০৭:৪১ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪

সাতকানিয়ায় কিশোর গ্যাং বিরোধী অভিযানে ধারালো চাকু’সহ গ্রেফতার-৩

চট্টগ্রামের সাতকানিয়া থানার কিশোর গ্যাং বিরোধী অভিযানে ছিনতাই করার প্রস্তুতিকালে ধারালো চাকুসহ ৩ জনকে হাতেনাতে গ্রেফতার করেছে সাতকানিয়া থানা পুলিশ।

শুক্রবার(২১ জুন) রাত ৮টার দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সাতকানিয়া থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই-মোস্তাক আহামদ এসআই -মামুন ভুইয়া, এএসআই-জিয়াউল হক জিয়া সঙ্গীয় ফোর্সসহ তাদেরকে গ্রেফতার করেন।

গ্রেফতারকৃত আসামীরা হলেন, কেওচিয়া ৮নং ওয়ার্ডের মোঃ ইসলামের ছেলে নাজমুল ইসলাম ইমন(২১)ঠাকুরদীঘি পদুয়া ইউপি , ১নং ওয়ার্ডের, মৃত মোহাম্মদ আলীর ছেলে মোঃ সাঈদ হোসেন রানা(২০), এবং পূর্ব মাদারবাড়ী ৯নং ওয়ার্ডের মোহাম্মদ আমিন এর ছেলে আবীর মাহমুদ শাওন(২০)।

সাতকানিয়া থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই মোস্তাক আহামদ জানান,সাতকানিয়া থানাধীন ৮নং ঢেমশা ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডস্থ কলেজ রোডের সাতকানিয়া রাস্তার মাথা সংলগ্ন মাইনু ফুডস এর সামনে কতিপয় ছিনতাইকারী, ছুরি- চাকু, খুর’সহ ছিনতাই করার জন্য প্রস্তুতি নেন, তাৎক্ষনিক থানার চৌকস টীম উক্ত স্থানে পৌঁছামাত্র পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে আসামীরা দৌঁড়ে পালানোর চেষ্টাকালে ৩ আসামীকে আটক করেন এবং তাদের সহযোগী একজন আসামী দৌঁড়ে পালিয়ে যায়। এরপর ঘটনাস্থলেই গ্রেফতারকৃত আসামীদের দেহ তল্লাশী করে নাজমুল ইসলাম ইমনের কাছ থেকে ১টি স্টিলের ভাঁজওয়ালা চাকু, যাহা বন্ধ অবস্থায় লম্বা সাড়ে পাঁচ ইঞ্চি এবং খোলা অবস্থায় লম্বা দশ ইঞ্চি উদ্ধার পূর্বক জব্দ করা হয়।

গ্রেফতারকৃত আসামীদেরকে জিজ্ঞাসাবাদে তাদের এবং তাদের সহযোগী পলাতক আসামীর উপরোক্ত নাম-ঠিকানা প্রকাশ করে বলে যে, তারা এলাকায় ছিনতাই’সহ নানাবিধ অপকর্মের সাথে জড়িত। আগামীদেরকে জিজ্ঞাসাবাদে আরো জানায়, তারা অত্র এলাকায় পথচারীদেরকে চাকু নিয়া বিভিন্ন ভয়ভীতি দেখাইয়া পথচারীদের নিকট হইতে নগদ টাকা-পয়সা, মোবাইল হাতিয়ে নেওয়ার উদ্দেশ্যে উক্ত স্থানে উপস্থিত হয়েছিল মর্মে সাক্ষীদের সম্মুখে স্বীকার করে।

স্থানীয়রা জানায়,আসামীরা সুযোগ বুঝে চলাচলরত পথচারীকে আক্রমণ করে, সাথে থাকা চাকু দিয়া ভয় দেখাইয়া পথচারীর সবকিছু লুট করে।নিরীহ মানুষকে তুলে নিয়ে তাদের কাজ থেকে টাকা, মোবাইল ছিনিয়ে নেয়, এছাড়াও মারামারি ছিনতাই’সহ তাদের নানা অপকর্মে অতীষ্ঠ এলাকার মানুষ।

বিজনেস বাংলাদেশ/DS

ট্যাগ :

বাংলাদেশ সরকারের উচিত শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদের অধিকার নিশ্চিত করা: জাতিসংঘ

