০১:৩৫ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪

বিকি বিলের লাল শাপলা আহরণে প্রশাসনের নিষেধাজ্ঞা জারি

সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার মেঘালয় পাহাড়ের পাদদেশে পর্যটন সম্ভাবনাময় লাল শাপলার বিকি বিলের সৌন্দর্য রক্ষায় উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ হতে মাইকিং করা হয়েছে।

রবিবার (১৮অক্টোবর) উপজেলার বড়দল উত্তর ইউনিয়নের কাশতাল গ্রামের পাশে পর্যটনের অপার সম্ভাবনাময় লাল শাপলার বিকি বিলের সৌন্দর্য রক্ষা ও জনস্বার্থে ঐ এলাকায় উপজেলা প্রশাসন পক্ষ থেকে সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত মাইকিং করা হয়।

সম্প্রতি বিকি বিলে স্থানীয় কিছু মানুষ গরু মহিষের খাদ্য হিসাবে পর্যটনের অপার সম্ভাবনাময় বিকি বিলের লাল শাপলা ডাটাসহ তুলে নেওয়ার কারনে বিকি বিলের সৌন্দর্য হানি হচ্ছে এমন সংবাদ প্রকাশিত হলে বিকি বিলের লাল শাপলা ডাটাসহ আহরণে
প্রশাসনের এই নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়।

মাইকিংয়ে বলা হয়-সম্প্রতি স্থানীয় কিছু ব্যাক্তি কর্তৃক গরু-মহিষের খাদ্য হিসাবে পর্যটন সম্ভাবনাময় এলাকা বিকি বিলের শাপলা ফুল ডাটাসহ তুলে নেওয়ার কারণে বিলের সৌন্দর্য হানি হচ্ছে এবস্থায় বিকি বিলের সৌন্দর্য রক্ষার্থে ও জনস্বার্থে বিকি বিল থেকে ডাটাসহ শাপলা আহরণে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হল। এই আদেশ অমান্যকারীদেরকে আইনের আওতায় আনা হবে।

জানা যায়,বিকি বিলটি উপজেলার উত্তর বড়দল ইউনিয়নের কাশতাল এলাকায় অবস্থিত লাল শাপলার বিকি বিল হলহলিয়ার চক ও দিঘলবাঁক মৌজার প্রায় ১৪.৯৫ একর জায়গা নিয়ে গঠিত। সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আব্দুল আহাদ গত বছর ১২অক্টোবর ২০১৯সালে লাল শাপলার বিকি বিলকে উপজেলার নতুন পর্যটন এলাকা হিসাবে ঘোষণা করেছিলেন। পর্যটকদের ভ্রমণের জন্য নতুন এলাকা হিসেবে বিকি বিলে একটি সাইনবোর্ড টানিয়ে দেন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার পদ্মাসন সিংহ জানান,প্রকৃতির সৌন্দর্যের অংশ বিকি বিল,যেখানে লাল শাপলার চোখদাধানো দৃশ্য দেখে মুগ্ধ হন পর্যটক ও দর্শনার্থীরা প্রতি বছর। কিছু লোক শাপলা ফুল ডাটাসহ তুলে নেওয়ার কারণে বিলের সৌন্দর্য নষ্ট হচ্ছে। তাই বিকি বিলের সৌন্দর্য রক্ষার্থে শাপলা ফুল ডাটাসহ তুলে না নেয় তার জন্য সবাইকে সর্তকতা অবলম্বন করতেই মাইকিং করে জানানো হয়েছে। এ নির্দেশনা অমান্যকারীদেরকে আইনের আওতায় আনা হবে।

বিজনেস বাংলাদেশ/ এ আর

মেঘনা ধনাগোদা সেচ প্রকল্প বেড়ীবাঁধ সড়কে আবারও ছোট বড় গর্তের সৃষ্টি

বিকি বিলের লাল শাপলা আহরণে প্রশাসনের নিষেধাজ্ঞা জারি

প্রকাশিত : ০৭:২৫:২৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৮ অক্টোবর ২০২০

সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার মেঘালয় পাহাড়ের পাদদেশে পর্যটন সম্ভাবনাময় লাল শাপলার বিকি বিলের সৌন্দর্য রক্ষায় উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ হতে মাইকিং করা হয়েছে।

রবিবার (১৮অক্টোবর) উপজেলার বড়দল উত্তর ইউনিয়নের কাশতাল গ্রামের পাশে পর্যটনের অপার সম্ভাবনাময় লাল শাপলার বিকি বিলের সৌন্দর্য রক্ষা ও জনস্বার্থে ঐ এলাকায় উপজেলা প্রশাসন পক্ষ থেকে সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত মাইকিং করা হয়।

সম্প্রতি বিকি বিলে স্থানীয় কিছু মানুষ গরু মহিষের খাদ্য হিসাবে পর্যটনের অপার সম্ভাবনাময় বিকি বিলের লাল শাপলা ডাটাসহ তুলে নেওয়ার কারনে বিকি বিলের সৌন্দর্য হানি হচ্ছে এমন সংবাদ প্রকাশিত হলে বিকি বিলের লাল শাপলা ডাটাসহ আহরণে
প্রশাসনের এই নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়।

মাইকিংয়ে বলা হয়-সম্প্রতি স্থানীয় কিছু ব্যাক্তি কর্তৃক গরু-মহিষের খাদ্য হিসাবে পর্যটন সম্ভাবনাময় এলাকা বিকি বিলের শাপলা ফুল ডাটাসহ তুলে নেওয়ার কারণে বিলের সৌন্দর্য হানি হচ্ছে এবস্থায় বিকি বিলের সৌন্দর্য রক্ষার্থে ও জনস্বার্থে বিকি বিল থেকে ডাটাসহ শাপলা আহরণে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হল। এই আদেশ অমান্যকারীদেরকে আইনের আওতায় আনা হবে।

জানা যায়,বিকি বিলটি উপজেলার উত্তর বড়দল ইউনিয়নের কাশতাল এলাকায় অবস্থিত লাল শাপলার বিকি বিল হলহলিয়ার চক ও দিঘলবাঁক মৌজার প্রায় ১৪.৯৫ একর জায়গা নিয়ে গঠিত। সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আব্দুল আহাদ গত বছর ১২অক্টোবর ২০১৯সালে লাল শাপলার বিকি বিলকে উপজেলার নতুন পর্যটন এলাকা হিসাবে ঘোষণা করেছিলেন। পর্যটকদের ভ্রমণের জন্য নতুন এলাকা হিসেবে বিকি বিলে একটি সাইনবোর্ড টানিয়ে দেন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার পদ্মাসন সিংহ জানান,প্রকৃতির সৌন্দর্যের অংশ বিকি বিল,যেখানে লাল শাপলার চোখদাধানো দৃশ্য দেখে মুগ্ধ হন পর্যটক ও দর্শনার্থীরা প্রতি বছর। কিছু লোক শাপলা ফুল ডাটাসহ তুলে নেওয়ার কারণে বিলের সৌন্দর্য নষ্ট হচ্ছে। তাই বিকি বিলের সৌন্দর্য রক্ষার্থে শাপলা ফুল ডাটাসহ তুলে না নেয় তার জন্য সবাইকে সর্তকতা অবলম্বন করতেই মাইকিং করে জানানো হয়েছে। এ নির্দেশনা অমান্যকারীদেরকে আইনের আওতায় আনা হবে।

বিজনেস বাংলাদেশ/ এ আর