীর্ঘ ক্যারিয়ারে প্রায় পাঁচ শতাধিকেরও বেশি নাটক নির্মাণ করেছেন সোহেল আরমান। ভয়েস টুডের ব্যানারে নির্মিতব্য সিনেমাটির গল্প লেখার পাশাপাশি প্রযোজনা করছেন এন এ খোকন। সিনেমাটির চিত্রনাট্য করেছেন সোহেল আরমান নিজেই। আগামী ১লা জুন শুরু হয়ে ১৩ জুন পর্যন্ত প্রথম লটের শুটিং চলবে বলে জানান নির্মাতা। একই মাসের ২১ জুন থেকে ৩০ জুন পর্যন্ত একটানা কাজ করে শেষ হবে সিনেমার পুরো দৃশ্য ধারণ।