০৩:২৮ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪

মির্জা আব্বাসের কারামুক্তিতে বাধা নেই

রাষ্ট্রীয় সম্পদ নষ্টের অভিযোগে ঢাকার রেলওয়ে থানার করা মামলায় জামিন পেয়েছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস। এ নিয়ে সব মামলায় জামিন পাওয়ায় তার কারামুক্তিতে বাধা থাকল না।

সোমবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) ঢাকার জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট জুলহাস উদ্দিনের আদালত শুনানি শেষে তাকে জামিনের আদেশ দেন।

তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন মির্জা আব্বাসের আইনজীবী মহিউদ্দিন চৌধুরী।মহিউদ্দিন চৌধুরী বলেন, “গত ৩১ অক্টোবর তাকে (মির্জা আব্বাস) গ্রেপ্তার করা হয়। তার বিরুদ্ধে ১১টি মামলা করা হয়। ১০ মামলায় তিনি জামিন পেয়েছেন। এই এক মামলায় তিনি কারাগারে আছেন। অসুস্থ, বয়স্ক মানুষ তিনি। তার জামিনের প্রার্থনা করছি।”

আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে জামিনের বিরোধিতা করেন অ্যাডিশনাল পাবলিক প্রসিকিউটর (এপিপি) আনোয়ারুল কবীর বাবুল।

উভয়পক্ষের শুনানি শেষে আদালত জামিনের আদেশ দেন।

এর আগে গত বছর ৩১ অক্টোবর রাতে ঢাকার শহীদবাগ থেকে মির্জা আব্বাসকে আটক করে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) গোয়েন্দা বিভাগ (ডিবি)। পরে তাকে বিভিন্ন মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়। এরপর থেকে তিনি কারাগারে আছেন।

বিজনেস বাংলাদেশ/বিএইচ

জনপ্রিয়

ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে কর্মসংস্থান ব্যাংকের নবনিযুক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালকের শ্রদ্ধা জ্ঞাপন

মির্জা আব্বাসের কারামুক্তিতে বাধা নেই

প্রকাশিত : ০৫:১৩:৪১ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

রাষ্ট্রীয় সম্পদ নষ্টের অভিযোগে ঢাকার রেলওয়ে থানার করা মামলায় জামিন পেয়েছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস। এ নিয়ে সব মামলায় জামিন পাওয়ায় তার কারামুক্তিতে বাধা থাকল না।

সোমবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) ঢাকার জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট জুলহাস উদ্দিনের আদালত শুনানি শেষে তাকে জামিনের আদেশ দেন।

তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন মির্জা আব্বাসের আইনজীবী মহিউদ্দিন চৌধুরী।মহিউদ্দিন চৌধুরী বলেন, “গত ৩১ অক্টোবর তাকে (মির্জা আব্বাস) গ্রেপ্তার করা হয়। তার বিরুদ্ধে ১১টি মামলা করা হয়। ১০ মামলায় তিনি জামিন পেয়েছেন। এই এক মামলায় তিনি কারাগারে আছেন। অসুস্থ, বয়স্ক মানুষ তিনি। তার জামিনের প্রার্থনা করছি।”

আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে জামিনের বিরোধিতা করেন অ্যাডিশনাল পাবলিক প্রসিকিউটর (এপিপি) আনোয়ারুল কবীর বাবুল।

উভয়পক্ষের শুনানি শেষে আদালত জামিনের আদেশ দেন।

এর আগে গত বছর ৩১ অক্টোবর রাতে ঢাকার শহীদবাগ থেকে মির্জা আব্বাসকে আটক করে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) গোয়েন্দা বিভাগ (ডিবি)। পরে তাকে বিভিন্ন মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়। এরপর থেকে তিনি কারাগারে আছেন।

বিজনেস বাংলাদেশ/বিএইচ