০৪:০৮ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪

উপজেলা নির্বাচনে এমপি মন্ত্রীদের প্রভাব খাটানোর প্রমাণ পেলে প্রার্থীতা বাতিল হবে

উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রার্থীরা এমপি মন্ত্রীদের প্রভাব খাটালে প্রার্থীতা বাতিলসহ কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার হুশিয়ারি দিয়েছেন নির্বাচন কমিশনার রাশেদা সুলতানা। বৃহস্পতিবার (২ মে) সকালে পাবনা জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের সাথে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।
রাশেদা সুলতানা বলেন, মন্ত্রী এমপিরদের নিকটাত্মীয়দের নির্বাচনে অংশ নিতে বাধা নেই। তবে, তাদের প্রতি অনুরোধ থাকবে তারা যেনো নিজের পছন্দের প্রার্থীকে জেতাতে ক্ষমতার অপব্যবহারের চেষ্টা না করেন। এর ব্যত্যয় হলে, কমিশন তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেবে। সে সক্ষমতাও কমিশনের রয়েছে।
স্থানীয় প্রশাসনকে নিরপেক্ষ আচরণের নির্দেশনা দিয়ে ইসি কমিশনার রাশেদা সুলতানা বলেন, পক্ষপাতমূলক আচরণের প্রমাণ মেলে সরকারি কর্মকর্তাদেরও চাকুরিচ্যুত করা সহ কঠোর আইনগত ব্যবস্থা নেবে কমিশন। যদি কোন কর্মকর্তার কারো প্রতি অনুরাগ প্রদর্শনের মনোবৃত্তি থাকে, তবে তারা যেনো তা পরিহার করেন। এ বিষয়ে নির্বাচন কমিশন জিরো টলারেন্স দেখাবে।
নির্বাচন কমিশনার রাশেদা সুলতানা আরো বলেন, নির্বাচন সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ করতে প্রতিটি ইউনিয়নে ম্যাজিস্ট্রেট দায়িত্ব পালন করবে। অনিয়ম হলে তাৎক্ষণিক ভ্রাম্যমান আদালতে ব্যবস্থা নেয়া হবে। বিশৃংখলার সুযোগ নেই।
বিভিন্ন প্রার্থীদের মোটর সাইকেল মহরা ও সন্ত্রাসীদের দিয়ে ভীতিকর প্রচারণার অভিযোগের প্রেক্ষিতে ইসি কমিশনার বলেন, এখন নির্বাচনের আনুষ্ঠানিক প্রচারণায় কেউ প্রদর্শন ও আচরণ বিধি লঙ্ঘন করলে তাদেরও শাস্তির আওতায় আনবে কমিশন্। বিশৃংখলা বাদ দিয়ে প্রার্থীরা ভোটারদের মন জয় করার চেষ্টা করলেই লাভবান হবেন।
রাজশাহী বিভাগের স্থানীয় সরকারের পরিচালক পারভেজ রায়হানের সভাপতিত্বে সভায় আরো বক্তব্য রাখেন রাজশাহী রেঞ্জের উপ মহাপুলিশ পরিদর্শক আনিসুর রহমান,  ৫৯ বিজিবির কমান্ডিং অফিসার লেফটেন্যান্ট কর্ণেল গোলাম কিবরিয়া, পাবনা জেলা প্রশাসক মু. আসাদুজ্জামান, পুলিশ সুপার আকবর আলী মুনসী ও আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা দেলোয়ার হোসেন।
ট্যাগ :

উপজেলা নির্বাচনে এমপি মন্ত্রীদের প্রভাব খাটানোর প্রমাণ পেলে প্রার্থীতা বাতিল হবে

প্রকাশিত : ০৫:৩১:৫৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২ মে ২০২৪
উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রার্থীরা এমপি মন্ত্রীদের প্রভাব খাটালে প্রার্থীতা বাতিলসহ কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার হুশিয়ারি দিয়েছেন নির্বাচন কমিশনার রাশেদা সুলতানা। বৃহস্পতিবার (২ মে) সকালে পাবনা জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের সাথে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।
রাশেদা সুলতানা বলেন, মন্ত্রী এমপিরদের নিকটাত্মীয়দের নির্বাচনে অংশ নিতে বাধা নেই। তবে, তাদের প্রতি অনুরোধ থাকবে তারা যেনো নিজের পছন্দের প্রার্থীকে জেতাতে ক্ষমতার অপব্যবহারের চেষ্টা না করেন। এর ব্যত্যয় হলে, কমিশন তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেবে। সে সক্ষমতাও কমিশনের রয়েছে।
স্থানীয় প্রশাসনকে নিরপেক্ষ আচরণের নির্দেশনা দিয়ে ইসি কমিশনার রাশেদা সুলতানা বলেন, পক্ষপাতমূলক আচরণের প্রমাণ মেলে সরকারি কর্মকর্তাদেরও চাকুরিচ্যুত করা সহ কঠোর আইনগত ব্যবস্থা নেবে কমিশন। যদি কোন কর্মকর্তার কারো প্রতি অনুরাগ প্রদর্শনের মনোবৃত্তি থাকে, তবে তারা যেনো তা পরিহার করেন। এ বিষয়ে নির্বাচন কমিশন জিরো টলারেন্স দেখাবে।
নির্বাচন কমিশনার রাশেদা সুলতানা আরো বলেন, নির্বাচন সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ করতে প্রতিটি ইউনিয়নে ম্যাজিস্ট্রেট দায়িত্ব পালন করবে। অনিয়ম হলে তাৎক্ষণিক ভ্রাম্যমান আদালতে ব্যবস্থা নেয়া হবে। বিশৃংখলার সুযোগ নেই।
বিভিন্ন প্রার্থীদের মোটর সাইকেল মহরা ও সন্ত্রাসীদের দিয়ে ভীতিকর প্রচারণার অভিযোগের প্রেক্ষিতে ইসি কমিশনার বলেন, এখন নির্বাচনের আনুষ্ঠানিক প্রচারণায় কেউ প্রদর্শন ও আচরণ বিধি লঙ্ঘন করলে তাদেরও শাস্তির আওতায় আনবে কমিশন্। বিশৃংখলা বাদ দিয়ে প্রার্থীরা ভোটারদের মন জয় করার চেষ্টা করলেই লাভবান হবেন।
রাজশাহী বিভাগের স্থানীয় সরকারের পরিচালক পারভেজ রায়হানের সভাপতিত্বে সভায় আরো বক্তব্য রাখেন রাজশাহী রেঞ্জের উপ মহাপুলিশ পরিদর্শক আনিসুর রহমান,  ৫৯ বিজিবির কমান্ডিং অফিসার লেফটেন্যান্ট কর্ণেল গোলাম কিবরিয়া, পাবনা জেলা প্রশাসক মু. আসাদুজ্জামান, পুলিশ সুপার আকবর আলী মুনসী ও আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা দেলোয়ার হোসেন।