০৩:৫৩ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪

শেরপুরে পৌর এলাকার বীর মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদ পরিবারের সদস্যদের মাঝে সংবর্ধনা

সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য তনয়া বর্তমান প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন জননেত্রী শেখ হাসিনার” স্মার্ট বাংলাদেশ” উন্নয়নশীল দেশ গড়ার লক্ষ্যে শেরপুরে ২৭শে মার্চ রোজ বুধবার বিকালে জেলা শিল্পকলা একাডেমী মিলনায়তনে পৌর এলাকার বীর মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদ পরিবারের সদস্যদের মাঝে সংবর্ধনা প্রদান করা হয়েছে।

এসময় পৌর মেয়র আলহাজ্ব গোলাম মোহাম্মদ কিবরিয়া লিটন এর সভাপতিত্বে পৌর প্রশাসনিক কর্মকর্তা আব্দুল কাদের এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে জেলা প্রশাসকের পক্ষে স্থানীয় সরকারের উপ-পরিচালক (ডিডিএলজি) তোফায়েল আহম্মেদ।

অনুষ্ঠানে প্রধান আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন সাবেক সফল পৌর মেয়র ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জননেতা মোঃ হুমায়ুন কবীর রুমান।

অনুষ্ঠানে সভাপতি পৌর মেয়র আলহাজ্ব গোলাম মোহাম্মদ কিবরিয়া লিটন তার বক্তব্যের মাধ্যমে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য কন্যা বর্তমান প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে স্মার্ট বাংলাদেশ ও উন্নয়নশীল দেশ গড়ার লক্ষ্যে আমরা আমাদের শেরপুরে পৌরসভার মাধ্যমে প্রতি বছর পৌর এলাকার বীর মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদ পরিবারের সদস্যদের মাঝে সংবর্ধনা এবং উপহার দিয়ে থাকি।

প্রধান আলোচক জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান হুমায়ূন কবীর রুমান তার বক্তব্যের মাধ্যমে জানান আমি শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করছি সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সহ তার পরিবারের সকল সদস্যদের প্রতি। আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে “স্মার্ট বাংলাদেশ” ও উন্নয়নমূলক দেশ গড়ার লক্ষ্যে এবং বীর মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদ পরিবারের সদস্যদের জন্য যে পরিমাণ কষ্ট করে যাচ্ছেন আমরা তার তুলনায় কিছুই করতে পারি না। তিনি সেই সময় শেরপুরের কিশোর গেরিলাযোদ্ধা বিষয়ক দুটি ট্রাজেডী সহ ছোট মুক্তিযোদ্ধা মোজাম্মেল হোসেন ও আজাদ খান এর কথা তুলে ধরেন। তিনি আরও তুলে ধরেন সকল শহীদ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের কথা।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ রফিকুল ইসলাম, বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদের শেরপুর জেলা শাখার সাবেক কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা এ এস এম নুরুল ইসলাম হিরো, সাবেক কমান্ডার অ্যাড.মোঃ মোখলেসুর রহমান আকন্দ, পৌর প্যানেল মেয়র কামাল হোসেন, পৌর প্যানেল মেয়র নাজমা আক্তার, পৌর নির্বাহী কর্মকর্তা আবু লায়েছ মোঃ বজলুল করিম, পৌর নির্বাহী প্রকৌশলী দওয়ান রেজাউল করিম, পৌর এলাকার মুক্তিযোদ্ধাবৃন্দ শহীদ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সদস্যরা ও পৌরসভার বিভিন্ন দপ্তরের সকল কর্মকর্তা ও কর্মচারীসহ গণমাধ্যমকর্মী উপস্থিত থেকে পৌর এলাকার ১০ জন শহিদও ১৫০ জন। পরবর্তীতে মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সদস্যদের সংবর্ধনা সহ শুভেচ্ছা উপহার সামগ্রীও তুলে দেওয়া হয়।

