১০:২৯ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪

আমরা বিএনপির সাথে পাল্টাপাল্টি করি না: ওবায়দুল কাদের

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আপনারা এটা পাল্টাপাল্টি ভাববেন কেন? আমরা এমন মনে করি না। এটা ৭ই মার্চের স্বীকৃতির সেলিব্রেশন।’

তিনি বলেন, ‘এটা পাল্টা সমাবেশ না, আমরা বিএনপির সাথে পাল্টাপাল্টি করি না। বিএনপি প্রয়োজন মনে করলে পাল্টাপাল্টি করবে, সেটা তাদের ব্যাপার। আওয়ামী লীগ বিএনপির সাথে রাজনৈতিক কর্মসূচি নিয়ে কখনো পাল্টাপাল্টি করে না।’

শুক্রবার (১৭ নভেম্বর) সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আওয়ামী লীগের নাগরিক সমাবেশ নিয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি  এসব কথা বলেন।

সমাবেশে কি পরিমান জনসমাগম হবে আশা করছেন, এমন প্রশ্নের জবাবে কাদের বলেন, ‘৭ই মার্চ কেবল আওয়ামী লীগের সমাবেশ ছিল না। তেমনি কালকের সমাবেশেও সবাই আসবে। মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীনতায় বিশ্বাসী সবাই আসবে।

তবে বৃহস্পতিবার (১৬ নভেম্বর) জাতীয় প্রেসক্লাবে এক আলোচনা সভায় কাদের বলেছিলেন, আগামী ১৮ই নভেম্বরের নাগরিক সমাবেশ নির্বিশেষে জনমতের প্রতিফলন গঠবে। যে ভাবে চারদিক থেকে সাড়া পাচ্ছি সমাবেশটি একটি জনসমুদ্রে পরিণত হবে। নাগরিক সমাবেশটি হবে সর্বকালের সেরা সমাবেশ।

ইউনেস্কোতে স্বীকৃতির জন্য প্রস্তাব উত্থাপনকারী শিক্ষক রাবেয়া খাতুনকে সমাবেশে নিমন্ত্রণ করা হবে কিনা- সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘আমি প্রস্তাব দিলাম, তাতে কি আমি স্বীকৃতি পেলাম? কে প্রস্তাব দিলো সেটা না, স্বীকৃতিটা ভাষণের। সবাইকে চিঠি দেওয়া হচ্ছে, আজও চিঠি যাবে।’

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন নাগরিক কমিটির যুগ্ম-আহ্বায়ক হারুন-অর-রশীদ, আওয়ামী লীগের সভাপতি মন্ডলীর সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন প্রমুখ।

ট্যাগ :
জনপ্রিয়

আমরা বিএনপির সাথে পাল্টাপাল্টি করি না: ওবায়দুল কাদের

প্রকাশিত : ০৮:৩৮:৪৪ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৭

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আপনারা এটা পাল্টাপাল্টি ভাববেন কেন? আমরা এমন মনে করি না। এটা ৭ই মার্চের স্বীকৃতির সেলিব্রেশন।’

তিনি বলেন, ‘এটা পাল্টা সমাবেশ না, আমরা বিএনপির সাথে পাল্টাপাল্টি করি না। বিএনপি প্রয়োজন মনে করলে পাল্টাপাল্টি করবে, সেটা তাদের ব্যাপার। আওয়ামী লীগ বিএনপির সাথে রাজনৈতিক কর্মসূচি নিয়ে কখনো পাল্টাপাল্টি করে না।’

শুক্রবার (১৭ নভেম্বর) সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আওয়ামী লীগের নাগরিক সমাবেশ নিয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি  এসব কথা বলেন।

সমাবেশে কি পরিমান জনসমাগম হবে আশা করছেন, এমন প্রশ্নের জবাবে কাদের বলেন, ‘৭ই মার্চ কেবল আওয়ামী লীগের সমাবেশ ছিল না। তেমনি কালকের সমাবেশেও সবাই আসবে। মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীনতায় বিশ্বাসী সবাই আসবে।

তবে বৃহস্পতিবার (১৬ নভেম্বর) জাতীয় প্রেসক্লাবে এক আলোচনা সভায় কাদের বলেছিলেন, আগামী ১৮ই নভেম্বরের নাগরিক সমাবেশ নির্বিশেষে জনমতের প্রতিফলন গঠবে। যে ভাবে চারদিক থেকে সাড়া পাচ্ছি সমাবেশটি একটি জনসমুদ্রে পরিণত হবে। নাগরিক সমাবেশটি হবে সর্বকালের সেরা সমাবেশ।

ইউনেস্কোতে স্বীকৃতির জন্য প্রস্তাব উত্থাপনকারী শিক্ষক রাবেয়া খাতুনকে সমাবেশে নিমন্ত্রণ করা হবে কিনা- সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘আমি প্রস্তাব দিলাম, তাতে কি আমি স্বীকৃতি পেলাম? কে প্রস্তাব দিলো সেটা না, স্বীকৃতিটা ভাষণের। সবাইকে চিঠি দেওয়া হচ্ছে, আজও চিঠি যাবে।’

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন নাগরিক কমিটির যুগ্ম-আহ্বায়ক হারুন-অর-রশীদ, আওয়ামী লীগের সভাপতি মন্ডলীর সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন প্রমুখ।