০২:১০ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪

ব্যর্থ সাকিব, এলেন আর গেলেন লিটন

গেল বছরের এপ্রিলে সর্বশেষ টেস্ট ম্যাচ খেলেছিলেন সাকিব আল হাসান। এরপর আর সাদা পোশাকে দেখা যায়নি টাইগার এই তারকাকে। তবে চলমান শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দ্বিতীয় টেস্ট দিয়ে আবারও টেস্ট দলে ফিরেছিলেন সাকিব। দলে ফেরার পর প্রথম ইনিংসে বল হাতে সাফল্য পেলেও ব্যর্থ হয়েছেন ব্যাট হাতে।

প্রথম ইনিংসে বল হাতে সাকিব তুলে নিয়েছেন ৩ উইকেট। তবে ব্যাট হাতে টাইগার এই ক্রিকেটার করতে পেরেছেন মোটে ১৫ রান। ক্রিজে এসে সাবলীলভাবে ব্যাট করতে থাকলেও লঙ্কান পেসার আসিথা ফার্নান্দোর বলে লেগ বিফোরের ফাঁদে পড়েন সাকিব। ফলে থিতু হয়েও দ্রুত বিদায় নিতে হয় টাইগার এই অলরাউন্ডারকে।

এদিকে সাকিবের বিদায়ের পর ক্রিজে এসেছিলেন লিটন দাস। তবে এদিনও টিকতে পারেননি তিনি। ৩ বল ব্যাপ্তির ইনিংসে রান করেছেন ৪। সাকিবের পর একই ওভারে লিটনকেও ফেরালেন আসিথা ফার্নান্দো। প্রথম বল ডিফেন্ড করেছিলেন লিটন। এরপরের বলে দারুণ ড্রাইভে চার। পরের বলে খোঁচা দিতে গিয়ে বিপদ ডেকে আনলেন। উইকেটের পেছনে ভালো ক্যাচ নিয়েছেন কুশাল মেন্ডিস।

গেল টেস্টের দ্বিতীয় ইনিংসে বাজেভাবে আউটের পর সমালোচনার মুখে পড়েন লিটন। সেই সমালোচনার রেশ না কাটতেই আবারো ব্যাট হাতে ব্যর্থ দেশের এই তারকা ব্যাটার। এদিকে, পরপর দুই ব্যাটারকে হারিয়ে চট্টগ্রামে ফলো-অনের শঙ্কায় বাংলাদেশ। ফলো-অনের নিয়ম অনুযায়ী এই মুহূর্তে বাংলাদেশের দরকার ১৯৯ রান।

এমসিসির ১৪.১.১ আইন অনুযায়ী, ৫ দিনের টেস্টে কোন দলের তুলনায় ২০০ বা তারচেয়ে বেশি লিড পেলেই একটি দল তার প্রতিপক্ষকে ফলো-অনে পাঠাতে পারে। সেই হিসেবে ৫৩১ রান করা শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ফলো-অন এড়াতে বাংলাদেশের দরকার ৩৩১ রান। এই প্রতিবেদন পর্যন্ত বাংলাদেশের স্কোর ১৩২। উইকেট হারিয়েছে ৬টি। ক্রিজে আছেন দুই ব্যাটার শাহাদাত হোসেন দীপু এবং মুমিনুল হক।

বিজনেস বাংলাদেশ/একে

জনপ্রিয়

ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে কর্মসংস্থান ব্যাংকের নবনিযুক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালকের শ্রদ্ধা জ্ঞাপন

ব্যর্থ সাকিব, এলেন আর গেলেন লিটন

প্রকাশিত : ০১:৪৫:১৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ১ এপ্রিল ২০২৪

গেল বছরের এপ্রিলে সর্বশেষ টেস্ট ম্যাচ খেলেছিলেন সাকিব আল হাসান। এরপর আর সাদা পোশাকে দেখা যায়নি টাইগার এই তারকাকে। তবে চলমান শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দ্বিতীয় টেস্ট দিয়ে আবারও টেস্ট দলে ফিরেছিলেন সাকিব। দলে ফেরার পর প্রথম ইনিংসে বল হাতে সাফল্য পেলেও ব্যর্থ হয়েছেন ব্যাট হাতে।

প্রথম ইনিংসে বল হাতে সাকিব তুলে নিয়েছেন ৩ উইকেট। তবে ব্যাট হাতে টাইগার এই ক্রিকেটার করতে পেরেছেন মোটে ১৫ রান। ক্রিজে এসে সাবলীলভাবে ব্যাট করতে থাকলেও লঙ্কান পেসার আসিথা ফার্নান্দোর বলে লেগ বিফোরের ফাঁদে পড়েন সাকিব। ফলে থিতু হয়েও দ্রুত বিদায় নিতে হয় টাইগার এই অলরাউন্ডারকে।

এদিকে সাকিবের বিদায়ের পর ক্রিজে এসেছিলেন লিটন দাস। তবে এদিনও টিকতে পারেননি তিনি। ৩ বল ব্যাপ্তির ইনিংসে রান করেছেন ৪। সাকিবের পর একই ওভারে লিটনকেও ফেরালেন আসিথা ফার্নান্দো। প্রথম বল ডিফেন্ড করেছিলেন লিটন। এরপরের বলে দারুণ ড্রাইভে চার। পরের বলে খোঁচা দিতে গিয়ে বিপদ ডেকে আনলেন। উইকেটের পেছনে ভালো ক্যাচ নিয়েছেন কুশাল মেন্ডিস।

গেল টেস্টের দ্বিতীয় ইনিংসে বাজেভাবে আউটের পর সমালোচনার মুখে পড়েন লিটন। সেই সমালোচনার রেশ না কাটতেই আবারো ব্যাট হাতে ব্যর্থ দেশের এই তারকা ব্যাটার। এদিকে, পরপর দুই ব্যাটারকে হারিয়ে চট্টগ্রামে ফলো-অনের শঙ্কায় বাংলাদেশ। ফলো-অনের নিয়ম অনুযায়ী এই মুহূর্তে বাংলাদেশের দরকার ১৯৯ রান।

এমসিসির ১৪.১.১ আইন অনুযায়ী, ৫ দিনের টেস্টে কোন দলের তুলনায় ২০০ বা তারচেয়ে বেশি লিড পেলেই একটি দল তার প্রতিপক্ষকে ফলো-অনে পাঠাতে পারে। সেই হিসেবে ৫৩১ রান করা শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ফলো-অন এড়াতে বাংলাদেশের দরকার ৩৩১ রান। এই প্রতিবেদন পর্যন্ত বাংলাদেশের স্কোর ১৩২। উইকেট হারিয়েছে ৬টি। ক্রিজে আছেন দুই ব্যাটার শাহাদাত হোসেন দীপু এবং মুমিনুল হক।

বিজনেস বাংলাদেশ/একে