০৪:৫৮ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪

বাংলাদেশ ব্যাংকে সাংবাদিক প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের দাবি

বাংলাদেশ ব্যাংকে সাংবাদিকদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা দ্রুততম সময়ের মধ্যে তুলে নেওয়ার দাবি জানিয়েছে সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ।
তারা বলেন, এই নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করে আগের মতো নির্বিঘেœ প্রবেশের সুযোগ দিলে সাংবাদিকরা পেশাগত দায়িত্ব পালন করতে পারবেন। যা সরকারের নিজের স্বার্থেই করা উচিত।
বুধবার রাজধানীর পুরানা পল্টনে ইকোনমিক রিপোর্টার্স ফোরাম (ইআরএফ) কার্যালয়ে ‘সাংবাদিকদের প্রবেশাধিকারে বাংলাদেশ ব্যাংকের নিষেধাজ্ঞা আরোপ বিষয়ে নেতৃবৃন্দকে অবহিতকরণ’ শীর্ষক সভায় একাধিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ একথা বলেন ।
সাংবাদিকদের নেতাদের এই অবস্থানের প্রতি পূর্ণ সমর্থন জানিয়েছে সম্পাদক পরিষদ ও নোয়াব।
ইআরএফ সভাপতি রেফোয়েত উল্লাহ মৃধার সভাপতিত্বে আয়োজিত অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক আবুল কাশেম।
সভায় অন্যান্যের মধ্যে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক শ্যামল দত্ত, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি সোহেল হায়দার চৌধুরী ও সাজ্জাদ আলম খান তপু, ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) সভাপতি সৈয়দ শুকুর আলী শুভ, সাধারণ সম্পাদক মহি উদ্দিন আহমেদ, ইআরএফের সাবেক সভাপতি ও ইংরেজি দৈনিক ফাইন্যান্সিয়াল এক্সপ্রেসের সম্পাদক শামসুল হক জাহিদ, ইউএনবির সম্পাদক ফরিদ হোসেন, ইআরএফের সাবেক সভাপতি মনোয়ার হোসেন, সাবেক সাধারণ সম্পাদক জিয়াউর রহমান ও এস এম রাশিদুল ইসলাম প্রমূখ বক্তব্য রাখেন।
সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ বলেন, সরকারের উন্নয়নে সহায়ক ভূমিকা পালন করে সাংবাদিকরা। সামনে বাজেট আসছে। এমন এক সময়ে কেনো কেন্দ্রীয় ব্যাংকে সাংবাদিক প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হবে? আর্থিকখাতের অনিয়মসহ বিভিন্ন ধরনের সংবাদ প্রকাশ করে সরকারকে সহযোগিতা করেছে গণমাধ্যম।
তাঁরা বলেন, বাংলাদেশ ব্যাংক একটি পাবলিক প্রতিষ্ঠান, তাই সেখান থেকে তথ্য পাওয়া জনগণের অধিকার। দ্রুতই কেন্দ্রীয় ব্যাংকে সাংবাদিক প্রবেশাধিকার নিশ্চিত করা উচিত। সরকারের ভালোর জন্যই এই সুযোগ তৈরি করার প্রয়োজন।
গত প্রায় দেড় মাস যাবৎ বাংলাদেশ ব্যাংকে সাংবাদিকদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা দিয়ে রেখেছে সংস্থাটি।

ট্যাগ :

বাংলাদেশ ব্যাংকে সাংবাদিক প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের দাবি

প্রকাশিত : ১০:০৯:১০ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৫ মে ২০২৪

বাংলাদেশ ব্যাংকে সাংবাদিকদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা দ্রুততম সময়ের মধ্যে তুলে নেওয়ার দাবি জানিয়েছে সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ।
তারা বলেন, এই নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করে আগের মতো নির্বিঘেœ প্রবেশের সুযোগ দিলে সাংবাদিকরা পেশাগত দায়িত্ব পালন করতে পারবেন। যা সরকারের নিজের স্বার্থেই করা উচিত।
বুধবার রাজধানীর পুরানা পল্টনে ইকোনমিক রিপোর্টার্স ফোরাম (ইআরএফ) কার্যালয়ে ‘সাংবাদিকদের প্রবেশাধিকারে বাংলাদেশ ব্যাংকের নিষেধাজ্ঞা আরোপ বিষয়ে নেতৃবৃন্দকে অবহিতকরণ’ শীর্ষক সভায় একাধিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ একথা বলেন ।
সাংবাদিকদের নেতাদের এই অবস্থানের প্রতি পূর্ণ সমর্থন জানিয়েছে সম্পাদক পরিষদ ও নোয়াব।
ইআরএফ সভাপতি রেফোয়েত উল্লাহ মৃধার সভাপতিত্বে আয়োজিত অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক আবুল কাশেম।
সভায় অন্যান্যের মধ্যে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক শ্যামল দত্ত, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি সোহেল হায়দার চৌধুরী ও সাজ্জাদ আলম খান তপু, ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) সভাপতি সৈয়দ শুকুর আলী শুভ, সাধারণ সম্পাদক মহি উদ্দিন আহমেদ, ইআরএফের সাবেক সভাপতি ও ইংরেজি দৈনিক ফাইন্যান্সিয়াল এক্সপ্রেসের সম্পাদক শামসুল হক জাহিদ, ইউএনবির সম্পাদক ফরিদ হোসেন, ইআরএফের সাবেক সভাপতি মনোয়ার হোসেন, সাবেক সাধারণ সম্পাদক জিয়াউর রহমান ও এস এম রাশিদুল ইসলাম প্রমূখ বক্তব্য রাখেন।
সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ বলেন, সরকারের উন্নয়নে সহায়ক ভূমিকা পালন করে সাংবাদিকরা। সামনে বাজেট আসছে। এমন এক সময়ে কেনো কেন্দ্রীয় ব্যাংকে সাংবাদিক প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হবে? আর্থিকখাতের অনিয়মসহ বিভিন্ন ধরনের সংবাদ প্রকাশ করে সরকারকে সহযোগিতা করেছে গণমাধ্যম।
তাঁরা বলেন, বাংলাদেশ ব্যাংক একটি পাবলিক প্রতিষ্ঠান, তাই সেখান থেকে তথ্য পাওয়া জনগণের অধিকার। দ্রুতই কেন্দ্রীয় ব্যাংকে সাংবাদিক প্রবেশাধিকার নিশ্চিত করা উচিত। সরকারের ভালোর জন্যই এই সুযোগ তৈরি করার প্রয়োজন।
গত প্রায় দেড় মাস যাবৎ বাংলাদেশ ব্যাংকে সাংবাদিকদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা দিয়ে রেখেছে সংস্থাটি।