১২:৫৫ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪

তুফানে কীভাবে যুক্ত হলেন, জানালেন নাবিলা

ঈদে মুক্তি পাওয়া রায়হান রাফি পরিচালিত শাকিব খানের ‘তুফান’ সিনেমাটি দর্শকমহলে ব্যাপক সাড়া জাগিয়েছে। সিনেমাটিতে নায়কের বিপরীতে প্রথমবারের মত পর্দা ভাগ করে নিয়েছেন অভিনেত্রী মাসুমা রহমান নাবিলা। আয়নাবাজির পর দীর্ঘ বিরতি শেষে ‘তুফান’ সিনেমায় অভিনয় করে আবার আলোচনায় আসলেন অভিনেত্রী।

সম্প্রতি গণমাধ্যমকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে সিনেমাটিতে যুক্ত হওয়ার পাশাপাশি কাজের নানা অভিজ্ঞতার কথা তুলে ধরেন নাবিলা। জানান, ‘তুফান’ সিনেমা মুক্তির দিন থেকেই হলে যাচ্ছেন তিনি। সেখান থেকে তুফান দেখতে আসা দর্শকদের সাড়া পেয়ে বেশ আপ্লুতও এই অভিনেত্রী।

অভিনেত্রীর কথায়, ‘দর্শকদের রেসপন্স দেখে আমি তো অবাক। মাল্টিপ্লেক্সের বাইরে সিঙ্গেল স্ক্রিনে দেখলাম দর্শকরা মিছিল নিয়ে তুফান দেখতে আসছে। সিনেমাটিতে শাকিব খান নায়ক। তাই সিনেমাটি যখন শুরু করি, তখনই ভেবেছিলাম দর্শকদের রেসপন্স দারুণ হবে। তবে সেটা এ পরিমাণে হবে তা ভাবনায় ছিল না।’

তবে তুফান নিয়ে এত উন্মাদনার পেছনে দর্শক আগ্রহের পাশাপাশি সামাজিক মাধ্যমেরও অবদান আছে বলে মনে করেন নাবিলা। তার কথায়, ‘৮ বছর আগে যখন আয়নাবাজি মুক্তি পায় তখন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের এতটা প্রভাব ছিল না। এখন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সিনেমা নিয়ে তুমুল চর্চা হয়। তুফানের বেলায় সেটা মারাত্মকভাবে উপলব্ধি করলাম।’

সিনেমা হল থেকে দর্শক ভালোবাসা পেয়ে আপ্লুত হয়ে নাবিলা বলেন, ‘আমরা হলে হলে ঘুরছি আর বিচিত্র রকম অভিজ্ঞতা হচ্ছে। এক মহিলা তো আমাকে পেয়ে জড়িয়ে ধরতে চাইলেন। দর্শকদের এমন আরও অনেক ভালোবাসা সরাসরি হলে উপস্থিতি হয়ে পেয়েছি, অনুভব করেছি।’

তুফানে যুক্ত হওয়া প্রসঙ্গে নাবিলার ভাষ্য, ‘প্রথম যখন ‘তুফান’ ছবির সংবাদ সম্মেলন করে। তখন একটা গেট টুগেদার হয়। সেখানে পরিচালক রায়হান রাফির সঙ্গে আমার দেখা হয়। তখন রাফি আমাকে তার অফিসে যেতে বলেন, জানান আমাকে নিয়ে তিনি ওই ছবির জন্য ভাবছেন। পরে রাফি আমাকে চিত্রনাট্য ধরিয়ে দিয়ে পড়তে বলেন। চরিত্রটি আমার পছন্দ হয়। আমিও রাজি হয়ে যাই।’

‘তুফানে’ নাবিলার আয়নাবাজির নায়ক চঞ্চল চৌধুরীও অভিনয় করেছেন। দ্বিতীয় ছবিতেও প্রথম ছবির নায়ক থাকার অনুভূতি জানিয়ে অভিনেত্রী বলেন, ‘বিষয়টি আমার জন্য বেশ আনন্দের। তবে মজার বিষয় হচ্ছে, ‘তুফান’-এ চঞ্চল ভাই থাকলেও শ্যুটিংয়ে তার সঙ্গে আমার কোনো সিকোয়েন্স ছিল না।’

প্রসঙ্গত, মূলত উপস্থাপক হিসেবেই পরিচিতি ছিওল নাবিলার। তবে অমিতাভ রেজা চৌধুরী পরিচালিত ‘আয়নাবাজি’ সিনেমায় অভিনয় করে দারুণ আলোচিত হয়েছিলেন তিনি। ৮ বছরের দীর্ঘ বিরতি শেষে আত্মবিশ্বাস না হারিয়ে তুফান সিনেমায় অভিনয়ের মাধ্যমে কাজে ফিরেছেন এই অভিনেত্রী।

বিজনেস বাংলাদেশ/একে

ট্যাগ :

শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা নিশ্চিতের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

