ঢাকা রাত ১০:৪৮, শুক্রবার, ৩রা ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, ২০শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ব্রাজিলের ‘সবচেয়ে বয়স্ক’ আলভেজের কপাল খুলতে পারে কাল

কাতার বিশ্বকাপে ব্রাজিল দলে দানি আলভেজের নাম থাকাটাই ছিল বড় এক চমক। তিতে যে তাঁকে বিশ্বকাপ স্কোয়াডে রাখতে পারেন, এমনটা ভাবেননি অনেকেই। ভাববেনই–বা কীভাবে! ব্রাজিলের অন্যতম অভিজ্ঞতম ফুটবলার হলেও দীর্ঘদিন যে দলের বাইরে ছিলেন। কিন্তু গত সেপ্টেম্বরের পর কোনো প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচ না খেলেই ব্রাজিলের বিশ্বকাপ দলে ডাক পেয়ে যান এই রাইটব্যাক।

৩৯ বছর বয়সী আলভেজকে নিয়েই কাতার বিশ্বকাপে এসেছেন ব্রাজিল কোচ তিতে। এমনিতেই বিশ্বকাপ খেলতে মরিয়া ছিলেন আলভেজ। এতটাই যে এক সময়ের বার্সেলোনা তারকা ‘বার্সা–বি’ দলেও যোগ দিয়েছিলেন শুধু বিশ্বকাপের প্রস্তুতি নেওয়ার জন্য। ফিটনেসের অনেক উন্নতি করেছেন। সেটিই তিতে ও ব্রাজিল ম্যানেজমেন্টকে সন্তুষ্ট করেছে। বিশ্বকাপে ‘জি’ গ্রুপ থেকে ব্রাজিলের দুটি খেলা এরই মধ্যে হয়ে গেছে।

সার্বিয়াকে ২–০ আর সুইজারল্যান্ডকে ১–০ গোলে হারিয়ে ব্রাজিল এরই মধ্যে উঠে গেছে শেষ ষোলোতে। শুক্রবার রাতে (বাংলাদেশ সময়) গ্রুপের শেষ ম্যাচে ব্রাজিলের প্রতিপক্ষ ক্যামেরুন। আগেই শেষ ষোলো নিশ্চিত হওয়ায় এই ম্যাচে একাদশের নিয়মিত খেলোয়াড়দের বসিয়ে রাখতে পারেন তিতে। আর তাতে কপাল খুলে যেতে পারে আলভেজের।
বিশ্বকাপে ব্রাজিলের সবচেয়ে বয়ষ্ক খেলোয়াড় হিসেবে মাঠে নামার রেকর্ডটি ক্যামেরুনের বিপক্ষেই গড়তে পারেন আলভেজ। ১৯৬৬ বিশ্বকাপে ব্রাজিলের হয়ে ৩৭ বছর বয়সে খেলা দালমা স্যান্টোস এখনো দখলে রেখেছেন এই রেকর্ড। কী কাকতাল! ২০১৩ সালে প্রয়াত ও দুটি বিশ্বকাপজয়ী দালমাও আলভেজের মতোই রাইটব্যাক পজিশনে খেলতেন। ব্রাজিলিয়ান ফুটবলে ‘এনসাইক্লোপিডিয়া’ নামে খ্যাত কিংবদন্তি লেফটব্যাক নিল্টন স্যান্টোসের ভাই দালমা স্যান্টোস।
পেনাল্টি নিয়ে মেসির সঙ্গে বাজিতে হারলেও টাকা দেবেন না পোলিশ গোলকিপার
মেসির পেনাল্টি রুখে দেন পোল্যান্ডের গোলকিপার সেজনি
কাতার বিশ্বকাপে দুই ম্যাচ খেলেই চোট নিয়ে সমস্যায় পড়েছে ব্রাজিল। সার্বিয়ার বিপক্ষে প্রথম ম্যাচেই চোট পান নেইমার ও দানিলো। ক্যামেরুনের বিপক্ষেও নেইমারকে মাঠে না দেখার সম্ভাবনাই বেশি। একে তো ম্যাচটি ব্রাজিলের জন্য স্রেফ নিয়মরক্ষার লড়াই, তার ওপর নকআউট পর্বে নেইমারকে পুরো সুস্থই চাইবেন তিতে। সে জন্য ক্যামেরুনের বিপক্ষে ম্যাচের আগে নেইমার সেরে উঠলেও তাঁকে বিশ্রাম দেওয়া হতে পারে। সুইসদের বিপক্ষে দানিলোর জায়গায় খেলেছিলেন এদের মিলিতাও।
বিশ্বকাপের গুরুত্বপূর্ণ সময়ে মূল খেলোয়াড়দের চোটমুক্ত রাখতে ক্যামেরুনের বিপক্ষে তিতে তাই ব্রাজিল দলে বেশ কিছু পরিবর্তন আনতে পারেন। তিউনিসিয়ার বিপক্ষে কাল রাতে ফ্রান্স যেমনটা করেছে, ঠিক তেমনিভাবে দ্বিতীয় সারির দলও নামাতে পারেন ব্রাজিল কোচ।

বার্সায় দ্বিতীয় মেয়াদ শেষ করে এ বছরের জুলাইয়ে মেক্সিকান লিগের ক্লাব ইউএনএমে যোগ দেন আলভেজ। গত ২৩ সেপ্টেম্বরের পর থেকে কোনো ম্যাচ খেলেননি বার্সার হয়ে তিনবার চ্যাম্পিয়নস লিগ জেতা এই ফুটবলার। ইউএনএমের হয়ে মৌসুম শেষে মেক্সিকো ছাড়েন আলভেজ।
সেখান থেকে চলে আসেন বার্সেলোনায়। যোগ দেন কাতালান ক্লাবটির ‘বি’ দলে। কাতার বিশ্বকাপ সামনে রেখে এই বি দলের সঙ্গে অনুশীলন করে নিজেকে ফিট রাখেন। বোঝাই যাচ্ছে, এই বয়সেও বিশ্বকাপ খেলতে মরিয়া ছিলেন আলভেজ। কঠোর পরিশ্রম করে তার পুরস্কারও পেলেন।

বিজনেস বাংলাদেশ/ bh

এ বিভাগের আরও সংবাদ