১০:৩৯ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪

আমি ভুল কিছু বলিনি: নিপুণ

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচন ঘিরে যেন আলোচনা-সমালোচনা থামছেই না। নির্বাচনের প্রায় এক মাস পর ফলাফল নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন পরাজিত প্রার্থী চিত্রনায়িকা নিপুণ আক্তার। মিশা-ডিপজল প্যানেলের ফলাফল স্থগিত চেয়ে আদালতে রিটও করেন এই অভিনেত্রী। পাশাপাশি দুই পক্ষের কথা লড়াই তো চলছেই। এসব নিয়ে এখন উত্তাল সিনেমাপাড়া।

গেল বুধবার এফডিসিতে নিপুণের বিরুদ্ধে ব্যানার নিয়ে মিছিল করেন শিল্পী সমিতির কিছু সদস্য। তারা প্রশ্ন তুলেছেন, নিপুণ এত টাকা কোথায় পেয়েছেন? সুদূর যুক্তরাষ্ট্র থেকে সেই প্রশ্নের উত্তর দিয়েছেন এই অভিনেত্রী।

জানিয়েছেন, নির্বাচনের জন্য তাঁতীবাজারের একটি জুয়েলার্সে ১৩ লাখ টাকার গয়না বিক্রি করেছেন তিনি।

এদিকে, ২০ মে আদালত রায় দিয়েছেন নির্বাচিত ডিপজল তার পদে বসতে পারবেন না। সেই সঙ্গে নিপুণের অভিযোগ তদন্তের নির্দেশও দিয়েছেন হাইকোর্ট। রায় প্রকাশের পর ডিপজল বলেন, ‘এটার পেছনে অবশ্যই বড় কোনো শক্তি আছে। যেহেতু সে (নিপুণ) দেশের বাইরে থেকে এসব করছে, সেহেতু বুঝতে হবে তার পেছনের হাত লম্বা।’

এবার নিপুণ উত্তর দিলেন ডিপজলের কথার। তার ভাষ্য, ‘আমি পৃথিবীর যেখানেই থাকি, আইনের কাজ আইন করবে। তাতে হাত লম্বা-খাটোর তো কিছু নেই। দেশ ছাড়ার আগে নির্বাচনে তারা যেসব কারচুপি, অন্যায়মূলক কর্মকাণ্ড করেছে সেসব প্রমাণাদি আমি আমার আইনজীবীকে বুঝিয়ে দিয়ে এসেছি। এসব প্রমাণ জোগাড় করতেও তো কিছু সময় লেগেছে। আমার অবর্তমানে একজনকে পাওয়ার অব অ্যাটর্নি করে এসেছি। ফলে এখন আইনের প্রক্রিয়া বিজ্ঞ আদালতের গতিতে চলছে। এতে আমার কিছু করার নেই।’

ডিপজলকে বুঝে শুনেই ‘অশিক্ষিত’ বলেছেন নিপুণ। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আমি বুঝে শুনেই উনাকে (ডিপজল) মূর্খ্য বলেছি। কারণ তিনি ইদানিং যেসব কাজ করছেন বা কথা বলছেন, তাতে মূর্খতারই পরিচয় দিচ্ছেন। আমি ভুল কিছু বলিনি। আর ডিএ তায়েব যে মামলার কথা বলেছেন, আমি দেশে ফিরে তার বিষয়ে ব্যবস্থা গ্রহণ করব।’

এফডিসিতে নিপুণের বিরুদ্ধে মিছিল করার প্রসঙ্গে এই অভিনেত্রী বলেন, ‘যখন রাঘব বোয়ালদের অন্যায়ের বিরুদ্ধে লড়তে যাবেন তখন নানা ধরনের কটাক্ষ, নিন্দা কিংবা তারচেয়ে বড় কিছু মোকাবিলা করতে হবে। সুতরাং এ নিয়ে মাথা ঘামালে চলবে না। নিজের অধিকার ও সত্যের জন্য লড়তে হবে- এটাই মূল লক্ষ্য। আমিও নিজেকে সেভাবেই প্রস্তুত করেছি। এসব কটাক্ষে আমার কিচ্ছু আসে যায় না।’

