০২:২৭ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪

ধানমন্ডি ট্রাফিক জোনের কঠোর তৎপরতায় মিরপুর রোড় এখন রিক্সা মু্ক্ত,জনমতে স্বস্তি

রাজধানীর অন্যতম ব্যস্ততম ও গুরুত্বপূর্ন সড়ক মিরপুর সড়ক।গুরুত্ব বিবেচনায় এটি রাজধানীর অন্যতম প্রধান সড়ক।এই সড়কটি রাজধানীর নিউমার্কেট এলাকার মধ্য দিয়ে যাওয়ায় অসংখ্য খুচরা ও পাইকারী ব্যবসায়ীরা তাদের মালামাল কিনতে রাস্তাটি ব্যবহার করেন।তাছাড়া রাস্তাটি ধানমন্ডি ৩২ নং এর পাশ দিয়ে যাওয়ায় প্রায়শঃ রাষ্ট্রীয় ও বিদেশী গুরুত্বপূর্ন ব্যক্তিবর্গ রাস্তাটি দিয়ে চলাচল করেন।কিন্তু দীর্ঘদিন যাবত এই সড়কে রিক্সা চলাচল করায় যানবাহনের গতিবেগ কমাসহ জানজট লেগেই থাকতো। ডিএমপি কমিশনার জনাব হাবিবুর রহমান বিপিএম(বার),পিপিএম(বার)দায়িত্ব গ্রহনের পর ‘সেবা ও সদাচার’ ডিএমপির অঙ্গীকার’এ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে মিরপুর রোডকে রিক্সামুক্ত করার ও জানজট নিরসনের অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন… তারাই ধারাবাহিকতায় ডিএমপি ট্রাফিক রমনা বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার এডিশনাল ডিআইজি (ডিসি) মো. জয়নুল আবেদীনের সার্বিক দিক নির্দেশনায় ডিএমপি ট্রাফিক রমনা বিভাগের আওতাধীন ধানমন্ডি জোনের সহকারী পুলিশ কমিশনার নব কুমার বিশ্বাস ও তার সহকারী অফিসার ফোর্সগণের কঠোর তৎপরতায় ধানমন্ডি ২৭ নম্বর থেকে নিউমার্কেট মোড় পযর্ন্ত রিক্সা চলাচল নিষিদ্ধ করায় পুরো ধানমন্ডি থেকে নিউমার্কেট এলাকার চিত্র পরিবর্তিত হয়ে গেছে ।যার ফলে উক্ত এলাকার বাসিন্দা ও জনমতে স্বস্তি ফিরে এসেছে। এ বিষয়ে ধানমন্ডির বেশ কয়েকজন স্থায়ী বাসিন্দার সাথে কথা বললে তারা জানান,এটা আমাদের দীর্ঘদিনের আশা প্রত্যাশা ছিলো।রমনা ট্রাফিক বিভাগের একান্ত প্রচেষ্টায় এটা সফল হয়েছে যার ফলে এখন আমরা নির্বিঘ্নে চলাচল করতে পারি । মিরপুর রোডকে রিক্সামুক্ত করায় ট্রাফিক রমনা বিভাগকে আমরা ধন্যবাদ জানাই ।

ট্যাগ :

ধানমন্ডি ট্রাফিক জোনের কঠোর তৎপরতায় মিরপুর রোড় এখন রিক্সা মু্ক্ত,জনমতে স্বস্তি

প্রকাশিত : ০৯:৫৭:৫২ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৫ মে ২০২৪

রাজধানীর অন্যতম ব্যস্ততম ও গুরুত্বপূর্ন সড়ক মিরপুর সড়ক।গুরুত্ব বিবেচনায় এটি রাজধানীর অন্যতম প্রধান সড়ক।এই সড়কটি রাজধানীর নিউমার্কেট এলাকার মধ্য দিয়ে যাওয়ায় অসংখ্য খুচরা ও পাইকারী ব্যবসায়ীরা তাদের মালামাল কিনতে রাস্তাটি ব্যবহার করেন।তাছাড়া রাস্তাটি ধানমন্ডি ৩২ নং এর পাশ দিয়ে যাওয়ায় প্রায়শঃ রাষ্ট্রীয় ও বিদেশী গুরুত্বপূর্ন ব্যক্তিবর্গ রাস্তাটি দিয়ে চলাচল করেন।কিন্তু দীর্ঘদিন যাবত এই সড়কে রিক্সা চলাচল করায় যানবাহনের গতিবেগ কমাসহ জানজট লেগেই থাকতো। ডিএমপি কমিশনার জনাব হাবিবুর রহমান বিপিএম(বার),পিপিএম(বার)দায়িত্ব গ্রহনের পর ‘সেবা ও সদাচার’ ডিএমপির অঙ্গীকার’এ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে মিরপুর রোডকে রিক্সামুক্ত করার ও জানজট নিরসনের অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন… তারাই ধারাবাহিকতায় ডিএমপি ট্রাফিক রমনা বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার এডিশনাল ডিআইজি (ডিসি) মো. জয়নুল আবেদীনের সার্বিক দিক নির্দেশনায় ডিএমপি ট্রাফিক রমনা বিভাগের আওতাধীন ধানমন্ডি জোনের সহকারী পুলিশ কমিশনার নব কুমার বিশ্বাস ও তার সহকারী অফিসার ফোর্সগণের কঠোর তৎপরতায় ধানমন্ডি ২৭ নম্বর থেকে নিউমার্কেট মোড় পযর্ন্ত রিক্সা চলাচল নিষিদ্ধ করায় পুরো ধানমন্ডি থেকে নিউমার্কেট এলাকার চিত্র পরিবর্তিত হয়ে গেছে ।যার ফলে উক্ত এলাকার বাসিন্দা ও জনমতে স্বস্তি ফিরে এসেছে। এ বিষয়ে ধানমন্ডির বেশ কয়েকজন স্থায়ী বাসিন্দার সাথে কথা বললে তারা জানান,এটা আমাদের দীর্ঘদিনের আশা প্রত্যাশা ছিলো।রমনা ট্রাফিক বিভাগের একান্ত প্রচেষ্টায় এটা সফল হয়েছে যার ফলে এখন আমরা নির্বিঘ্নে চলাচল করতে পারি । মিরপুর রোডকে রিক্সামুক্ত করায় ট্রাফিক রমনা বিভাগকে আমরা ধন্যবাদ জানাই ।