০৬:০২ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪

সরকার রোহিঙ্গাদের পাশে থাকবে

সরকার রোহিঙ্গাদের পাশে থাকবে

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, শুরু থেকেই আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গাদের পাশে সরকার ছিল এবং আগামীতেও থাকবে। মানবিক দৃষ্টিকোণ থেকে প্রধানমন্ত্রী আগেই নির্দেশনা দেন রোহিঙ্গাদের সব সুযোগ সুবিধা নিশ্চিত করতে। খুব শিগগিরই বাংলাদেশে অবস্থানরত রোহিঙ্গারা তাদের দেশে ফিরে যাবে বলে আমরা আশা করছি। মঙ্গলবার কক্সবাজারের একটি অভিজাত হোটেলে প্রেস ব্রিফিংয়ে এসব কথা বলেন সেতুমন্ত্রী। তিনি বলেন, রোহিঙ্গাদের কারণে কক্সবাজারের আশপাশে যেসব বাংলাদেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন, তাদের ক্ষতি পুষিয়ে দেয়া হবে। সেই সঙ্গে যারা শিক্ষিত যুবক রয়েছেন তাদের চাকরির ক্ষেত্রে অগ্রাধিকার দেয়া হবে। সেতুমন্ত্রী বলেন, রোহিঙ্গা ক্যাম্পে বিদ্যুতায়নের জন্য প্রায় তিন কোটি টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। খুব দ্রুত বিদ্যুতায়নের কাজ শুরু হবে। আশ্রিতদের জন্য দ্রুত অস্থায়ী আবাসন, স্যানিটেশন, চিকিৎসাসহ বিশুদ্ধ পানি সরবাহ নিশ্চিত করে বিশ্বে বিরল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে সরকার। তিনি বলেন, মিয়ানমার সরকার তাদের সিদ্ধান্ত থেকে ফিরেছে। সোমবার তাদের এক মন্ত্রী বাংলাদেশ সফরে এসে রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে সম্মত হয়েছে। আমাদের আশা মিয়ানমারের নাগরিকদের সম্মানের সঙ্গে স্বীকৃতি দিয়ে সেদেশে ফিরিয়ে নিয়ে যাবে মিয়ানমার সরকার। এ সময় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এনামুল হক শামীম, সংসদ সদস্য সাইমুম সরওয়ার কমল, আশেক উল্লাহ রফিক, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট সিরাজুল মোস্তফা, সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমান, ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুল হায়দার চৌধুরী রোটন, আওয়ামী লীগ নেতা রাশেদুল ইসলামসহ কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

ট্যাগ :

সরকার রোহিঙ্গাদের পাশে থাকবে

প্রকাশিত : ০১:২৩:১২ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ৪ অক্টোবর ২০১৭

সরকার রোহিঙ্গাদের পাশে থাকবে

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, শুরু থেকেই আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গাদের পাশে সরকার ছিল এবং আগামীতেও থাকবে। মানবিক দৃষ্টিকোণ থেকে প্রধানমন্ত্রী আগেই নির্দেশনা দেন রোহিঙ্গাদের সব সুযোগ সুবিধা নিশ্চিত করতে। খুব শিগগিরই বাংলাদেশে অবস্থানরত রোহিঙ্গারা তাদের দেশে ফিরে যাবে বলে আমরা আশা করছি। মঙ্গলবার কক্সবাজারের একটি অভিজাত হোটেলে প্রেস ব্রিফিংয়ে এসব কথা বলেন সেতুমন্ত্রী। তিনি বলেন, রোহিঙ্গাদের কারণে কক্সবাজারের আশপাশে যেসব বাংলাদেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন, তাদের ক্ষতি পুষিয়ে দেয়া হবে। সেই সঙ্গে যারা শিক্ষিত যুবক রয়েছেন তাদের চাকরির ক্ষেত্রে অগ্রাধিকার দেয়া হবে। সেতুমন্ত্রী বলেন, রোহিঙ্গা ক্যাম্পে বিদ্যুতায়নের জন্য প্রায় তিন কোটি টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। খুব দ্রুত বিদ্যুতায়নের কাজ শুরু হবে। আশ্রিতদের জন্য দ্রুত অস্থায়ী আবাসন, স্যানিটেশন, চিকিৎসাসহ বিশুদ্ধ পানি সরবাহ নিশ্চিত করে বিশ্বে বিরল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে সরকার। তিনি বলেন, মিয়ানমার সরকার তাদের সিদ্ধান্ত থেকে ফিরেছে। সোমবার তাদের এক মন্ত্রী বাংলাদেশ সফরে এসে রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে সম্মত হয়েছে। আমাদের আশা মিয়ানমারের নাগরিকদের সম্মানের সঙ্গে স্বীকৃতি দিয়ে সেদেশে ফিরিয়ে নিয়ে যাবে মিয়ানমার সরকার। এ সময় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এনামুল হক শামীম, সংসদ সদস্য সাইমুম সরওয়ার কমল, আশেক উল্লাহ রফিক, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট সিরাজুল মোস্তফা, সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমান, ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুল হায়দার চৌধুরী রোটন, আওয়ামী লীগ নেতা রাশেদুল ইসলামসহ কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।