০৬:১৭ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪

অস্ত্র নিয়ে ভোটকেন্দ্রে প্রবেশ, এজেন্টের ৬ মাসের কারাদণ্ড

সুনামগঞ্জের দোয়ারা সরকারি মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের ভোটকেন্দ্রে দেশীয় অস্ত্রসহ চেয়ারম্যান প্রার্থীর এক এজেন্ট প্রবেশ করায় তাকে আটক করেছে পুলিশ।

বুধবার (২৯ মে) সকালে ওই ভোটকেন্দ্রের ৭নং কক্ষ থেকে আটক করা হয় ওই এজেন্টকে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে দোয়ারাবাজার সরকারি মডেল উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার মুজিবুর রহমান।

আটককৃত ওই এজেন্টের নাম মাসুক মিয়া। তিনি মুরাদপুর গ্রামের বাসিন্দা।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বুধবার সকাল ৮টা থেকে সুনামগঞ্জের দোয়ারা বাজার উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শুরু হয়। উপজেলার সরকারি মডেল উচ্চ বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রের ৭নং কক্ষে চেয়ারম্যান প্রার্থী আরিফুল ইসলাম জুয়েলের পক্ষে এজেন্টের দায়িত্ব পালন করেন মাসুক মিয়া। এ সময় দেশীয় অস্ত্র দিয়ে অভিযুক্ত মাসুক মিয়া ভোট কক্ষের ভেতরে থাকা অন্য চেয়ারম্যান প্রার্থীর এজেন্টদের ভয় দেখান।

পরে ওই কক্ষ পরিদর্শনে আসেন সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আব্দুল হালিম। তার কাছে ওই এজেন্টের আচরণ সন্দেহজনক মনে হলে তাকে আটক করে তল্লাশির নির্দেশ দেন তিনি।

পরে পুলিশ তার শরীর তল্লাশি করে ধারালো দেশীয় অস্ত্র (চায়নিজ চাকু) উদ্ধার করে। সেখানে উপস্থিত থাকা সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আব্দুল হালিম তাকে ৬ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড ও ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

এ বিষয়ে দোয়ারাবাজার সরকারি মডেল উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার মুজিবুর রহমান বলেন, ‘দেশীয় অস্ত্র নিয়ে ভোটকেন্দ্রে আসায় এক চেয়ারম্যান প্রার্থীর এজেন্টকে আটক করে ৬ মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। এরইমধ্যে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।’

বিজনেস বাংলাদেশ/একে

জনপ্রিয়

অস্ত্র নিয়ে ভোটকেন্দ্রে প্রবেশ, এজেন্টের ৬ মাসের কারাদণ্ড

প্রকাশিত : ১২:৩৬:২০ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৯ মে ২০২৪

সুনামগঞ্জের দোয়ারা সরকারি মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের ভোটকেন্দ্রে দেশীয় অস্ত্রসহ চেয়ারম্যান প্রার্থীর এক এজেন্ট প্রবেশ করায় তাকে আটক করেছে পুলিশ।

বুধবার (২৯ মে) সকালে ওই ভোটকেন্দ্রের ৭নং কক্ষ থেকে আটক করা হয় ওই এজেন্টকে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে দোয়ারাবাজার সরকারি মডেল উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার মুজিবুর রহমান।

আটককৃত ওই এজেন্টের নাম মাসুক মিয়া। তিনি মুরাদপুর গ্রামের বাসিন্দা।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বুধবার সকাল ৮টা থেকে সুনামগঞ্জের দোয়ারা বাজার উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শুরু হয়। উপজেলার সরকারি মডেল উচ্চ বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রের ৭নং কক্ষে চেয়ারম্যান প্রার্থী আরিফুল ইসলাম জুয়েলের পক্ষে এজেন্টের দায়িত্ব পালন করেন মাসুক মিয়া। এ সময় দেশীয় অস্ত্র দিয়ে অভিযুক্ত মাসুক মিয়া ভোট কক্ষের ভেতরে থাকা অন্য চেয়ারম্যান প্রার্থীর এজেন্টদের ভয় দেখান।

পরে ওই কক্ষ পরিদর্শনে আসেন সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আব্দুল হালিম। তার কাছে ওই এজেন্টের আচরণ সন্দেহজনক মনে হলে তাকে আটক করে তল্লাশির নির্দেশ দেন তিনি।

পরে পুলিশ তার শরীর তল্লাশি করে ধারালো দেশীয় অস্ত্র (চায়নিজ চাকু) উদ্ধার করে। সেখানে উপস্থিত থাকা সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আব্দুল হালিম তাকে ৬ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড ও ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

এ বিষয়ে দোয়ারাবাজার সরকারি মডেল উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার মুজিবুর রহমান বলেন, ‘দেশীয় অস্ত্র নিয়ে ভোটকেন্দ্রে আসায় এক চেয়ারম্যান প্রার্থীর এজেন্টকে আটক করে ৬ মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। এরইমধ্যে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।’

বিজনেস বাংলাদেশ/একে