ঢাকা রাত ১২:৩৭, শুক্রবার, ২৩শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, ৭ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

দশ লাখের মাইলফলক ছাড়ালো করোনায় মৃতের সংখ্যা

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে বিশ্বজুড়ে মৃতের সংখ্যা দশ লাখের মাইলফলক অতিক্রম করেছে। যুক্তরাষ্ট্রের জন্স হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের সংগ্রহ করা তথ্য অনুযায়ী, মঙ্গলবার (২৯ সেপ্টেম্বর) বাংলাদেশ সময় বিকাল চারটা পর্যন্ত এই মহামারিতে মৃতের সংখ্যা দশ লাখ দুই হাজার ২৯৬ জনে পৌঁছেছে। তবে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) বলছে, প্রকৃত মৃতের সংখ্যা সম্ভবত আরও অনেক বেশি হতে পারে। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরার প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের হুবেই প্রদেশের রাজধানী উহান থেকে ছড়িয়ে পড়তে শুরু করে করোনাভাইরাস। ওই সময়ে সেখানকার ডাক্তাররা লক্ষ্য করে দেখেন নতুন ধরণের রহস্যজনক নিউমোনিয়ায় মারাত্মক অসুস্থ হয়ে পড়ছে মানুষ। সীমান্ত বন্ধ ও কোয়ারেন্টিন করাসহ নানা পদক্ষেপ নেওয়ার পরও বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়ে এই ভাইরাস। চীনের বাইরে এর প্রকোপ ১৩ গুণ বৃদ্ধি পাওয়ার প্রেক্ষাপটে গত ১১ মার্চ দুনিয়াজুড়ে মহামারি ঘোষণা করে ডব্লিউএইচও।

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব শুরুর পর থেকেই বিশ্বজুড়ে আক্রান্ত ও মৃত মানুষদের তথ্য সংগ্রহ করে আসছে জন্স হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়। তাদের তথ্য অনুযায়ী মঙ্গলবার পর্যন্ত এতে আক্রান্ত হয়েছে দুনিয়ার তিন কোটি ৩৩ লাখ ৮৪ হাজার ১৫৩ জন মানুষ।

সোমবার জেনেভায় এক সংবাদ সম্মেলনে ডব্লিউএইচও’র জরুরি পরিস্থিতি বিষয়ক শীর্ষ বিশেষজ্ঞ মাইক রায়ান বলেন, ‘সম্ভবত, বর্তমানে যেসব সংখ্যার কথা জানা যাচ্ছে তা কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত কিংবা এতে মারা যাওয়া মানুষের প্রকৃত সংখ্যাকে প্রতিফলিত করছে না।’ তিনি বলেন, ‘যখন কিছু গনণা করা হয় তখন নির্ভুলভাবে গনণা করা যায় না তবে আমি আপনাদের নিশ্চিত করতে পারি যে, বর্তমান সংখ্যাগুলো কোভিড এর প্রকৃত হিসাবকে ছোট করে দেখাচ্ছে।’

করোনা মহামারিতে সবচেয়ে মানুষের মৃত্যু হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে- দুই লাখ পাঁচ হাজার ৭২ জন। এরপরে রয়েছে ব্রাজিল (১ লাখ ৪২ হাজার ৫৮), ভারত (৯৫ হাজার ৫৪২), মেক্সিকো (৭৬ হাজার ৪৩০) ও যুক্তরাজ্য (৪২ হাজার ৯০)।

জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেস বলেছেন, এত এত মানুষের মৃত্যু নিয়ে দুনিয়া এক যন্ত্রণাদায়ক মাইলফলক পার করলো। এক টুইট বার্তায় তিনি বলেন, ‘আমরা অবশ্যই কোনওভাবে প্রতিটি জীবনের ওপর থেকে দৃষ্টি সরাবো না। সাশ্রয়ী এবং সবার কাছে পৌঁছাতে সক্ষম ভ্যাকসিনের তল্লাশি চলতে থাকলেও চলুন এই ভাইরাসকে পরাজিত করতে যৌথভাবে কাজ করে তাদের (মৃতদের) স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানাই।

বিজনেস বাংলাদেশ/ প্রান্ত

এ বিভাগের আরও সংবাদ