ঢাকা সন্ধ্যা ৭:৫৬, বৃহস্পতিবার, ১লা ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

সব ক্ষেত্রেই হুমায়ূন আহমেদ সফল মানুষ

বাংলা সাহিত্যের কিংবদন্তি হুমায়ূন আহমেদের স্ত্রী জনপ্রিয় অভিনেত্রী ও নির্মাতা মেহের আফরোজ শাওন । স্বামীর জন্মদিনটি কিভাবে পালন করবেন জানতে চাইলে তিনি বলেন, গতকাল দিবাগত রাত বারোটায় আমার বাসায় কেক কাটা হয়েছে। সেখানে পরিবারের সবাই উপস্থিত ছিলেন।

আজ সকাল ৯টায় তার নুহাশ পল্লীতে উপস্থিত থাকার কথাও ছিল।  এ বিষয়ে তিনি জানান, নুহাশ পল্লীতে মিলাদ-মাহফিলের আয়োজন করেছি। এছাড়া পাবলিক লাইব্রেরিতে বইমেলা হবে। সেখানেও অংশগ্রহণ করবো।

এদিকে চ্যানেল আই আয়েজিত মেলাসহ আরো বেশ কিছু অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকার কথাও জানান তিনি।  শাওন আরো বলেন, জন্মদিনে তিনি উপস্থিত থাকলে হয়তো আনন্দটা অনেক বেশি গাঢ় হতো। কিন্তু সেটি তো আর কখনো সম্ভব নয়। তাই তাকে ছাড়াই আমাদের দিনটি পালন করতে হচ্ছে। দেশ-বিদেশে হুমায়ূন আহমেদের অগণিত ভক্ত রয়েছে। তাই তাকে ঘিরে বিশেষ দিবসগুলোতে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকে তাদের নানা রকম পোস্ট দেখা যায়। অনেকেই নিজের ফেসবুক প্রোফাইলে হুমায়ূন আহমেদের ছবিও দেন। হুমায়ূন আহমেদকে নিয়ে ভক্তদের আগ্রহের শেষ নেই। শুরু থেকেই তাকে নিয়ে ভক্তদের উন্মাদনা ব্যাপক। তিনি গল্প-উপন্যাস, নাটক ও চলচ্চিত্র দিয়ে ভক্তদের খুব গভীরে প্রবেশ করেছেন।

হুমায়ূন ভক্তদের প্রসঙ্গে শাওন বলেন, তাদের উচ্ছ্বাস সব সময় চোখে পড়ার মতো। ভক্তদের ভালোবাসায় তিনি বেঁচে থাকবেন অনন্তকাল।

সাহিত্য, নাটক-চলচ্চিত্র সব মাধ্যমে তিনি অবদান রেখেছেন। সব ক্ষেত্রেই তিনি একজন সফল মানুষ। সফল মানুষদের ক্ষয় নেই। ২০১২ সালের ১৯শে জুলাই ক্যানসারের কাছে নত হতে হলো হুমায়ূন আহমেদকে। চিরতরে হারিয়ে গেলেন এই কিংবদন্তি। হুমায়ূন আহমেদকে শাওন কতটা মিস করেন? এই সম্পর্কে তিনি বলেন, সবাই বছরের নির্দিষ্ট দিনগুলোতে তাকে স্মরণ করেন। আমি প্রতিটি দিনই হুমায়ূন আহমেদের শূন্যতা অনুভব করি। তাকে ছাড়া আমার পৃথিবী অসম্পূর্ণ। তার সঙ্গের প্রতিটি দিন আমার স্মৃতিময়। সেই দিনগুলোর কোনোটি ভুলে থাকার মতো নয়। তার সন্তানরা তাকে ছাড়া বড় হচ্ছে। প্রতিটি দিন তারাও তাদের বাবাকে মিস করছে। সত্যি বলতে পরিবারের মানুষদের শূন্যতা কোনো ভাষা দিয়ে বোঝানো যায় না।

এদিকে নন্দিত সাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদের গল্প নিয়ে ফের সিনেমা নির্মাণের ঘোষণা দিয়েছেন মেহের আফরোজ শাওন। সেই ছবির নায়িকা হিসেবে থাকছেন মাহিয়া মাহি। জনপ্রিয় উপন্যাস ‘নক্ষত্রের রাত’ অবলম্বনে ছবিটি নির্মাণ হবে বলে জানা যায়। এই ছবিতে নায়ক হিসেবে দেখা যাবে রিয়েলিটি শো ‘ফেয়ার অ্যান্ড লাভলী ম্যান-চ্যানেল আই হিরো’ বিজয়ী বাঁধনকে।

ইমপ্রেস টেলিফিল্ম ও ইউনিলিভারের যৌথ প্রযোজনায় নির্মাণ হবে ছবিটি। অনেক দিন ধরেই এর শুটিং শুরু হবে বলেও হচ্ছে না। শেষ পর্যন্ত কবে তা শুরু হচ্ছে জানতে চাইলে শাওন বলেন, এখন ছবিটি সম্পর্কে কিছু জানাতে পারছি না। অন্য কাজ নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছি। আরো কিছু দিন পরে এই ছবি সম্পর্কে জানাবো।

এ বিভাগের আরও সংবাদ