০১:১৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪

প্রধানমন্ত্রীকে শুভেচ্ছা জানিয়ে চালকদের মিষ্টি বিতরণ

রাজধানীতে ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা—ইজিবাইক ও মিশুক বন্ধের সিদ্ধান্ত বাতিলের ঘোষণার পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়ে আনন্দ মিছিল ও মিষ্টি বিতরণ করেছেন চালকরা।

সোমবার (২০ মে) বিকেলে ডেমরার মূল পয়েন্ট স্টাফ কোয়ার্টার—হাজীনগর এলাকায় এ আনন্দ মিছিল ও মিষ্টি বিতরণ করেন স্থানীয় স্ট্যান্ড নেতারাসহ চালকরা।

এদিন স্টাফ কোয়ার্টার সিএনজি—অটোরিকশা স্ট্যান্ড কমিটির সভাপতি মো. শাহজাহান হাওলাদার নেতৃত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মাহফুজ আহম্মেদ সরশ আলীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত পথসভায় অটোরিকশা সংশ্লিষ্ট নেতাকর্মী ও চালকরা বঙ্গবন্ধু ও শেখ হাসিনার প্রতি গভীর শ্রদ্ধা ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন। পরে শেখ হাসিনার দীর্ঘায়ু কামনা চালকদের মিষ্টি বিতরণ করা হয়েছে।

এসময় চালক ও নেতাকর্মীরা বলেন, “বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের মেয়ে বলেই দরিদ্র খেটে খাওয়া মানুষের পেটে লাথি মারেননি শেখ হাসিনা। আমরা অটোরিকশাচালকরা হাইওয়েতে উঠি না। এলাকার অভ্যন্তরের সড়কে সাধারণ মানুষদের নিয়ে চলাচল করি। এতে সরকারের কোনো প্রকার ক্ষতি হবে না। যদি ক্ষতি হয়, তবে বিকল্প ব্যবস্থার উদ্যোগ নিলে আমরা সে অনুযায়ী জীবিকা নির্বাহ করব।”

এর আগে স্বল্প আয়ের মানুষের কথা বিবেচনা করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রাজধানীতে ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা চালুর রাখার নির্দেশ দিয়েছেন বলে জানান আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

সোমবার দুপুরে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে আওয়ামী ওলামা লীগের প্রথম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর সমাবেশে তিনি এ তথ্য জানান।

ওবায়দুল কাদের বলেন, “ঢাকা শহরে ব্যাটারিচালিত তিন চাকার অটোরিকশা বন্ধের ব্যাপারে নেওয়া সিদ্ধান্ত মন্ত্রিসভার বৈঠকে বাতিল করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।”

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, “বর্তমান বাজার পরিস্থিতি বিবেচনায় নিয়ে স্বল্প আয়ের মানুষের সুবিধার জন্য সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করেছেন সরকার প্রধান।”

গত ১৫ মে রাজধানীর অলিগলিতে দাপিয়ে বেড়ানো বিপজ্জনক ব্যাটারিচালিত রিকশা বন্ধের নির্দেশ দেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী। পরে বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট অথরিটি (বিআরটিএ) জানায়, ঢাকা মহানগরীতে ব্যাটারি অথবা মোটরচালিত রিকশা বা ভ্যান এবং রংচটা, জরাজীর্ণ, লক্কড়-ঝক্কড় মোটরযান চালানো বন্ধ করা না হলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এই নির্দেশনার পর রোববার (১৯ মে) থেকে রাজধানীর মিরপুরসহ বিভিন্ন স্থানে বিক্ষোভ করেন অটোরিকশা চালকরা। কালশীর একটি পুলিশ বক্সে আগুনও দেওয়া হয়। সোমবারও রাজধানীর রামপুরাসহ বিভিন্ন স্থানে বিক্ষোভ করেছেন তারা।

