০১:০৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪

বাড়ছে তিস্তার পানি খুলে দেওয়া হয়েছে ব্যারেজের ৪৪টি জলকপাট

উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে তিস্তা নদীর পানি বাড়তে শুরু করেছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে দেশের বৃহত্তম সেচ প্রকল্প তিস্তা ব্যারেজের ৪৪টি জলকপাট খুলে দিয়েছে ব্যারেজ কর্তৃপক্ষ।
বৃহস্পতিবার বিকাল সাড়ে ৫টায় তিস্তার পানিপ্রবাহ রেকর্ড করা হয়েছে ৫১ দশমিক ৫২ সেন্টিমিটার। যা বিপৎসীমার দশমিক ৬৪ সেন্টিমিটার (স্বাভাবিক ৫২ দশমিক ১৫ সেন্টিমিটার) নিচ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।
জানা গেছে, ২৯ মে বুধবার রাত ৮টা থেকে দেশের বৃহত্তম সেচ প্রকল্প তিস্তা ব্যারাজে পানি বাড়তে শুরু করে। এদিকে হঠাৎ তিস্তার পানি বৃদ্ধি পাওয়ায়  লালমনিরহাট জেলার হাতীবান্ধা উপজেলার ৬টি ইউনিয়নের ৮-১০টি চর এলাকায় পানি উঠতে পারে বলে জানান স্থানীয়রা।
ডালিয়া পানি উন্নয়ন বোর্ডের হাইড্রোলজিক বিভাগের পানি পরিমাপক নূরুল ইসলাম জানান, বুধবার সন্ধ্যা থেকে পানি বাড়তে থাকে, এক মিটারের মতো পানি বৃদ্ধি হতে পারে। শুক্রবার  সকাল থেকে পানি প্রবাহ কিছুটা কমতে শুরু করবে।
হাতীবান্ধা উপজেলার গড্ডিমারী ইউনিয়নের প্যানেল চেয়ারম্যান আকবার আলী বলেন, হঠাৎ রাতে নদীর পানি বেড়ে যাওয়ায় আমরা আতঙ্কিত হয়ে পড়েছি। পানি বেড়ে যাওয়ায় আমাদের রাত জেগে থাকতে হবে।
ট্যাগ :
জনপ্রিয়

বাড়ছে তিস্তার পানি খুলে দেওয়া হয়েছে ব্যারেজের ৪৪টি জলকপাট

প্রকাশিত : ০৯:৪৩:৪০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪
উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে তিস্তা নদীর পানি বাড়তে শুরু করেছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে দেশের বৃহত্তম সেচ প্রকল্প তিস্তা ব্যারেজের ৪৪টি জলকপাট খুলে দিয়েছে ব্যারেজ কর্তৃপক্ষ।
বৃহস্পতিবার বিকাল সাড়ে ৫টায় তিস্তার পানিপ্রবাহ রেকর্ড করা হয়েছে ৫১ দশমিক ৫২ সেন্টিমিটার। যা বিপৎসীমার দশমিক ৬৪ সেন্টিমিটার (স্বাভাবিক ৫২ দশমিক ১৫ সেন্টিমিটার) নিচ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।
জানা গেছে, ২৯ মে বুধবার রাত ৮টা থেকে দেশের বৃহত্তম সেচ প্রকল্প তিস্তা ব্যারাজে পানি বাড়তে শুরু করে। এদিকে হঠাৎ তিস্তার পানি বৃদ্ধি পাওয়ায়  লালমনিরহাট জেলার হাতীবান্ধা উপজেলার ৬টি ইউনিয়নের ৮-১০টি চর এলাকায় পানি উঠতে পারে বলে জানান স্থানীয়রা।
ডালিয়া পানি উন্নয়ন বোর্ডের হাইড্রোলজিক বিভাগের পানি পরিমাপক নূরুল ইসলাম জানান, বুধবার সন্ধ্যা থেকে পানি বাড়তে থাকে, এক মিটারের মতো পানি বৃদ্ধি হতে পারে। শুক্রবার  সকাল থেকে পানি প্রবাহ কিছুটা কমতে শুরু করবে।
হাতীবান্ধা উপজেলার গড্ডিমারী ইউনিয়নের প্যানেল চেয়ারম্যান আকবার আলী বলেন, হঠাৎ রাতে নদীর পানি বেড়ে যাওয়ায় আমরা আতঙ্কিত হয়ে পড়েছি। পানি বেড়ে যাওয়ায় আমাদের রাত জেগে থাকতে হবে।