ঢাকা সকাল ১১:৪৮, শুক্রবার, ২৭শে জানুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, ১৩ই মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ভার্সিটির ছাত্রী নিহতের ঘটনায় চালক-হেলপার আটক

রাজধানীর ভাটারায় যাত্রাবাহী বাস ‘ভিক্টর পরিবহনের’ ধাক্কায় নর্দান ইউনিভার্সিটির ছাত্রী নাদিয়া আক্তার (২৪) নিহত হওয়ার ঘটনায় চালক লিটন (৩৮) ও হেলপার আবুল খায়েরকে (২২) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সোমবার ২৩ জানুয়ারি সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ভাটারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এবিএম আসাদুজ্জামান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ওসি জানান, নিহত নাদিয়ার বাবা জাহাঙ্গীর আলম বাদী হয়ে ভাটারা থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় ভিক্টর পরিবহনের ওই বাসটির চালক ও হেলপারকে আসামি করা হয়। ওই মামলাতেই আজ সকাল ৮টা ২২ মিনিটে মিরপুর এলাকা থেকে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়।

রোববার দুপুর পৌনে ‌১টার দিকে ভাটারা এলাকায় ওই বাস একটি মোটরসাইকেলকে ধাক্কা দেয়। এ সময় মোটরসাইকেলের পেছনে থাকা নাদিয়ার মৃত্যু হয়। আহত হয় তার বন্ধু মেহেদী হাসান। নিহত নাদিয়া ওই ইউনিভার্সিটির ফার্মেসি বিভাগের প্রথম সেমিস্টারের ছাত্রী। তার বাড়ি নারায়গঞ্জের ফতুল্লা থানার চাষাড়ায়। এক সপ্তাহ আগে উত্তরায় একটি হোস্টেলে উঠেছিলেন নাদিয়া।

এ দুর্ঘটনার পর পর কাওলা এলাকায় সড়ক অবরোধ করেন নর্দার্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। নিহত নাদিয়ার পরিবারকে ক্ষতিপূরণ দেওয়া, ভিক্টর পরিবহনের রুট পারমিট বাতিল এবং কাওলা এলাকায় বাস স্টপেজের দাবিতে বিক্ষোভ দেখান। তাদের দাবির বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিলে সন্ধ্যায় তারা সড়ক থেকে সরে যান।

বিজনেস বাংলাদেশ/ হাবিব

এ বিভাগের আরও সংবাদ