ঢাকা রাত ১০:১১, শুক্রবার, ৩রা ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, ২০শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

জনসম্পৃক্ত তৃণমূল প্রতিষ্ঠানের ভূমিকা নিয়ে সম্মেলন

‘কৃষি এবং ভিজিডি’, ‘স্বাস্থ্য এবং নিরাপদ পানি, স্যানিটেশন ও স্বাস্থ্যবিধি’ এবং ‘শিক্ষা’ নিশ্চিত করতে গণতান্ত্রিক সুশাসন ও উন্নয়ন: জনসম্পৃক্ত তৃণমূল প্রতিষ্ঠানের ভূমিকা নিয়ে একটি সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বুধবার (১৮ ডিসেম্বর) রাজধানীর ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি বসুন্ধরায় (আইসিসিবি) সেন্টার ফর পলিসি ডায়লগ (সিপিডি) এবং অক্সফাম ইন বাংলাদেশ এই সম্মেলনের আয়োজন করে।

সরকারের এসডিজি বাস্তবায়ন প্রক্রিয়াকে সহযোগিতা দেওয়ার উদ্দেশ্যে ইউরোপীয় ইউনিয়নের আর্থিক সহায়তায় সিপিডি ও অক্সফাম ইন বাংলাদেশ যৌথভাবে দেশের ১৩টি জেলায় ‘গণতান্ত্রিক সুশাসনে জনসম্পৃক্ত প্রতিষ্ঠানের অংশগ্রহণ’ শীর্ষক একটি প্রকল্প পরিচালনা করছে।

প্রকল্পের উদ্দেশ্য হচ্ছে এসডিজি বাস্তবায়ন প্রক্রিয়ায় স্থানীয় সরকারসহ বেসরকারি পর্যায়ের অন্যান্য সব সংশ্লিষ্ট পক্ষগুলোর অংশগ্রহণ ও সক্রিয় অবদান রাখার সুযোগ সৃষ্টির লক্ষ্যে তাদের যথাযথ সক্ষমতা তৈরির চেষ্টা করা।

সমাপনী অনুষ্ঠানে সম্মানিত অথিতির বক্তব্যে সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালগ (সিপিডি) চেয়ারম্যান অধ্যাপক রেহমান সোবহান বলেন, এসডিজি বাস্তবায়নে অর্থের যে বরাদ্দ হয়, সেটি যাদের পাওয়ার কথা তারাই পায়, না-কি পায় না, এটি যথাযথভাবে হচ্ছে কি-না, আবার এই অর্থ যে পেলো, সে কি ঠিকমত কাজে লাগাতে পারলো, এটাও একটি বিষয়। সরকার এবং জনগণের মধ্যে ফারাক তৈরি হয়। জনপ্রতিনিধিরা সেটা কীভাবে পূরণ করেন, তা আলোচনা করতে হবে।

তিনি বলেন, জনপ্রতিনিধি হিসেবে সংসদ সদস্যরা নিজ নিজ এলাকায় টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) কতটুকু বাস্তবায়ন করতে পেরেছেন, তার মুল্যায়ন করা যেতে পারে নিজ ‍জনগণের মতামতের ভিত্তিতে। জনগণের ভূমিকা বাদ দিয়ে কোনো দেশ আগাতে পারে না। এই কাজে সারাদেশের মানুষ কাজ করছে। আজ যারা এখানে উপস্থিত হয়েছেন, তাদের অভিনন্দন। আপনাদের ভূমিকা অব্যাহত রাখতে হবে।

পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি সাবের হোসেন চৌধুরী বলেন, স্বাধীনতার সুফল যেন দেশের প্রতিটি নাগরিককে স্পর্শ করে, সেই আলোকে সবাইকে নিয়ে এগিয়ে যাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করতে হবে। এজন্য সবাইকে বুঝতে হবে এককভাবে আমরা এই কাজটি করতে পারব না। সবাইকে নিজ নিজ জায়গা থেকে নিজের কাজটি করে গেলে লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করতে পারব।

সাবের হোসেন চৌধুরী বলেন, এসডিজি বাস্তবায়নে কৃষি, স্বাস্থ্য এবং শিক্ষার বিষয়টি আপনারা উল্লেখ করেছেন। আমাদের কৃষি, শিক্ষা এবং স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি আছে, এসব বিষয়ে কী কী করণীয়, সেই বিষয়গুলো আমি তাদের কাছে পৌঁছে দেব। যাতে এটার ওপর আলোচনা করতে পারে। এছাড়া জানুয়ারিতে রাষ্ট্রপতির ভাষণ দিয়ে যে অধিবেশন শুরু হয়, সেখানে আমরা সব বিষয় নিয়ে আলোচনা করতে পারি। আমি এই তিনটি বিষয় আলোচনা করব।

সিপিডির সম্মানীয় ফেলো ড. দেবপ্রিয় ভট্টাচার্যের সভাপতিত্বে বক্তব্য দেন পরিকল্পনা মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য হাফিজ আহমেদ মজুমদার, ইউরোপীয় ইউনিয়নের রাষ্ট্রদূত রেন্সজে তেরিংক, অক্সফাম ইন বাংলাদেশের কান্ট্রি ম্যানেজার ড. দীপঙ্কর দত্ত, সিপিডির নির্বাহী পরিচালক ড. ফাহমিদা খাতুন প্রমুখ।

বিজনেস বাংলাদেশ/কবির

এ বিভাগের আরও সংবাদ