বিজনেস বাংলাদেশ/BH

ট্যাগ :
জনপ্রিয়

প্রধানমন্ত্রীকে শুভেচ্ছা জানিয়ে চালকদের মিষ্টি বিতরণ

প্রকাশিত : ০৭:৩৪:৩১ অপরাহ্ন, সোমবার, ২০ মে ২০২৪

রাজধানীতে ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা—ইজিবাইক ও মিশুক বন্ধের সিদ্ধান্ত বাতিলের ঘোষণার পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়ে আনন্দ মিছিল ও মিষ্টি বিতরণ করেছেন চালকরা।

সোমবার (২০ মে) বিকেলে ডেমরার মূল পয়েন্ট স্টাফ কোয়ার্টার—হাজীনগর এলাকায় এ আনন্দ মিছিল ও মিষ্টি বিতরণ করেন স্থানীয় স্ট্যান্ড নেতারাসহ চালকরা।

এদিন স্টাফ কোয়ার্টার সিএনজি—অটোরিকশা স্ট্যান্ড কমিটির সভাপতি মো. শাহজাহান হাওলাদার নেতৃত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মাহফুজ আহম্মেদ সরশ আলীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত পথসভায় অটোরিকশা সংশ্লিষ্ট নেতাকর্মী ও চালকরা বঙ্গবন্ধু ও শেখ হাসিনার প্রতি গভীর শ্রদ্ধা ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন। পরে শেখ হাসিনার দীর্ঘায়ু কামনা চালকদের মিষ্টি বিতরণ করা হয়েছে।

এসময় চালক ও নেতাকর্মীরা বলেন, “বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের মেয়ে বলেই দরিদ্র খেটে খাওয়া মানুষের পেটে লাথি মারেননি শেখ হাসিনা। আমরা অটোরিকশাচালকরা হাইওয়েতে উঠি না। এলাকার অভ্যন্তরের সড়কে সাধারণ মানুষদের নিয়ে চলাচল করি। এতে সরকারের কোনো প্রকার ক্ষতি হবে না। যদি ক্ষতি হয়, তবে বিকল্প ব্যবস্থার উদ্যোগ নিলে আমরা সে অনুযায়ী জীবিকা নির্বাহ করব।”

এর আগে স্বল্প আয়ের মানুষের কথা বিবেচনা করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রাজধানীতে ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা চালুর রাখার নির্দেশ দিয়েছেন বলে জানান আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

সোমবার দুপুরে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে আওয়ামী ওলামা লীগের প্রথম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর সমাবেশে তিনি এ তথ্য জানান।

ওবায়দুল কাদের বলেন, “ঢাকা শহরে ব্যাটারিচালিত তিন চাকার অটোরিকশা বন্ধের ব্যাপারে নেওয়া সিদ্ধান্ত মন্ত্রিসভার বৈঠকে বাতিল করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।”

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, “বর্তমান বাজার পরিস্থিতি বিবেচনায় নিয়ে স্বল্প আয়ের মানুষের সুবিধার জন্য সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করেছেন সরকার প্রধান।”

গত ১৫ মে রাজধানীর অলিগলিতে দাপিয়ে বেড়ানো বিপজ্জনক ব্যাটারিচালিত রিকশা বন্ধের নির্দেশ দেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী। পরে বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট অথরিটি (বিআরটিএ) জানায়, ঢাকা মহানগরীতে ব্যাটারি অথবা মোটরচালিত রিকশা বা ভ্যান এবং রংচটা, জরাজীর্ণ, লক্কড়-ঝক্কড় মোটরযান চালানো বন্ধ করা না হলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এই নির্দেশনার পর রোববার (১৯ মে) থেকে রাজধানীর মিরপুরসহ বিভিন্ন স্থানে বিক্ষোভ করেন অটোরিকশা চালকরা। কালশীর একটি পুলিশ বক্সে আগুনও দেওয়া হয়। সোমবারও রাজধানীর রামপুরাসহ বিভিন্ন স্থানে বিক্ষোভ করেছেন তারা।

বিজনেস বাংলাদেশ/BH