ঢাকা সকাল ১০:০২, বুধবার, ৭ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ২২শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

নৌপথে চাঁদাবাজি চলবে না

পুলিশের মহাপরিদর্শক এ কে এম শহীদুল হক বলেছেন, নৌপথে নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা নৌ পুলিশ সদস্যদের বিরুদ্ধে হয়রানি ও চাঁদাবাজির অভিযোগ পাওয়া যাচ্ছে জানিয়ে বাহিনীর সদস্যদের হুঁশিয়ার করে দিয়েছেন। বলেছেন, এসব কাজ থেকে তাদের বিরত থাকতে হবে। নৌ পুলিশের চতুর্থ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে রাজধানীতে এক অনুষ্ঠানে রবিবার আইজিপি এই হুঁশিয়ারি দেন। সকালে মিরপুর পুলিশ কনভেশন হলে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। পুলিশ প্রধান বলেন, ‘বিভিন্ন সময়ে পত্রিকায় লেখালেখি হয়েছে, এছাড়াও অভিযোগ রয়েছে নৌ পুলিশ সাধারণ মানুষকে হয়রানি করে, তারা চাঁদাবাজি করে। এগুলো বন্ধ করতে হবে। এ বিষয়ে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের নজর দিতে হবে।’ ‘নৌখাতে যারা জড়িত রয়েছেন তাদের একটি ওয়ার্কিং টিম করতে হবে। যাতে সবাই সবাইকে চেনে সবাইকে জানে তাতে তাদের কাজ করতে সুবিধা হবে।’ শহীদুল হক বলেন, নৌ পথে নানা ধরনের মানুষ জড়িত। নৌ পুলিশকে তাদের মেজাজ বুঝতে হবে। তাদেরকে নিজেদের পরিবারের সদস্য মনে কাজ করতে হবে।’ ‘আমাদের মাথায় রাখতে হবে নৌ পুলিশ তৈরি হয়েছে একটি বিশেষায়িত পুলিশ হিসেবে। সেই কথা মাথায় রেখেই তাদের সেভাবেই কাজ করতে হবে। শুধু টহল দিলাম তাতেই কাজ হবে না।’ ২০১৩ সালের ১২ নভেম্বর গঠন করা হয় নৌ পুলিশ। নৌপথে ডাকাতি, চাঁদাবাজি, ছিনতাই ঠেকানোসহ নৌপথের নিরাপত্তার জন্য এই বাহিনীর জন্ম। একজন উপ মহাপরিদর্শক (ডিআইজির) নেতৃত্বে দুই হাজার ৫২২ জন জনবল নিয়ে দুইটি বিভাগ ও আটটি অঞ্চল ৪৭ জেলায় কার্যক্রম পরিচালনা করছে।

এ বিভাগের আরও সংবাদ