০৭:৪৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪

পাকিস্তানের বিপক্ষে সন্ধ্যায় মাঠে নামছে বাঘিনীরা

দক্ষিণ আফ্রিকায় মূল লড়াইয়ে নামার আগে দুটো করে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে টুর্নামেন্টের ১০ দল। তারই একটিতে আজ সন্ধ্যায় সাড়ে ৬টায় পাকিস্তানের বিপক্ষে মাঠে নামবে বাংলাদেশ নারী দল। কেপটাউনে হবে দুই দলের লড়াই। বিশ্বকাপের পর্দা উঠবে আগামী ১০ ফেব্রুয়ারি। দুই গ্রুপে ভাগ হয়ে প্রথম রাউন্ডে লড়বে ১০ দল। ‘এ’ গ্রুপে বাংলাদেশের চার প্রতিপক্ষ— স্বাগতিক দক্ষিণ আফ্রিকা, নিউজিল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া এবং শ্রীলঙ্কা। ‘বি’ গ্রুপের পাঁচ দল হলো— ভারত, ইংল্যান্ড, আয়ারল্যান্ড, পাকিস্তান এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

সোমবার, ৬ ফেব্রুয়ারি কেপটাউনে পাকিস্তানের মেয়েদের বিপক্ষে মাঠে নামছে টাইগ্রেসরা। ম্যাচটি বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় শুরু হবে। আজ প্রস্তুতি ম্যাচে আরও মুখোমুখি হবে অস্ট্রেলিয়া-ভারত, দক্ষিণ আফ্রিকা-ইংল্যান্ড ও নিউজিল্যান্ড-ওয়েস্ট ইন্ডিজ। বাংলাদেশ তাদের দ্বিতীয় প্রস্তুতি ম্যাচে ৮ ফেব্রুয়ারি ভারতের বিপক্ষে মাঠে নামবে।

এবার নারী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে বাংলাদেশের গ্রুপে আছে রেকর্ড পাঁচবারের চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া, স্বাগতিক দক্ষিণ আফ্রিকা, নিউজিল্যান্ড ও শ্রীলঙ্কা। আগামী ১২ ফেব্রুয়ারি শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে বিশ্বকাপ শুরু হবে বাংলার বাঘিনীদের।

নারী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ২০১৪ সালে প্রথম জয় পেয়েছিল বাংলাদেশের মেয়েরা। সেবার শ্রীলঙ্কাকে ৩ রানে হারিয়েছিল বাংলাদেশ। এরপর ২০১৬, ২০১৮ ও ২০২২ বিশ্বকাপে অংশ নিয়েও কোনো জয়ের দেখা পায়নি টাইগ্রেসরা। টানা হারের এই বৃত্তটাই এবার ভাঙতে চান বাংলাদেশি অধিনায়ক নিগার সুলতানা।

এর আগে গত ৪ ফেব্রুয়ারি টুর্নামেন্টের অফিশিয়াল ফটোশুটে গিয়ে ১০ দলের অধিনায়করা নিজেদের দলের লক্ষ্য নিয়ে কথা বলেছেন। সেখানে টাইগ্রেস অধিনায়ক নিগার সুলতানা বিশ্বকাপে জায়গা পাওয়াটা দারুণ এক ব্যাপার বলে জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, ‘আমরা অনেকে বহুদিন ধরেই খেলছি, তবে এটা আমাদের কেবল পঞ্চম বিশ্বকাপ। ২০১৪ সালের পর এই বিশ্বকাপে আমরা জিততে পারিনি। এবার তাই নিজেদের সেরাটা দিয়ে খেলব। ২০১৮ সালে আমরা এশিয়া কাপ জয়ের পর বাংলাদেশে নারীদের ক্রিকেটে বড় রকমের পরিবর্তন এসেছে। কয়েক দিন আগে নিউজিল্যান্ড সফরে আমরা অনেক কিছু শিখেছি। বিশ্বকাপে নিজেদের সামর্থ্য দেখানোর অপেক্ষায় আমরা।’

বাংলাদেশের বিশ্বকাপ স্কোয়াড: নিগার সুলতানা জ্যোতি (অধিনায়ক), সালমা খাতুন, জাহানারা আলম, শামিমা সুলতানা, রুমানা আহমেদ, লতা মন্ডল, স্বর্ণা আক্তার, নাহিদা আক্তার, মুরশিদা খাতুন, ঋতু মনি, দিশা বিশ্বাস, মারুফা আক্তার, দিলারা আক্তার, ফাহিমা খাতুন ও সোবহানা মোশতারি।

স্টান্ডবাই: রাবেয়া, সানজিদা আক্তার, ফারজানা হক, শারমিন আক্তার।

বিজনেস বাংলাদেশ/ হাবিব

ঘুর্নিঝড়ে ক্ষয়ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে ও সুন্দরবন সুরক্ষায় অতিরিক্ত বাজেট বরাদ্দের দাবি সাতক্ষীরা জেলা সমিতি ঢাকার