সাতকানিয়ায় কিশোর গ্যাং বিরোধী অভিযানে ধারালো চাকু’সহ গ্রেফতার-৩

প্রকাশিত : ০৪:৪৫:৩৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ২২ জুন ২০২৪

চট্টগ্রামের সাতকানিয়া থানার কিশোর গ্যাং বিরোধী অভিযানে ছিনতাই করার প্রস্তুতিকালে ধারালো চাকুসহ ৩ জনকে হাতেনাতে গ্রেফতার করেছে সাতকানিয়া থানা পুলিশ।

শুক্রবার(২১ জুন) রাত ৮টার দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সাতকানিয়া থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই-মোস্তাক আহামদ এসআই -মামুন ভুইয়া, এএসআই-জিয়াউল হক জিয়া সঙ্গীয় ফোর্সসহ তাদেরকে গ্রেফতার করেন।

গ্রেফতারকৃত আসামীরা হলেন, কেওচিয়া ৮নং ওয়ার্ডের মোঃ ইসলামের ছেলে নাজমুল ইসলাম ইমন(২১)ঠাকুরদীঘি পদুয়া ইউপি , ১নং ওয়ার্ডের, মৃত মোহাম্মদ আলীর ছেলে মোঃ সাঈদ হোসেন রানা(২০), এবং পূর্ব মাদারবাড়ী ৯নং ওয়ার্ডের মোহাম্মদ আমিন এর ছেলে আবীর মাহমুদ শাওন(২০)।

সাতকানিয়া থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই মোস্তাক আহামদ জানান,সাতকানিয়া থানাধীন ৮নং ঢেমশা ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডস্থ কলেজ রোডের সাতকানিয়া রাস্তার মাথা সংলগ্ন মাইনু ফুডস এর সামনে কতিপয় ছিনতাইকারী, ছুরি- চাকু, খুর’সহ ছিনতাই করার জন্য প্রস্তুতি নেন, তাৎক্ষনিক থানার চৌকস টীম উক্ত স্থানে পৌঁছামাত্র পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে আসামীরা দৌঁড়ে পালানোর চেষ্টাকালে ৩ আসামীকে আটক করেন এবং তাদের সহযোগী একজন আসামী দৌঁড়ে পালিয়ে যায়। এরপর ঘটনাস্থলেই গ্রেফতারকৃত আসামীদের দেহ তল্লাশী করে নাজমুল ইসলাম ইমনের কাছ থেকে ১টি স্টিলের ভাঁজওয়ালা চাকু, যাহা বন্ধ অবস্থায় লম্বা সাড়ে পাঁচ ইঞ্চি এবং খোলা অবস্থায় লম্বা দশ ইঞ্চি উদ্ধার পূর্বক জব্দ করা হয়।

গ্রেফতারকৃত আসামীদেরকে জিজ্ঞাসাবাদে তাদের এবং তাদের সহযোগী পলাতক আসামীর উপরোক্ত নাম-ঠিকানা প্রকাশ করে বলে যে, তারা এলাকায় ছিনতাই’সহ নানাবিধ অপকর্মের সাথে জড়িত। আগামীদেরকে জিজ্ঞাসাবাদে আরো জানায়, তারা অত্র এলাকায় পথচারীদেরকে চাকু নিয়া বিভিন্ন ভয়ভীতি দেখাইয়া পথচারীদের নিকট হইতে নগদ টাকা-পয়সা, মোবাইল হাতিয়ে নেওয়ার উদ্দেশ্যে উক্ত স্থানে উপস্থিত হয়েছিল মর্মে সাক্ষীদের সম্মুখে স্বীকার করে।

স্থানীয়রা জানায়,আসামীরা সুযোগ বুঝে চলাচলরত পথচারীকে আক্রমণ করে, সাথে থাকা চাকু দিয়া ভয় দেখাইয়া পথচারীর সবকিছু লুট করে।নিরীহ মানুষকে তুলে নিয়ে তাদের কাজ থেকে টাকা, মোবাইল ছিনিয়ে নেয়, এছাড়াও মারামারি ছিনতাই’সহ তাদের নানা অপকর্মে অতীষ্ঠ এলাকার মানুষ।

বিজনেস বাংলাদেশ/DS