ঢাকা রাত ১:২৭, বুধবার, ২৮শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৩ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

সম্ভাবনাময় ফুটবলারের ক্যারিয়ারের অপমৃত্যু!

বাংলাদেশ আগামী বছর এশিয়ান কাপ বাছাইয়ের মূল পর্ব খেলবে। এশিয়ান কাপ বাছাই তো দূরের কথা বিশ্বকাপ ও এশিয়ান কাপের প্রাথমিক বাছাইয়ে বাংলাদেশের খেলা দুষ্কর ছিল। ফরোয়ার্ড রবিউল ইসলামের গোলে লাওসকে হারিয়ে বাংলাদেশ বিশ্বকাপ ও এশিয়ান কাপ বাছাইয়ে খেলার সুযোগ পায়। সেই রবিউল এখন নিজেকে হারিয়ে খুঁজছেন।

বসুন্ধরা কিংস থেকে এই মৌসুমের দ্বিতীয় লেগে ধারে মোহামেডানে এসেছিলেন রবিউল। মোহামেডান রবিউলের কাছ থেকে সে রকম পারফরম্যান্স পায়নি। শৃঙ্খলা ভঙ্গের জন্য দুই বার শোকজ দিয়েছিল ক্লাব। এই যাত্রায় বহিষ্কারই করেছে সাদাকালো শিবির। ক্লাবটির অন্যতম পরিচালক ও ফুটবল কমিটির সম্পাদক আবু হাসান চৌধুরি প্রিন্স বলেন, ‘তাকে দুই বার সতর্ক করা হয়েছে। এর পরও সে পরিবর্তন হয়নি। তাই বাধ্য হয়ে তাকে বহিষ্কারই করতে হলো।’

আরামবাগ ২০১৮ সালে স্বাধীনতা কাপ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পেছনে অন্যতম অবদান ছিল রবিউলের। সেই রবিউল ২০১৯ সালে প্রায় অর্ধ কোটি টাকায় বসুন্ধরা কিংসে নাম লেখান। কিংসে এতো সুযোগ সুবিধার পরেও নিজেকে সেভাবে মেলে ধরতে পারেননি। অনুশীলনে অনিয়মিত থাকার পাশাপাশি শৃঙ্খলা ভঙ্গও করেছিলেন কয়েকবার।

কিংস ক্যারিয়ারের বিষয় চিন্তা করে রবিউলকে মোহামেডানের কাছে ছেড়ে দেয়। এখানে এসেও বদলাননি টাঙ্গাইলের এই ফুটবলার। এখানেও শৃঙ্খলা ভঙ্গের ধারাবাহিকতা বজায় রাখেন। এমনিতে দেশের ফুটবলে প্রতিভার সঙ্কট। এভাবে নিজেদের নষ্ট করলে সেটা সামগ্রিক ফুটবলেরই বড় ক্ষতি। নিজের অধপতনে যাওয়ার পর থেকে সাংবাদিকদের ফোনও ধরেন না।

এ বিভাগের আরও সংবাদ