০৩:১৯ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪

উত্তরা ফুটপাথ হকার মুক্ত করার নির্দেশনা

যানজট জলচট হকার জোট এই দিন জোটে উত্তরা বাসি। আর এই তিন জোটের মধ্যে হকার জোট ব্যাপকভাবে সয়া লাভ করেছে উত্তরায়। জনজীবন হয়েছে জন্মস্থিরতা।
বর্তমান সময়ে উত্তরার প্রত্যেকটি ফুটপাত হকারদের দখলে ছিল। পথচারীরা যেন অসহায়ত্ব বোধ করছিল। বিষয়টি দৃষ্টিগোচর হয় ট্রাফিকের উত্তরা বিভাগের ডিসি নাবিদ কামাল শৈবালের। তারই দিকনির্দেশনায় উত্তরা আজমপুর পুলিশ বক্স এর টি আই মাসুম তার সঙ্গীও দলবল নিয়ে আজমপুর আমির কমপ্লেক্সে থেকে শুরু করে কাবাব ফ্যাক্টরি পর্যন্ত রবীন্দ্র সরণীর এই রাস্তাটি হকারমুক্ত করেন।

এই সময় তিনি রাস্তায় পড়ে থাকা তালাবদ্ধ ১৭ টির মতো ভ্যান গাড়িকে ডাম্পিং এ পাঠান। তিনি সাংবাদিকদের উদ্দেশ্য করে বলেন ডিসি ট্রাফিকের দিক নির্দেশনায় আমরা ফুটপাত হকার মুক্ত করছি। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন আবার বসলে আবার উচ্ছেদ করা হবে।
বিষয়টি নিয়ে টেলিফোনে কথা হয় উত্তরা বিভাগের ট্রাফিকের ডিসি নাবিদ কামাল শৈবালের সাথে। তিনি বলেন দেশের অর্থনীতির চাকা সচল রাখতে হলে রাস্তাঘাট যানজট মুক্ত রাখতে হবে। তারই ধারাবাহিকতায় আমি পুলিশ কমিশনার হাবিবুর রহমানের নির্দেশনা বাস্তবায়নের জন্য আমার ট্রাফিক বিভাগকে নির্দেশ দিয়েছি। হকারদের পুনর্বাসনের ব্যবস্থা না করে তাদেরকে উচ্ছেদ করলে এই অসহায় পরিবারগুলো কোথায় গিয়ে দাঁড়াবে এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন পুনর্বাসনটা পুলিশের দায়িত্ব নয়। এটার জন্য আলাদা বিভাগ রয়েছে তারাই তা বাস্তবায়ন করবেন। তবে আমিও চাই এই গরিব পরিবারগুলোর একটা আয়ের সঠিক ব্যবস্থা করা হোক।
সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় যারা উচ্ছেদ অভিযানে অংশগ্রহণ করেছেন তাদের গায়ের দিকে হকাররা তেড়ে আসেন এ ব্যাপারে তারা কি করতে পারেন জানতে চাইলে ভিসি সাহেব বলেন যথেষ্ট নিরাপত্তা ব্যবস্থা রয়েছে। উক্ত অভিযান পরিচালনার সময় উপস্থিত ছিলেন এসি ট্রাফিক (পূর্ব) ইব্রাহিম।

বিজনেস বাংলাদেশ/BH

ট্যাগ :

উত্তরা ফুটপাথ হকার মুক্ত করার নির্দেশনা

প্রকাশিত : ০৫:৪৫:৩২ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৩ মে ২০২৪

যানজট জলচট হকার জোট এই দিন জোটে উত্তরা বাসি। আর এই তিন জোটের মধ্যে হকার জোট ব্যাপকভাবে সয়া লাভ করেছে উত্তরায়। জনজীবন হয়েছে জন্মস্থিরতা।
বর্তমান সময়ে উত্তরার প্রত্যেকটি ফুটপাত হকারদের দখলে ছিল। পথচারীরা যেন অসহায়ত্ব বোধ করছিল। বিষয়টি দৃষ্টিগোচর হয় ট্রাফিকের উত্তরা বিভাগের ডিসি নাবিদ কামাল শৈবালের। তারই দিকনির্দেশনায় উত্তরা আজমপুর পুলিশ বক্স এর টি আই মাসুম তার সঙ্গীও দলবল নিয়ে আজমপুর আমির কমপ্লেক্সে থেকে শুরু করে কাবাব ফ্যাক্টরি পর্যন্ত রবীন্দ্র সরণীর এই রাস্তাটি হকারমুক্ত করেন।

এই সময় তিনি রাস্তায় পড়ে থাকা তালাবদ্ধ ১৭ টির মতো ভ্যান গাড়িকে ডাম্পিং এ পাঠান। তিনি সাংবাদিকদের উদ্দেশ্য করে বলেন ডিসি ট্রাফিকের দিক নির্দেশনায় আমরা ফুটপাত হকার মুক্ত করছি। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন আবার বসলে আবার উচ্ছেদ করা হবে।
বিষয়টি নিয়ে টেলিফোনে কথা হয় উত্তরা বিভাগের ট্রাফিকের ডিসি নাবিদ কামাল শৈবালের সাথে। তিনি বলেন দেশের অর্থনীতির চাকা সচল রাখতে হলে রাস্তাঘাট যানজট মুক্ত রাখতে হবে। তারই ধারাবাহিকতায় আমি পুলিশ কমিশনার হাবিবুর রহমানের নির্দেশনা বাস্তবায়নের জন্য আমার ট্রাফিক বিভাগকে নির্দেশ দিয়েছি। হকারদের পুনর্বাসনের ব্যবস্থা না করে তাদেরকে উচ্ছেদ করলে এই অসহায় পরিবারগুলো কোথায় গিয়ে দাঁড়াবে এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন পুনর্বাসনটা পুলিশের দায়িত্ব নয়। এটার জন্য আলাদা বিভাগ রয়েছে তারাই তা বাস্তবায়ন করবেন। তবে আমিও চাই এই গরিব পরিবারগুলোর একটা আয়ের সঠিক ব্যবস্থা করা হোক।
সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় যারা উচ্ছেদ অভিযানে অংশগ্রহণ করেছেন তাদের গায়ের দিকে হকাররা তেড়ে আসেন এ ব্যাপারে তারা কি করতে পারেন জানতে চাইলে ভিসি সাহেব বলেন যথেষ্ট নিরাপত্তা ব্যবস্থা রয়েছে। উক্ত অভিযান পরিচালনার সময় উপস্থিত ছিলেন এসি ট্রাফিক (পূর্ব) ইব্রাহিম।

বিজনেস বাংলাদেশ/BH