০২:২০ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪

এক ম্যাচের জন্য নিষিদ্ধ হলেন হার্দিক

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (আইপিএল) এক ম্যাচের জন্য নিষিদ্ধ হলেন হার্দিক পান্ডিয়া। এবারের আসরে তাদের আর কোনো ম্যাচ নেই। তাই আগামী আসরের প্রথম ম্যাচে মাঠে নামতে পারবেন না মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের অধিনায়ক।

গতকাল লক্ষ্ণৌ সুপার জায়ান্টসের বিপক্ষে ম্যাচে নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে ২০ ওভার শেষ করতে পারেনি মুম্বাইয়ের বোলাররা। আসরে তৃতীয় বারের মতো স্লো ওভার রেটের নিয়ম ভঙ্গ করায় এক ম্যাচের নিষেধাজ্ঞায় পড়লেন হার্দিক। একই সঙ্গে তাকে ম্যাচ ফির ৩০ শতাংশ জরিমানাও করা হয়েছে।

এবারের আইপিএল শুরুর আগে রোহিত শর্মাকে সরিয়ে অধিনায়ক করা হয় হার্দিককে। প্রথমবার মুম্বাইয়ের দায়িত্ব নিয়ে সুবিধা করতে পারেননি তিনি। আসরে ১৪টি ম্যাচের ১০টি হেরেছে হার্দিকের দল। ৪ জয়ে ৮ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের তলানিতে থেকে আসর শেষ করেছে মুম্বাই।

ওয়াংখেড়েতে শুক্রবার ২১৫ রান তাড়া করতে নেমে ভালো শুরু করেছিল মুম্বাই। রোহিত শর্মা এবং ডেওয়াল্ড ব্রেভিস মিলে উদ্বোধনী জুটিতে তুলেন ৮৮ রান। ব্রেভিস ফিরতেই মুম্বাইয়ের পতন শুরু হয়। সূর্যকুমার যাদব কোনও রান করতে পারেননি। ব্যর্থ হয়েছেন হার্দিক (১৬) এবং নেহাল ওয়াধেরাও (১)।

তবে রোহিত ৩৮ বলে ৬৮ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলেছেন। শেষ দিকে নামান ধীর (৬২) তবু একটু লড়াই করেছিলেন। তবে সেটা কেবলই হারের ব্যবধান কমিয়েছে। জয়ের জন্য যথেষ্ট হয়নি।

এর আগে টস হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ইনিংসের তৃতীয় বলেই ধাক্কা খায় লক্ষ্ণৌ। ফিরে যান দেবদূত পাডিক্কাল। নুয়ান থুসারার বলে আউট হন তিনি। পরের ওভারে অল্পের জন্য বেঁচে যান মার্কাস স্টয়নিস। এর পর রাহুল এবং স্টয়নিস মিলে লক্ষ্ণৌর ইনিংসের ভিত গড়েন। স্টয়নিস ২৮ রানে ফিরেছেন।

দীপক হুদাও ১১ রানের বেশি করতে পারেননি। তবে নিকোলাস পুরান নামতেই ইনিংসের গতি বদলে যায়। শুরু থেকেই ব্যাট চালাতে থাকেন এই ক্যারিবিয়ান। আগ্রাসী ব্যাটিংয়ে ১৯ বলে অর্ধশতক করেন পুরান। ফিফটি পেয়েছেন রাহুলও। সবমিলে বড় সংগ্রহ পায় তারা।

বিজনেস বাংলাদেশ/একে

জনপ্রিয়

এক ম্যাচের জন্য নিষিদ্ধ হলেন হার্দিক

প্রকাশিত : ০২:২৩:২১ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৮ মে ২০২৪

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (আইপিএল) এক ম্যাচের জন্য নিষিদ্ধ হলেন হার্দিক পান্ডিয়া। এবারের আসরে তাদের আর কোনো ম্যাচ নেই। তাই আগামী আসরের প্রথম ম্যাচে মাঠে নামতে পারবেন না মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের অধিনায়ক।

গতকাল লক্ষ্ণৌ সুপার জায়ান্টসের বিপক্ষে ম্যাচে নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে ২০ ওভার শেষ করতে পারেনি মুম্বাইয়ের বোলাররা। আসরে তৃতীয় বারের মতো স্লো ওভার রেটের নিয়ম ভঙ্গ করায় এক ম্যাচের নিষেধাজ্ঞায় পড়লেন হার্দিক। একই সঙ্গে তাকে ম্যাচ ফির ৩০ শতাংশ জরিমানাও করা হয়েছে।

এবারের আইপিএল শুরুর আগে রোহিত শর্মাকে সরিয়ে অধিনায়ক করা হয় হার্দিককে। প্রথমবার মুম্বাইয়ের দায়িত্ব নিয়ে সুবিধা করতে পারেননি তিনি। আসরে ১৪টি ম্যাচের ১০টি হেরেছে হার্দিকের দল। ৪ জয়ে ৮ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের তলানিতে থেকে আসর শেষ করেছে মুম্বাই।

ওয়াংখেড়েতে শুক্রবার ২১৫ রান তাড়া করতে নেমে ভালো শুরু করেছিল মুম্বাই। রোহিত শর্মা এবং ডেওয়াল্ড ব্রেভিস মিলে উদ্বোধনী জুটিতে তুলেন ৮৮ রান। ব্রেভিস ফিরতেই মুম্বাইয়ের পতন শুরু হয়। সূর্যকুমার যাদব কোনও রান করতে পারেননি। ব্যর্থ হয়েছেন হার্দিক (১৬) এবং নেহাল ওয়াধেরাও (১)।

তবে রোহিত ৩৮ বলে ৬৮ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলেছেন। শেষ দিকে নামান ধীর (৬২) তবু একটু লড়াই করেছিলেন। তবে সেটা কেবলই হারের ব্যবধান কমিয়েছে। জয়ের জন্য যথেষ্ট হয়নি।

এর আগে টস হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ইনিংসের তৃতীয় বলেই ধাক্কা খায় লক্ষ্ণৌ। ফিরে যান দেবদূত পাডিক্কাল। নুয়ান থুসারার বলে আউট হন তিনি। পরের ওভারে অল্পের জন্য বেঁচে যান মার্কাস স্টয়নিস। এর পর রাহুল এবং স্টয়নিস মিলে লক্ষ্ণৌর ইনিংসের ভিত গড়েন। স্টয়নিস ২৮ রানে ফিরেছেন।

দীপক হুদাও ১১ রানের বেশি করতে পারেননি। তবে নিকোলাস পুরান নামতেই ইনিংসের গতি বদলে যায়। শুরু থেকেই ব্যাট চালাতে থাকেন এই ক্যারিবিয়ান। আগ্রাসী ব্যাটিংয়ে ১৯ বলে অর্ধশতক করেন পুরান। ফিফটি পেয়েছেন রাহুলও। সবমিলে বড় সংগ্রহ পায় তারা।

বিজনেস বাংলাদেশ/একে