ঢাকা রাত ৯:২২, শুক্রবার, ১২ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ২৮শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী দিনে উৎসবে মাতবে টাঙ্গাইল

শনিবার বহুল কাক্সিক্ষত পদ্মা সেতু উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সেতুর উদ্বোধন নিয়ে তাই সবার বাঁধভাঙা উচ্ছ্বাস। দিনটি স্মরণীয় করে রাখতে উৎসবে মাতবে টাঙ্গাইল। জেলা প্রশাসন ও দলীয়ভাবে নানা কর্মসূচির আয়োজন করা হয়েছে। সারা দেশের ন্যায় টাঙ্গাইলেও চলছে উৎসবের আমেজ।

জেলা প্রশাসক ড. মো. আতাউল গনি জানান, পদ্মা সেতু উদ্বোধনের দিন জেলার সকল মসজিদে বাদ ফজর দোয়া ও সুবিধাজনক সময়ে মন্দির, গীর্জা, প্যাগোডা ও অন্যান্য উপাসনালয়ে প্রার্থনা করা হবে। সকালে শহরের শহীদ স্মৃতি পৌরউদ্যানে বড় পর্দায় উদ্বোধন অনুষ্ঠান উপভোগ করা হবে। ইতিমধ্যে পৌরউদ্যানটি ব্যানার ফেসটুনসহ বিভিন্ন সাজ করা হয়েছে। এ অনুষ্ঠানে সরকারি বেসরকারি দপ্তরসহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ১০ সহশ্রাধিক মানুষ অংশ নিবেন। শেষে বর্ণাঢ্য সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান এবং জয় বাংলা আশ্রয়ণ সাংস্কৃতিক সংসদের পরিবেশনায় বাউশা আশ্রয়ণ প্রকল্পে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও আনন্দভোজের আয়োজন করা হয়েছে। টাঙ্গাইলে জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ‘পদ্মা সেতু ফুটবল প্রতিযোগিতার’ আয়োজন করা হয়েছে। টাঙ্গাইল স্টেডিয়ামের আয়োজিত প্রতিযোগিতা অংশ গ্রহণ করবে জেলা প্রশাসন একাদশ বনাম টাঙ্গাইল পৌরসভা একাদশ। এছাড়াও উপজেলা পর্যায়েও এই পদ্মা সেতু ফুটবল প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে।

এছাড়াও টাঙ্গাইল কারাগারের দেড় হাজার বন্দি ও টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালের ৭০০ রোগীকে উন্নত মানের খাবার দেবে জেলা প্রশাসন। অপরদিকে আশ্রয়ণ প্রকল্পের শিশু ও বাসিন্দাদের মধ্যে খাবারের পাশাপাশি নতুন পোশাক বিতরণ করা হবে। সন্ধ্যায় বিন্দুবাসিনী সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ে আতশবাজি করা হবে। ইতিমধ্যে জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে রোগীদের সুবিধার্থে ৩৫ টি সিলিং ফ্যান প্রদান করা হয়েছে।

জেলা প্রশাসক ড. মো. আতাউল গনি বলেন, স্বাধীনতার পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বড় প্রকল্প বাস্তবায়ন হচ্ছে। তাই টাঙ্গাইলের সরকারি বেসরকারি দপ্তর গুলো উৎসবে মাতবে। জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে।

বিজনেস বাংলাদেশ/ এ আর

এ বিভাগের আরও সংবাদ