০৭:৩০ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪

নরসিংদীর রায়পুরায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দুই গ্রুপের সংঘর্ষ ও ককটেল বিস্ফোরন, গুলিবিদ্ধ সহ আহত অন্তত ৪

নরসিংদীর রায়পুরায় আধিপত্য বিস্তার, পূর্ব বিরোধ ও ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী সুমন হত্যার জের ধরে দুই পক্ষের সমর্থকদের মধ্যে গুলাগুলি ও ককটেল বিস্ফোরনের ঘটনা ঘটেছে।
শনিবার (২২ জুন) বেলা সাড়ে ৪ টায় উপজেলার মেথিকান্দা এলাকায় লেয়াকত আলী ওরফে লইক্কা মিস্ত্রি ও হরযত আলী ওরফে হরজু সমর্থকদের মধ্যে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় উভয় পক্ষের অন্তত ৪ জন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। তাৎক্ষনিকভাবে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় বকুল মিয়া (৪৮)  নামে একজন স্থানীয় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নিচ্ছেন। বাকি আহতদের নাম জানা যায়নি। লেয়াকত আলী ওরফে লইক্কা মিস্ত্রির বাড়ির লোকজন নিহত ভাইস চেয়ারম্যান মো. সুমন মিয়া সমর্থীত।
 গত ২২ জুন নির্বাচনী প্রচারনায় গিয়ে সুমন মিয়া প্রতিপক্ষ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী আবিদ হাসান রুবেল ও তার  সমর্থকদের হামলায় নিহত হন। এরপরই হযরত আলী ওরফে হরজু সমর্থকদের সাথে লেয়াকত আলী মিস্ত্রি বাড়ির সমর্থকদের মধ্যে পূর্ব বিরোধটি বেড়ে যায়। এরই জেরে আজ বেলা সাড়ে ৪ টা থেকে দফায় দফায়  ও ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া শুরু হয়। এক পর্যায়ে নিহত সুমনের পক্ষ লেয়াকত আলী সমর্থকদের উপর মুহুর্মুহু গুলি ও ককটেল বিস্ফোরন ঘটায় রুবেল ও তার  সমর্থকরা।
সহকারী পুলিশ সুপার (রায়পুরা সার্কেল) আফসান আল আলম সাংবাদিকদের বলেন, ধারনা করা হচ্ছে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দুটি পক্ষের সমর্থকদের সংঘর্ষ হয়েছে। পরবর্তী সহিংসতা এড়াতে এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।
ট্যাগ :

বড় দুঃসংবাদ পেলেন লিওনেল মেসি

নরসিংদীর রায়পুরায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দুই গ্রুপের সংঘর্ষ ও ককটেল বিস্ফোরন, গুলিবিদ্ধ সহ আহত অন্তত ৪

প্রকাশিত : ০৯:১১:৪১ অপরাহ্ন, শনিবার, ২২ জুন ২০২৪
নরসিংদীর রায়পুরায় আধিপত্য বিস্তার, পূর্ব বিরোধ ও ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী সুমন হত্যার জের ধরে দুই পক্ষের সমর্থকদের মধ্যে গুলাগুলি ও ককটেল বিস্ফোরনের ঘটনা ঘটেছে।
শনিবার (২২ জুন) বেলা সাড়ে ৪ টায় উপজেলার মেথিকান্দা এলাকায় লেয়াকত আলী ওরফে লইক্কা মিস্ত্রি ও হরযত আলী ওরফে হরজু সমর্থকদের মধ্যে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় উভয় পক্ষের অন্তত ৪ জন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। তাৎক্ষনিকভাবে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় বকুল মিয়া (৪৮)  নামে একজন স্থানীয় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নিচ্ছেন। বাকি আহতদের নাম জানা যায়নি। লেয়াকত আলী ওরফে লইক্কা মিস্ত্রির বাড়ির লোকজন নিহত ভাইস চেয়ারম্যান মো. সুমন মিয়া সমর্থীত।
 গত ২২ জুন নির্বাচনী প্রচারনায় গিয়ে সুমন মিয়া প্রতিপক্ষ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী আবিদ হাসান রুবেল ও তার  সমর্থকদের হামলায় নিহত হন। এরপরই হযরত আলী ওরফে হরজু সমর্থকদের সাথে লেয়াকত আলী মিস্ত্রি বাড়ির সমর্থকদের মধ্যে পূর্ব বিরোধটি বেড়ে যায়। এরই জেরে আজ বেলা সাড়ে ৪ টা থেকে দফায় দফায়  ও ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া শুরু হয়। এক পর্যায়ে নিহত সুমনের পক্ষ লেয়াকত আলী সমর্থকদের উপর মুহুর্মুহু গুলি ও ককটেল বিস্ফোরন ঘটায় রুবেল ও তার  সমর্থকরা।
সহকারী পুলিশ সুপার (রায়পুরা সার্কেল) আফসান আল আলম সাংবাদিকদের বলেন, ধারনা করা হচ্ছে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দুটি পক্ষের সমর্থকদের সংঘর্ষ হয়েছে। পরবর্তী সহিংসতা এড়াতে এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।