০৯:৫০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪
এমপি আজীমের মেয়ে

সুযোগ পেলে অবশ্যই রাজনীতি করবো, বাবা হত্যার বিচার চাই

ছবি-সংগৃহীত

ভারতের নিউ টাউনে খুন হওয়া ঝিনাইদহ-৪ (কালীগঞ্জ) আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য ও কালীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ারুল আজীম আনারের মেয়ে মুমতারিন ফেরদৌস ডরিন ঢাকা থেকে বৃহস্পতিবার রাতে কালীগঞ্জে পৌঁছেছেন।

শুক্রবার (২৪ মে) দুপুরে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘হত্যার পরিকল্পনাকারীকে ধরার পরই খতিয়ে দেখা যাবে আসলে কী জন্য সে এত বড় অপকর্ম ঘটালো। এর বিচার অবশ্যই হবে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী তার বাবা হত্যার বিচার করেছেন তাহলে আমার বাবা হত্যারও বিচার তিনি অবশ্যই করবেন। বাবা জীবিত থাকতে বুঝি নাই বাবা কতটা জনপ্রিয় ছিলেন। বাবা হত্যার বিচার চাইতে গিয়ে দেখেছি বাবাকে মানুষ কতটা ভালোবাসে। যেখানে গিয়েছি সবার ভালোবাসা পেয়েছি, সেটা একমাত্র বাবার কারণে।’

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘সুযোগ পেলে অবশ্যই রাজনীতি করবো, তবে সেটা নিয়ে এখন ভাবছি না। প্রধানমন্ত্রীর সাথে আমি কথা বলেছি। তিনি আমাকে আশ্বস্ত করেছেন বাবা হত্যার বিচার তিনি করবেন। তিনি আমার পাশে থেকে সব সহযোগিতা করে যাচ্ছেন। তিনি এখন আমার একমাত্র অভিভাবক। ’

তিনি আরও বলেন, দিল্লি হাইকমিশনসহ সবার সঙ্গে আমার কথা হচ্ছে। ওখানকার অনেক বড় বড় কর্মকর্তা আমাকে ফোন দিয়েছেন। তারা নিজেরাই এ বিষয়টা দেখছেন। তারা চেষ্টা করছেন কিছু না কিছু বের করবেন।

এ সময় উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আয়ুব হোসেন খান, সহ-সভাপতি শামীম আরা মান্নান, কালীগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আশরাফুল আলম উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে, এমপি আনার হত্যায় উপজেলার প্রতিটি মসজিদে মাগফেরাত কামনায় দোয়া অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বিজনেস বাংলাদেশ/DS

ট্যাগ :
জনপ্রিয়

এমপি আজীমের মেয়ে

সুযোগ পেলে অবশ্যই রাজনীতি করবো, বাবা হত্যার বিচার চাই

প্রকাশিত : ০৬:৪২:১৩ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪

ভারতের নিউ টাউনে খুন হওয়া ঝিনাইদহ-৪ (কালীগঞ্জ) আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য ও কালীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ারুল আজীম আনারের মেয়ে মুমতারিন ফেরদৌস ডরিন ঢাকা থেকে বৃহস্পতিবার রাতে কালীগঞ্জে পৌঁছেছেন।

শুক্রবার (২৪ মে) দুপুরে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘হত্যার পরিকল্পনাকারীকে ধরার পরই খতিয়ে দেখা যাবে আসলে কী জন্য সে এত বড় অপকর্ম ঘটালো। এর বিচার অবশ্যই হবে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী তার বাবা হত্যার বিচার করেছেন তাহলে আমার বাবা হত্যারও বিচার তিনি অবশ্যই করবেন। বাবা জীবিত থাকতে বুঝি নাই বাবা কতটা জনপ্রিয় ছিলেন। বাবা হত্যার বিচার চাইতে গিয়ে দেখেছি বাবাকে মানুষ কতটা ভালোবাসে। যেখানে গিয়েছি সবার ভালোবাসা পেয়েছি, সেটা একমাত্র বাবার কারণে।’

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘সুযোগ পেলে অবশ্যই রাজনীতি করবো, তবে সেটা নিয়ে এখন ভাবছি না। প্রধানমন্ত্রীর সাথে আমি কথা বলেছি। তিনি আমাকে আশ্বস্ত করেছেন বাবা হত্যার বিচার তিনি করবেন। তিনি আমার পাশে থেকে সব সহযোগিতা করে যাচ্ছেন। তিনি এখন আমার একমাত্র অভিভাবক। ’

তিনি আরও বলেন, দিল্লি হাইকমিশনসহ সবার সঙ্গে আমার কথা হচ্ছে। ওখানকার অনেক বড় বড় কর্মকর্তা আমাকে ফোন দিয়েছেন। তারা নিজেরাই এ বিষয়টা দেখছেন। তারা চেষ্টা করছেন কিছু না কিছু বের করবেন।

এ সময় উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আয়ুব হোসেন খান, সহ-সভাপতি শামীম আরা মান্নান, কালীগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আশরাফুল আলম উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে, এমপি আনার হত্যায় উপজেলার প্রতিটি মসজিদে মাগফেরাত কামনায় দোয়া অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বিজনেস বাংলাদেশ/DS