ট্যাগ :
জনপ্রিয়

শেরপুরে পৌর এলাকার বীর মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদ পরিবারের সদস্যদের মাঝে সংবর্ধনা

প্রকাশিত : ০৮:২৪:৪৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৭ মার্চ ২০২৪

সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য তনয়া বর্তমান প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন জননেত্রী শেখ হাসিনার” স্মার্ট বাংলাদেশ” উন্নয়নশীল দেশ গড়ার লক্ষ্যে শেরপুরে ২৭শে মার্চ রোজ বুধবার বিকালে জেলা শিল্পকলা একাডেমী মিলনায়তনে পৌর এলাকার বীর মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদ পরিবারের সদস্যদের মাঝে সংবর্ধনা প্রদান করা হয়েছে।

এসময় পৌর মেয়র আলহাজ্ব গোলাম মোহাম্মদ কিবরিয়া লিটন এর সভাপতিত্বে পৌর প্রশাসনিক কর্মকর্তা আব্দুল কাদের এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে জেলা প্রশাসকের পক্ষে স্থানীয় সরকারের উপ-পরিচালক (ডিডিএলজি) তোফায়েল আহম্মেদ।

অনুষ্ঠানে প্রধান আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন সাবেক সফল পৌর মেয়র ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জননেতা মোঃ হুমায়ুন কবীর রুমান।

অনুষ্ঠানে সভাপতি পৌর মেয়র আলহাজ্ব গোলাম মোহাম্মদ কিবরিয়া লিটন তার বক্তব্যের মাধ্যমে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য কন্যা বর্তমান প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে স্মার্ট বাংলাদেশ ও উন্নয়নশীল দেশ গড়ার লক্ষ্যে আমরা আমাদের শেরপুরে পৌরসভার মাধ্যমে প্রতি বছর পৌর এলাকার বীর মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদ পরিবারের সদস্যদের মাঝে সংবর্ধনা এবং উপহার দিয়ে থাকি।

প্রধান আলোচক জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান হুমায়ূন কবীর রুমান তার বক্তব্যের মাধ্যমে জানান আমি শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করছি সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সহ তার পরিবারের সকল সদস্যদের প্রতি। আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে “স্মার্ট বাংলাদেশ” ও উন্নয়নমূলক দেশ গড়ার লক্ষ্যে এবং বীর মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদ পরিবারের সদস্যদের জন্য যে পরিমাণ কষ্ট করে যাচ্ছেন আমরা তার তুলনায় কিছুই করতে পারি না। তিনি সেই সময় শেরপুরের কিশোর গেরিলাযোদ্ধা বিষয়ক দুটি ট্রাজেডী সহ ছোট মুক্তিযোদ্ধা মোজাম্মেল হোসেন ও আজাদ খান এর কথা তুলে ধরেন। তিনি আরও তুলে ধরেন সকল শহীদ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের কথা।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ রফিকুল ইসলাম, বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদের শেরপুর জেলা শাখার সাবেক কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা এ এস এম নুরুল ইসলাম হিরো, সাবেক কমান্ডার অ্যাড.মোঃ মোখলেসুর রহমান আকন্দ, পৌর প্যানেল মেয়র কামাল হোসেন, পৌর প্যানেল মেয়র নাজমা আক্তার, পৌর নির্বাহী কর্মকর্তা আবু লায়েছ মোঃ বজলুল করিম, পৌর নির্বাহী প্রকৌশলী দওয়ান রেজাউল করিম, পৌর এলাকার মুক্তিযোদ্ধাবৃন্দ শহীদ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সদস্যরা ও পৌরসভার বিভিন্ন দপ্তরের সকল কর্মকর্তা ও কর্মচারীসহ গণমাধ্যমকর্মী উপস্থিত থেকে পৌর এলাকার ১০ জন শহিদও ১৫০ জন। পরবর্তীতে মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সদস্যদের সংবর্ধনা সহ শুভেচ্ছা উপহার সামগ্রীও তুলে দেওয়া হয়।