ঢাকা রাত ৪:৫২, মঙ্গলবার, ২৯শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১৪ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

এমপি রানার জামিনের বিষয়ে রায় ১৯ নভেম্বর

মুক্তিযোদ্ধা ফারুক আহমেদ হত্যা মামলায় টাঙ্গাইল-৩ আসনের এমপি আমানুর রহমান খান রানাকে কেন জামিন দেয়া হবে সে বিষয়ে জারি করা রুলের শুনানি শেষ। এ বিষয়ে রায়ের জন্য আগামী রোববার ১৯ নভেম্বর দিন ধার্য করেন হাইকোর্ট।

বৃহস্পতিবার (১৬ নভেম্বর) বিচারপতি বোরহান উদ্দিন ও বিচারপতি মো. আশরাফুল কামালের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ দিন নির্ধারন করেন।

আজ আদালতে রানার জামিন দেয়ার পক্ষে পক্ষে শুনানি করেন সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি ব্যারিস্টার রোকন উদ্দিন মাহমুদ। আর জামিনের বিরোধীতা করে শুনানী করেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। সঙ্গে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল নজিবুর রহমান।

জানতে চাইলে নজিবুর রহমান সাংবাদিকদের বলেন, এর আগে আপিল বিভাগ এমপি রানাকে হাইকোর্টের দেওয়া জামিন স্থগিত করেন। তবে এ বিষয়ে জারি করা হাইকোর্টের রুল নিষ্পত্তি করতে নির্দেশ দিয়েছিলেন। সেই রুলের শুনানি শেষ হয়েছে শুনানী শেষ হলো আজ।

তিনি বলেন, আমরা রাষ্ট্রপক্ষে শুনানী করেছি। আমানুর রহমান খান রানাকে জামিন না দিতে আদালতের কাছে প্রার্থনা জানিয়েছি। আদালত আমাদের যুক্তিগুলো শুনেছেন। আমরা আশা করছি এমপি রানার জামিন আবেদনটি নাকচ হবে।

মামলার নথি থেকে জানা গেছে, ২০১৩ সালের জানুয়ারি মাসে টাঙ্গাইল জেলা আওয়ামী লীগের নেতা ফারুক আহমেদের গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। ফারুকের কলেজপাড়া এলাকার বাসার কাছ থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়। পরে এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী নাহার আহমেদ বাদী হয়ে টাঙ্গাইল সদর থানায় মামলা করেন। ওই মামলায় এমপি আমানুর রহমান খান রানা বর্তমানে কারাগারে আছেন।

এ বিভাগের আরও সংবাদ