০২:৩১ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪

ক্যাসিনো দেলুর স্ত্রী রেকা’র বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

জুতা ও কাপড় পান্জাবী বিক্রয়ের পাইকারি অন্যতম মার্কেট রাজধানীর ফুলবাড়িয়া সুপার মার্কেট-২ ।উক্ত মার্কেটের ব্যবসায়ীরা যখন আতঙ্কের মধ্যে দিন কাটছে।সকলের অভিযোগ ছিলো,মার্কেট সভাপতি দেলোয়ার হোসেন দেলু মার্কেটের একক কর্তৃত্ব ও অবৈধ ভাবে জোর পূর্বক সম্পদ অর্জন সহ মার্কেটের ব্যবসায়ীদের বর্তমান নেতৃত্বকে নানাভাবে হয়রানি করছেন।

গত ১১ সেপ্টেম্বর ২০২২ ইং উক্ত আসামির স্বামী দেলোয়ার হোসেন (দেলু) এর বিরুদ্ধে ১১,০৩,৪৬,৮৮১/- মূল্যের অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে তার বিরুদ্ধে মামলা করছেন দূর্নীতি দমন কমিশন দুদক। কিন্তু বাদ পড়ে গেছেন একই অপরাধে জড়িত তার স্ত্রী রেখা হোসেন।

অবশেষে দেলুর অবৈধ সম্পদ হেফাজত কারী তার স্ত্রী বিরুদ্ধে অদ্য ২৭ অক্টোবর ২০২১ ইং দুর্নীতি দমন কমিশন, প্রধান কার্যালয়ে সম্পদ বিবরণী দাখিল করেন। অনুসন্ধান যাচাইকালে সংগৃহীত রেকর্ডপত্র তথ্যাদি পর্যালোচনায় দেখা যায় যে, তার নামে প্রাপ্ত স্থাবর সম্পদের পরিমাণ ৪১,২৮,৬০২.০০ (একচল্লিশ লক্ষ আটাশ হাজার ছয়শত দুই) টাকা ও অস্থাবর সম্পদের পরিমাণ ২৩,০০,০০০,০০ (তেইশ লক্ষ) টাকাসহ সর্বমোট (৪১,২৮,৬০২ + ২৩,০০,০০০)= ৬৪,২৮,৬০২ (চৌষট্টি লক্ষ আটাশ হাজার ছয়শত দুই) টাকা। আয়কর নথিতে আসামির প্রদর্শিত পারিবারিক ব্যয়ের পরিমাণ ১৩,৫০,০০০.০০ (তের লক্ষ পঞ্চাশ হাজার) টাকা।

তার মোট স্থাবর-অস্থাবর সম্পদ ও পারিবারিক ব্যয়ের পরিমাণ (৬৪,২৮,৬০২ + ১৩,৫০,০০০) =৭৭,৭৮,৬০২.০০ (সাতাত্তর লক্ষ আটাত্তর হাজার ছয়শত দুই) টাকা। যাচাই অনুসন্ধানকালে তার আয়ের স্বপক্ষে গ্রহণযোগ্য কোন উৎস পাওয়া যায় নি। অর্থাৎ যাচাই/অনুসন্ধানকালে আসামী রেকা হোসেনের ৭৭,৭৮,৬০২.০০ (সাতাত্তর লক্ষ আটাত্তর হাজার ছয়শত দুই) টাকার জ্ঞাত আয়ের উৎসের সহিত অসংগতিপূর্ণ সম্পদের অর্জন করেছেন দুর্নীতি দমন কমিশন আইন-২০০৪ এর ২৭(১) ধারায় শাস্তিযোগ্য অপরাধ করছেন বিধায় মুহাম্মদ জাফর সাদেক শিবলী, সহকারি পরিচালক (বি: অনু: ও তদন্ত করে দুর্নীতি দমন কমিশন, প্রধান কার্যালয়, ঢাকা বাদী হয়ে তার বিরুদ্ধে দুদক,সজেকা, ঢাকা-১ এ আজ একটি মামলা দায়ের করেন।

বিজনেস বাংলাদেশ/ হাবিব

শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা নিশ্চিতের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

