০১:১৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪

সর্বজনীন পেনশন সংশোধনের দাবিতে অর্ধদিবস ক্লাস-পরীক্ষা বন্ধ বাকৃবির

ছবি সংগৃহীত

সর্বজনীন পেনশনের ‘প্রত্যয় স্কিম’ বাতিলের দাবিতে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ( বাকৃবি) শিক্ষকদের অর্ধদিবস কর্মবিরতি পালিত।

মঙ্গলবার (৪ জুন) বিশ্ববিদ্যালয়ের বাকৃবির গণতান্ত্রিক শিক্ষক সমিতির কর্মবিরতি কর্মসূচির অংশ হিসেবে সকাল ৮ টা থেকে ১টা পর্যন্ত শিক্ষকরা কর্মবিরতি পালন করেন। এসময় বিভিন্ন একাডেমিক ভবন ঘুরে দেখা যায়, কোন ক্লাস হচ্ছে না এবং একইসাথে কোনো পরীক্ষাও হচ্ছে না। কর্মবিরতির পাশাপাশি দুপুর ১১ টায় শিক্ষকরা বাকৃবির শিক্ষক কমপ্লেক্স এর সামনে থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন অনুষদ ভবন প্রদক্ষিণ করে কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে অবস্থান নেন।

এসময় শিক্ষক সমিতির সভাপতি শিক্ষক অধ্যাপক ড. মো. রফিকুল ইসলাম সরদার বলেন, আমাদের এ আন্দোলন আগামীকালও চলমান থাকবে। আগামীকালও অর্ধদিবস কোনো ক্লাস নিবেন না শিক্ষকেরা। আমাদের একটাই দাবি বৈষম্যমূলক প্রত্যয় স্কিম বাতিল করতে হবে।

এর আগে গত ১৩ মার্চ অর্থ মন্ত্রণালয় কর্তৃক সর্বজনীন পেনশন সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হলে তখন থেকেই প্রতিবাদ জানিয়ে আসছিল বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি ফেডারেশন। তাদের সাথে একাত্মতা প্রকাশ করে আন্দোলন করে যাচ্ছিল বাকৃবির শিক্ষক সমিতি। তবে এর আগে দাবি জানানোর পাশাপাশি তারা মানববন্ধন, স্মারকলিপি প্রদান এবং স্বল্প পরিসরে কর্মবিরতি পালন করে যাচ্ছিলেন বাকৃবির শিক্ষক সমিতি।

এরপরও দাবি আদায় না হওয়ায় আজ তারা অর্ধদিবস কর্মবিরতি পালনের ঘোষণা দিয়েছে যা আগামীকাল ও চলমান থাকবে।

বিজনেস বাংলাদেশ/DS

ট্যাগ :
জনপ্রিয়

সর্বজনীন পেনশন সংশোধনের দাবিতে অর্ধদিবস ক্লাস-পরীক্ষা বন্ধ বাকৃবির

প্রকাশিত : ০১:০৫:২০ অপরাহ্ন, বুধবার, ৫ জুন ২০২৪

সর্বজনীন পেনশনের ‘প্রত্যয় স্কিম’ বাতিলের দাবিতে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ( বাকৃবি) শিক্ষকদের অর্ধদিবস কর্মবিরতি পালিত।

মঙ্গলবার (৪ জুন) বিশ্ববিদ্যালয়ের বাকৃবির গণতান্ত্রিক শিক্ষক সমিতির কর্মবিরতি কর্মসূচির অংশ হিসেবে সকাল ৮ টা থেকে ১টা পর্যন্ত শিক্ষকরা কর্মবিরতি পালন করেন। এসময় বিভিন্ন একাডেমিক ভবন ঘুরে দেখা যায়, কোন ক্লাস হচ্ছে না এবং একইসাথে কোনো পরীক্ষাও হচ্ছে না। কর্মবিরতির পাশাপাশি দুপুর ১১ টায় শিক্ষকরা বাকৃবির শিক্ষক কমপ্লেক্স এর সামনে থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন অনুষদ ভবন প্রদক্ষিণ করে কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে অবস্থান নেন।

এসময় শিক্ষক সমিতির সভাপতি শিক্ষক অধ্যাপক ড. মো. রফিকুল ইসলাম সরদার বলেন, আমাদের এ আন্দোলন আগামীকালও চলমান থাকবে। আগামীকালও অর্ধদিবস কোনো ক্লাস নিবেন না শিক্ষকেরা। আমাদের একটাই দাবি বৈষম্যমূলক প্রত্যয় স্কিম বাতিল করতে হবে।

এর আগে গত ১৩ মার্চ অর্থ মন্ত্রণালয় কর্তৃক সর্বজনীন পেনশন সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হলে তখন থেকেই প্রতিবাদ জানিয়ে আসছিল বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি ফেডারেশন। তাদের সাথে একাত্মতা প্রকাশ করে আন্দোলন করে যাচ্ছিল বাকৃবির শিক্ষক সমিতি। তবে এর আগে দাবি জানানোর পাশাপাশি তারা মানববন্ধন, স্মারকলিপি প্রদান এবং স্বল্প পরিসরে কর্মবিরতি পালন করে যাচ্ছিলেন বাকৃবির শিক্ষক সমিতি।

এরপরও দাবি আদায় না হওয়ায় আজ তারা অর্ধদিবস কর্মবিরতি পালনের ঘোষণা দিয়েছে যা আগামীকাল ও চলমান থাকবে।

বিজনেস বাংলাদেশ/DS