পাকিস্তানের বিপক্ষে সন্ধ্যায় মাঠে নামছে বাঘিনীরা

প্রকাশিত : ০২:১০:১০ অপরাহ্ন, সোমবার, ৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

দক্ষিণ আফ্রিকায় মূল লড়াইয়ে নামার আগে দুটো করে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে টুর্নামেন্টের ১০ দল। তারই একটিতে আজ সন্ধ্যায় সাড়ে ৬টায় পাকিস্তানের বিপক্ষে মাঠে নামবে বাংলাদেশ নারী দল। কেপটাউনে হবে দুই দলের লড়াই। বিশ্বকাপের পর্দা উঠবে আগামী ১০ ফেব্রুয়ারি। দুই গ্রুপে ভাগ হয়ে প্রথম রাউন্ডে লড়বে ১০ দল। ‘এ’ গ্রুপে বাংলাদেশের চার প্রতিপক্ষ— স্বাগতিক দক্ষিণ আফ্রিকা, নিউজিল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া এবং শ্রীলঙ্কা। ‘বি’ গ্রুপের পাঁচ দল হলো— ভারত, ইংল্যান্ড, আয়ারল্যান্ড, পাকিস্তান এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

সোমবার, ৬ ফেব্রুয়ারি কেপটাউনে পাকিস্তানের মেয়েদের বিপক্ষে মাঠে নামছে টাইগ্রেসরা। ম্যাচটি বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় শুরু হবে। আজ প্রস্তুতি ম্যাচে আরও মুখোমুখি হবে অস্ট্রেলিয়া-ভারত, দক্ষিণ আফ্রিকা-ইংল্যান্ড ও নিউজিল্যান্ড-ওয়েস্ট ইন্ডিজ। বাংলাদেশ তাদের দ্বিতীয় প্রস্তুতি ম্যাচে ৮ ফেব্রুয়ারি ভারতের বিপক্ষে মাঠে নামবে।

এবার নারী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে বাংলাদেশের গ্রুপে আছে রেকর্ড পাঁচবারের চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া, স্বাগতিক দক্ষিণ আফ্রিকা, নিউজিল্যান্ড ও শ্রীলঙ্কা। আগামী ১২ ফেব্রুয়ারি শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে বিশ্বকাপ শুরু হবে বাংলার বাঘিনীদের।

নারী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ২০১৪ সালে প্রথম জয় পেয়েছিল বাংলাদেশের মেয়েরা। সেবার শ্রীলঙ্কাকে ৩ রানে হারিয়েছিল বাংলাদেশ। এরপর ২০১৬, ২০১৮ ও ২০২২ বিশ্বকাপে অংশ নিয়েও কোনো জয়ের দেখা পায়নি টাইগ্রেসরা। টানা হারের এই বৃত্তটাই এবার ভাঙতে চান বাংলাদেশি অধিনায়ক নিগার সুলতানা।

এর আগে গত ৪ ফেব্রুয়ারি টুর্নামেন্টের অফিশিয়াল ফটোশুটে গিয়ে ১০ দলের অধিনায়করা নিজেদের দলের লক্ষ্য নিয়ে কথা বলেছেন। সেখানে টাইগ্রেস অধিনায়ক নিগার সুলতানা বিশ্বকাপে জায়গা পাওয়াটা দারুণ এক ব্যাপার বলে জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, ‘আমরা অনেকে বহুদিন ধরেই খেলছি, তবে এটা আমাদের কেবল পঞ্চম বিশ্বকাপ। ২০১৪ সালের পর এই বিশ্বকাপে আমরা জিততে পারিনি। এবার তাই নিজেদের সেরাটা দিয়ে খেলব। ২০১৮ সালে আমরা এশিয়া কাপ জয়ের পর বাংলাদেশে নারীদের ক্রিকেটে বড় রকমের পরিবর্তন এসেছে। কয়েক দিন আগে নিউজিল্যান্ড সফরে আমরা অনেক কিছু শিখেছি। বিশ্বকাপে নিজেদের সামর্থ্য দেখানোর অপেক্ষায় আমরা।’

বাংলাদেশের বিশ্বকাপ স্কোয়াড: নিগার সুলতানা জ্যোতি (অধিনায়ক), সালমা খাতুন, জাহানারা আলম, শামিমা সুলতানা, রুমানা আহমেদ, লতা মন্ডল, স্বর্ণা আক্তার, নাহিদা আক্তার, মুরশিদা খাতুন, ঋতু মনি, দিশা বিশ্বাস, মারুফা আক্তার, দিলারা আক্তার, ফাহিমা খাতুন ও সোবহানা মোশতারি।

স্টান্ডবাই: রাবেয়া, সানজিদা আক্তার, ফারজানা হক, শারমিন আক্তার।

বিজনেস বাংলাদেশ/ হাবিব