ঢাকা বিকাল ৩:২৫, সোমবার, ২৮শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১৩ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

যে জিনিস পছন্দ এবং অপছন্দ কোহলির

আনুশকা শর্মা এবং বিরাট কোহলির প্রেমকাহিনি এখন আর কারও কাছে অজানা নয়। একসঙ্গে শপিং থেকে বিজ্ঞাপনের শুটিং, বন্ধুর বিয়েতে নাচ, এমনকি নিউইয়র্কের রাস্তায়ও একসঙ্গে দেখা গেছে দুজনকে। আনুশকা শর্মা যে ভারতীয় ক্রিকেটের হবু ‘ফার্স্ট লেডি’ হওয়ার পথে, সে কথা সবাই জানে। কিন্তু বলিউড অভিনেত্রীর কোন ব্যাপারটি বিরাট কোহলির অপছন্দ, সে কথা কি কেউ জানেন?

এখন অবশ্য আর কারও অজানা নেই। দীপাবলি উপলক্ষে বিশেষ একটি ‘টিভি শো’র শুটিংয়ে আমির খানের সঙ্গে আড্ডায় মেতেছিলেন কোহলি। সেখানে ব্যক্তিগত জীবন ও নানা বিষয় নিয়ে কথা বলেন ভারতীয় দলপতি। খুব স্বাভাবিকভাবেই উঠে এসেছিল আনুশকার প্রসঙ্গ। প্রেমিকাকে নিয়ে আমিরের প্রশ্নবাণে কোহলি কিন্তু ব্যাট চালিয়েছেন সপাটে।
দীপাবলির দিন প্রচারের অপেক্ষায় থাকা এ অনুষ্ঠানের শুটিংয়ে আনুশকার সঙ্গে প্রেমের কথা সরাসরি স্বীকার করেছেন কোহলি। কোনো রাখঢাক করেননি। প্রেমিকার যেমন প্রশংসা করেছেন, তেমনি অপছন্দের কথাও বলেছেন। অনুষ্ঠানটির শুটিংয়ে উপস্থিত ছিলেন ভারতীয় গণমাধ্যমকর্মী সমির আল্লানা। তাঁর সূত্র মারফত আমির-কোহলি প্রশ্নোত্তর পর্ব সম্পর্কে জানিয়েছে দেশটির গণমাধ্যম ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস।
কোহলিকে আমির প্রশ্ন করেছিলেন, আনুশকার কোন ব্যাপারটি তাঁর অপছন্দের? কোহলির জবাব, ‘তাঁর (আনুশকা) সততা এবং সব সময় যত্নবান থাকা আমার ভালো লাগে। তবে একটা ব্যাপার ঠিক ঘৃণা না করলেও অপছন্দ করি, সে সব সময় পাঁচ-সাত মিনিট দেরিতে আসে।’ এ ছাড়া আমিরকে আরও কিছু মজার তথ্য জানিয়েছেন কোহলি। অনূর্ধ্ব-১৭ দলে থাকতে কোহলি এমনভাবে চুল কেটেছিলেন যে কান দুটি বেশ বড় দেখাত। এ কারণে তাঁকে সবাই ‘চিকু’ (খরগোশ) বলে ডাকত।

২০১১ বিশ্বকাপের ফাইনালে লাসিথ মালিঙ্গাকে খেলা নিয়ে নিজের ভীতির কথাও অকপটে স্বীকার করেন কোহলি। আমির জানতে চেয়েছিলেন, তাঁর কোন সিনেমা ভালো লাগে? ‘জো জিতা ও সিকান্দার’, ‘থ্রি ইডিয়টস’ আর ‘পিকে’র কথা বলেন কোহলি। শেষ ছবিটার সূত্র ধরে কোহলিকে আমিরের খোঁচা, ‘হ্যাঁ, হ্যাঁ সেটা তো পছন্দ হবেই।’ ওই চলচ্চিত্রে আমিরের বিপরীতে অভিনয় করেছেন যে আনুশকা! সূত্র: ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস।

এ বিভাগের আরও সংবাদ