ক্যাসিনো দেলুর স্ত্রী রেকা’র বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

প্রকাশিত : ০৫:০৮:১৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ১০ অক্টোবর ২০২২

জুতা ও কাপড় পান্জাবী বিক্রয়ের পাইকারি অন্যতম মার্কেট রাজধানীর ফুলবাড়িয়া সুপার মার্কেট-২ ।উক্ত মার্কেটের ব্যবসায়ীরা যখন আতঙ্কের মধ্যে দিন কাটছে।সকলের অভিযোগ ছিলো,মার্কেট সভাপতি দেলোয়ার হোসেন দেলু মার্কেটের একক কর্তৃত্ব ও অবৈধ ভাবে জোর পূর্বক সম্পদ অর্জন সহ মার্কেটের ব্যবসায়ীদের বর্তমান নেতৃত্বকে নানাভাবে হয়রানি করছেন।

গত ১১ সেপ্টেম্বর ২০২২ ইং উক্ত আসামির স্বামী দেলোয়ার হোসেন (দেলু) এর বিরুদ্ধে ১১,০৩,৪৬,৮৮১/- মূল্যের অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে তার বিরুদ্ধে মামলা করছেন দূর্নীতি দমন কমিশন দুদক। কিন্তু বাদ পড়ে গেছেন একই অপরাধে জড়িত তার স্ত্রী রেখা হোসেন।

অবশেষে দেলুর অবৈধ সম্পদ হেফাজত কারী তার স্ত্রী বিরুদ্ধে অদ্য ২৭ অক্টোবর ২০২১ ইং দুর্নীতি দমন কমিশন, প্রধান কার্যালয়ে সম্পদ বিবরণী দাখিল করেন। অনুসন্ধান যাচাইকালে সংগৃহীত রেকর্ডপত্র তথ্যাদি পর্যালোচনায় দেখা যায় যে, তার নামে প্রাপ্ত স্থাবর সম্পদের পরিমাণ ৪১,২৮,৬০২.০০ (একচল্লিশ লক্ষ আটাশ হাজার ছয়শত দুই) টাকা ও অস্থাবর সম্পদের পরিমাণ ২৩,০০,০০০,০০ (তেইশ লক্ষ) টাকাসহ সর্বমোট (৪১,২৮,৬০২ + ২৩,০০,০০০)= ৬৪,২৮,৬০২ (চৌষট্টি লক্ষ আটাশ হাজার ছয়শত দুই) টাকা। আয়কর নথিতে আসামির প্রদর্শিত পারিবারিক ব্যয়ের পরিমাণ ১৩,৫০,০০০.০০ (তের লক্ষ পঞ্চাশ হাজার) টাকা।

তার মোট স্থাবর-অস্থাবর সম্পদ ও পারিবারিক ব্যয়ের পরিমাণ (৬৪,২৮,৬০২ + ১৩,৫০,০০০) =৭৭,৭৮,৬০২.০০ (সাতাত্তর লক্ষ আটাত্তর হাজার ছয়শত দুই) টাকা। যাচাই অনুসন্ধানকালে তার আয়ের স্বপক্ষে গ্রহণযোগ্য কোন উৎস পাওয়া যায় নি। অর্থাৎ যাচাই/অনুসন্ধানকালে আসামী রেকা হোসেনের ৭৭,৭৮,৬০২.০০ (সাতাত্তর লক্ষ আটাত্তর হাজার ছয়শত দুই) টাকার জ্ঞাত আয়ের উৎসের সহিত অসংগতিপূর্ণ সম্পদের অর্জন করেছেন দুর্নীতি দমন কমিশন আইন-২০০৪ এর ২৭(১) ধারায় শাস্তিযোগ্য অপরাধ করছেন বিধায় মুহাম্মদ জাফর সাদেক শিবলী, সহকারি পরিচালক (বি: অনু: ও তদন্ত করে দুর্নীতি দমন কমিশন, প্রধান কার্যালয়, ঢাকা বাদী হয়ে তার বিরুদ্ধে দুদক,সজেকা, ঢাকা-১ এ আজ একটি মামলা দায়ের করেন।

বিজনেস বাংলাদেশ/ হাবিব