তুফানে কীভাবে যুক্ত হলেন, জানালেন নাবিলা

প্রকাশিত : ০২:২৯:৩৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪

ঈদে মুক্তি পাওয়া রায়হান রাফি পরিচালিত শাকিব খানের ‘তুফান’ সিনেমাটি দর্শকমহলে ব্যাপক সাড়া জাগিয়েছে। সিনেমাটিতে নায়কের বিপরীতে প্রথমবারের মত পর্দা ভাগ করে নিয়েছেন অভিনেত্রী মাসুমা রহমান নাবিলা। আয়নাবাজির পর দীর্ঘ বিরতি শেষে ‘তুফান’ সিনেমায় অভিনয় করে আবার আলোচনায় আসলেন অভিনেত্রী।

সম্প্রতি গণমাধ্যমকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে সিনেমাটিতে যুক্ত হওয়ার পাশাপাশি কাজের নানা অভিজ্ঞতার কথা তুলে ধরেন নাবিলা। জানান, ‘তুফান’ সিনেমা মুক্তির দিন থেকেই হলে যাচ্ছেন তিনি। সেখান থেকে তুফান দেখতে আসা দর্শকদের সাড়া পেয়ে বেশ আপ্লুতও এই অভিনেত্রী।

অভিনেত্রীর কথায়, ‘দর্শকদের রেসপন্স দেখে আমি তো অবাক। মাল্টিপ্লেক্সের বাইরে সিঙ্গেল স্ক্রিনে দেখলাম দর্শকরা মিছিল নিয়ে তুফান দেখতে আসছে। সিনেমাটিতে শাকিব খান নায়ক। তাই সিনেমাটি যখন শুরু করি, তখনই ভেবেছিলাম দর্শকদের রেসপন্স দারুণ হবে। তবে সেটা এ পরিমাণে হবে তা ভাবনায় ছিল না।’

তবে তুফান নিয়ে এত উন্মাদনার পেছনে দর্শক আগ্রহের পাশাপাশি সামাজিক মাধ্যমেরও অবদান আছে বলে মনে করেন নাবিলা। তার কথায়, ‘৮ বছর আগে যখন আয়নাবাজি মুক্তি পায় তখন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের এতটা প্রভাব ছিল না। এখন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সিনেমা নিয়ে তুমুল চর্চা হয়। তুফানের বেলায় সেটা মারাত্মকভাবে উপলব্ধি করলাম।’

সিনেমা হল থেকে দর্শক ভালোবাসা পেয়ে আপ্লুত হয়ে নাবিলা বলেন, ‘আমরা হলে হলে ঘুরছি আর বিচিত্র রকম অভিজ্ঞতা হচ্ছে। এক মহিলা তো আমাকে পেয়ে জড়িয়ে ধরতে চাইলেন। দর্শকদের এমন আরও অনেক ভালোবাসা সরাসরি হলে উপস্থিতি হয়ে পেয়েছি, অনুভব করেছি।’

তুফানে যুক্ত হওয়া প্রসঙ্গে নাবিলার ভাষ্য, ‘প্রথম যখন ‘তুফান’ ছবির সংবাদ সম্মেলন করে। তখন একটা গেট টুগেদার হয়। সেখানে পরিচালক রায়হান রাফির সঙ্গে আমার দেখা হয়। তখন রাফি আমাকে তার অফিসে যেতে বলেন, জানান আমাকে নিয়ে তিনি ওই ছবির জন্য ভাবছেন। পরে রাফি আমাকে চিত্রনাট্য ধরিয়ে দিয়ে পড়তে বলেন। চরিত্রটি আমার পছন্দ হয়। আমিও রাজি হয়ে যাই।’

‘তুফানে’ নাবিলার আয়নাবাজির নায়ক চঞ্চল চৌধুরীও অভিনয় করেছেন। দ্বিতীয় ছবিতেও প্রথম ছবির নায়ক থাকার অনুভূতি জানিয়ে অভিনেত্রী বলেন, ‘বিষয়টি আমার জন্য বেশ আনন্দের। তবে মজার বিষয় হচ্ছে, ‘তুফান’-এ চঞ্চল ভাই থাকলেও শ্যুটিংয়ে তার সঙ্গে আমার কোনো সিকোয়েন্স ছিল না।’

প্রসঙ্গত, মূলত উপস্থাপক হিসেবেই পরিচিতি ছিওল নাবিলার। তবে অমিতাভ রেজা চৌধুরী পরিচালিত ‘আয়নাবাজি’ সিনেমায় অভিনয় করে দারুণ আলোচিত হয়েছিলেন তিনি। ৮ বছরের দীর্ঘ বিরতি শেষে আত্মবিশ্বাস না হারিয়ে তুফান সিনেমায় অভিনয়ের মাধ্যমে কাজে ফিরেছেন এই অভিনেত্রী।

বিজনেস বাংলাদেশ/একে