ঢাকা সকাল ১১:১১, শুক্রবার, ২৭শে জানুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, ১৩ই মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ভূমিধসে ইতালিতে নিহত ৭, জরুরি অবস্থা ঘোষণা

প্রবল বৃষ্টির কারণে ইতালিতে ভয়াবহ ভূমিধসে ৭ জন নিহত হয়েছেন। নিহতদের মধ্যে শিশু ও নবজাতকও রয়েছে। এছাড়া এই ঘটনায় আরও ৫ জন নিখোঁজ রয়েছেন। এই পরিস্থিতিতে ইতালিজুড়ে রাষ্ট্রীয় জরুরি অবস্থা ঘোষণা করা হয়েছে। সোমবার, ২৮ নভেম্বর এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে বার্তাসংস্থা রয়টার্স এবং সংবাদমাধ্যম দ্য লোকাল।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, প্রবল বৃষ্টির কারণে সৃষ্ট ভূমিধসে দক্ষিণ ইতালির ইসচিয়া দ্বীপে কমপক্ষে সাতজন নিহত হয়েছেন বলে রোববার দেশটির একজন কর্মকর্তা জানিয়েছেন। নিহতদের মধ্যে একজন নবজাতক এবং দুই শিশুও রয়েছে।

ক্লাউদিও পালোম্বা নামের ওই কর্মকর্তা এক সংবাদ সম্মেলনে জানিয়েছেন, ভূমিধসের ঘটনায় পাঁচজন এখনও নিখোঁজ রয়েছেন।শনিবার ভোরের দিকে ইউরোপের এই দেশটির নেপলসের কাছে উপকূলীয় এলাকায় ভারী বৃষ্টিপাতের কারণে কাদা এবং ধ্বংসাবশেষের স্রোতে গাছপালা, ভবন ও গাড়ি ভেসে যায়। এরপর থেকেই অন্তত ১৩ জন নিখোঁজ ছিলেন। রোববার সেই নিখোঁজদের মধ্যে ৭ জনের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়।

অনলাইনে ছড়িয়ে পড়া বেশ কিছু ছবি এবং ভিডিওতে দেখা গেছে, ভূমিধসের ফলে অনেক ভবন ভেঙে গেছে এবং বেশ কয়েকটি গাড়ি ভেসে সমুদ্রের দিকে চলে যাচ্ছে। একজন বাসিন্দা এই ভূমিধসকে ‘পানি ও কাদার জলপ্রপাত’ হিসাবে আখ্যায়িত করেছেন।এদিকে পৃথক এক প্রতিবেদনে সংবাদমাধ্যম দ্য লোকাল জানিয়েছে, ইতালির দক্ষিণাঞ্চলীয় দ্বীপ ইসচিয়ায় প্রাণঘাতী ভূমিধসের পর রোববার ইতালির সরকার জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেছে।

ইতালির বেসামরিক সুরক্ষা মন্ত্রী নেলো মুসুমেসি বলেছেন, মন্ত্রিসভার জরুরি বৈঠক শেষে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করা হয় এবং ২০ লাখ ইউরোর ত্রাণ তহবিলের প্রথম কিস্তি ছাড়ের ঘোষণা দেওয়া হয়। এছাড়া ২০০ জনেরও বেশি উদ্ধারকারী এখনও নিখোঁজ থাকা ব্যক্তিদের সন্ধানে অভিযান চালাচ্ছে এবং শত শত স্বেচ্ছাসেবকসহ অন্যরা তাদের হাঁটু পর্যন্ত কাদায় নেমে শহরের রাস্তা পরিষ্কার করতে ব্যস্ত রয়েছেন।

স্থানীয় কর্তৃপক্ষ উদ্ধার অভিযানে যেকোনো ধরনের বাধা-বিঘ্ন এড়াতে ইসচিয়ার বাসিন্দাদের ঘরের ভেতরে অবস্থানের আহ্বান জানিয়েছে বলে উল্লেখ করেছে দ্য লোকাল।

বিজনেস বাংলাদেশ/ হাবিব

এ বিভাগের আরও সংবাদ