ঢাকা বিকাল ৪:৪৩, বৃহস্পতিবার, ৮ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ২৩শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ছয়ে ওঠার সুযোগ বাংলাদেশের

টেস্ট সিরিজের ব্যর্থতা ভুলে ওয়ানডেতে ঘুরে দাঁড়ানোর স্বপ্ন দেখছে টিম বাংলাদেশ। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে মুখোমুখি হওয়ার আগে আইসিসি ওয়ানডে র‌্যাংকিংয়ে সপ্তম স্থানে আছে মাশরাফি বিন মুর্তজার দল। তিন ম্যাচের সিরিজে ভালো পারফরম্যান্স উপহার দিতে পারলে র‌্যাংকিংয়ে এক ধাপ এগিয়ে ছয় নম্বরে উঠতে পারবে বাংলাদেশ।
টিম বাংলাদেশের রেটিং পয়েন্ট এখন ৯৪। মাত্র এক পয়েন্ট বেশি নিয়ে অর্থ্যাৎ ৯৫ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে ছয় নম্বর জায়গাটি দখল করেছে পাকিস্তান। ৮৬ পয়েন্ট নিয়ে অষ্টম স্থানে রয়েছে শ্রীলঙ্কা। দক্ষিণ আফ্রিক ও বাংলাদেশের মধ্যকার ওয়ানডে সিরিজের পাশাপাশি প্রায় একই সময়ে পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ খেলবে শ্রীলঙ্কা ও পাকিস্তান। তাই র‌্যাংকিংয়ের এই তিনটি স্থানেই বড় রদবদলের সম্ভাবনা দেখা যাচ্ছে।
দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষের তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজ বাংলাদেশের জন্য বড় একটা সুযোগ। এই সিরিজে স্বাগতিকদের ৩-০ ব্যবধানে হারাতে পারে তাহলে বাংলাদেশের রেটিং পয়েন্ট হবে ১০০। মাশরাফির দল ওঠে যাবে র‍্যাংকিংয়ের ষষ্ঠ স্থানে। সেই সঙ্গে পাকিস্তানের চলে যাবে একেবারে ধরাছোঁয়ার বাইরে। তবে পাকিস্তান ষষ্ঠ স্থানেই থাকবে যদি তারা ৫-০ কিংবা ৪-১ ব্যবধানে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজ জিতে যায়।
র‍্যাংকিংয়ে যেমন উন্নতি করার সুযোগ রয়েছে ঠিক তেমনি পারফরম্যান্স বাজে হলে অবনতির সম্ভাবনাও রয়েছে বাংলাদেশের। দক্ষিণ আফ্রিকার কাছে ৩-০ ব্যবধানে হোয়াইটওয়াশ হলে বাংলাদেশের রেটিং পয়েন্ট হবে ৯২। তবে শ্রীলঙ্কা যদি পাকিস্তানকে ৫-০ ব্যবধানে হারাতে পারে তাহলে লঙ্কানদের পয়েন্ট হবে ৯১। আর পাকিস্তানের পয়েন্ট হবে ৮৯। এই সমীকরণেও বাংলাদেশ র‌্যাংকিংয়ের ষষ্ঠ স্থানে উঠেতে পারে।
বাংলাদেশ যদি প্রোটিয়াদের কাছে ২-১ ব্যবধানে সিরিজ হারে তাহলে বাংলাদেশের পয়েন্ট হবে ৯৫। আর বাংলাদেশ যদি দক্ষিণ আফ্রিকাকে ২-১ ব্যবধানে ওয়ানডে সিরিজে পরাজিত করতে পারে এবং শ্রীলঙ্কার যদি ৩-২ এর বেশি ব্যবধানে না হারে সেক্ষেত্রে আইসিসি চ্যাম্পিয়নস ট্রফি জয়ী পাকিস্তানকে টপকে র‍্যাংকিংয়ের ছয় নম্বরে ওঠে আসবে টিম বাংলাদেশ।

এ বিভাগের আরও সংবাদ