বিজনেস বাংলাদেশ/একে

জনপ্রিয়

রংপুরে বালুভর্তি মাহিন্দ্রার ধাক্কায় প্রাণ গেল ভ্যানচালকসহ দুইজনের

আমি ভুল কিছু বলিনি: নিপুণ

প্রকাশিত : ১২:৫৮:৪৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচন ঘিরে যেন আলোচনা-সমালোচনা থামছেই না। নির্বাচনের প্রায় এক মাস পর ফলাফল নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন পরাজিত প্রার্থী চিত্রনায়িকা নিপুণ আক্তার। মিশা-ডিপজল প্যানেলের ফলাফল স্থগিত চেয়ে আদালতে রিটও করেন এই অভিনেত্রী। পাশাপাশি দুই পক্ষের কথা লড়াই তো চলছেই। এসব নিয়ে এখন উত্তাল সিনেমাপাড়া।

গেল বুধবার এফডিসিতে নিপুণের বিরুদ্ধে ব্যানার নিয়ে মিছিল করেন শিল্পী সমিতির কিছু সদস্য। তারা প্রশ্ন তুলেছেন, নিপুণ এত টাকা কোথায় পেয়েছেন? সুদূর যুক্তরাষ্ট্র থেকে সেই প্রশ্নের উত্তর দিয়েছেন এই অভিনেত্রী।

জানিয়েছেন, নির্বাচনের জন্য তাঁতীবাজারের একটি জুয়েলার্সে ১৩ লাখ টাকার গয়না বিক্রি করেছেন তিনি।

এদিকে, ২০ মে আদালত রায় দিয়েছেন নির্বাচিত ডিপজল তার পদে বসতে পারবেন না। সেই সঙ্গে নিপুণের অভিযোগ তদন্তের নির্দেশও দিয়েছেন হাইকোর্ট। রায় প্রকাশের পর ডিপজল বলেন, ‘এটার পেছনে অবশ্যই বড় কোনো শক্তি আছে। যেহেতু সে (নিপুণ) দেশের বাইরে থেকে এসব করছে, সেহেতু বুঝতে হবে তার পেছনের হাত লম্বা।’

এবার নিপুণ উত্তর দিলেন ডিপজলের কথার। তার ভাষ্য, ‘আমি পৃথিবীর যেখানেই থাকি, আইনের কাজ আইন করবে। তাতে হাত লম্বা-খাটোর তো কিছু নেই। দেশ ছাড়ার আগে নির্বাচনে তারা যেসব কারচুপি, অন্যায়মূলক কর্মকাণ্ড করেছে সেসব প্রমাণাদি আমি আমার আইনজীবীকে বুঝিয়ে দিয়ে এসেছি। এসব প্রমাণ জোগাড় করতেও তো কিছু সময় লেগেছে। আমার অবর্তমানে একজনকে পাওয়ার অব অ্যাটর্নি করে এসেছি। ফলে এখন আইনের প্রক্রিয়া বিজ্ঞ আদালতের গতিতে চলছে। এতে আমার কিছু করার নেই।’

ডিপজলকে বুঝে শুনেই ‘অশিক্ষিত’ বলেছেন নিপুণ। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আমি বুঝে শুনেই উনাকে (ডিপজল) মূর্খ্য বলেছি। কারণ তিনি ইদানিং যেসব কাজ করছেন বা কথা বলছেন, তাতে মূর্খতারই পরিচয় দিচ্ছেন। আমি ভুল কিছু বলিনি। আর ডিএ তায়েব যে মামলার কথা বলেছেন, আমি দেশে ফিরে তার বিষয়ে ব্যবস্থা গ্রহণ করব।’

এফডিসিতে নিপুণের বিরুদ্ধে মিছিল করার প্রসঙ্গে এই অভিনেত্রী বলেন, ‘যখন রাঘব বোয়ালদের অন্যায়ের বিরুদ্ধে লড়তে যাবেন তখন নানা ধরনের কটাক্ষ, নিন্দা কিংবা তারচেয়ে বড় কিছু মোকাবিলা করতে হবে। সুতরাং এ নিয়ে মাথা ঘামালে চলবে না। নিজের অধিকার ও সত্যের জন্য লড়তে হবে- এটাই মূল লক্ষ্য। আমিও নিজেকে সেভাবেই প্রস্তুত করেছি। এসব কটাক্ষে আমার কিচ্ছু আসে যায় না।’

বিজনেস বাংলাদেশ/একে