ঢাকা সকাল ১০:০৭, বুধবার, ৭ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ২২শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

সেন্সরের নানা অভিযোগের মুখে ‘ধূসর কুয়াশা’

চলচ্চিত্র নির্মাতা উত্তম আকাশ পরিচালিত ‘ধূসর কুয়াশা’ নিয়ে একাধিক অভিযোগ করেছে বাংলাদেশ সেন্সর বোর্ড কর্তৃপক্ষ। যার কারণে আপাতত ছাড়পত্র পাচ্ছে না ছবিটি। ছবির খুটিনাটি সবকিছু দেখে তারা বলছে, ‘এটি প্রেক্ষাগৃহে প্রদর্শনযোগ্য নয়’।

সেন্সর বোর্ডের সচিব মুন্সী জালাল উদ্দিন জানান, ‘একাধিক কারণে ছবিটির ছাড়পত্র দেয়া হয়নি। প্রথমত, ছবির কাহিনি অসংলগ্ন। গল্পটা কীভাবে এগিয়ে যাচ্ছে দর্শকরা কোনো ধারণা পাবেন না।’

তিনি আরো বলেন, ‘ছবিটিতে আইনশৃংখলা বিরোধী অনেক কর্মকাণ্ড তুলে ধরা হয়েছে। যার মধ্যে আছে, শিশু পাচার, ধর্ষণ, নারীকে নিলামে তুলে বিক্রি করা ইত্যাদি। কিন্তু তার বিপরীতে যে ধরনের সামাজিক প্রতিরোধ ছবিতে প্রত্যাশিত ছিল তার কিছুই উঠে আসেনি। ছবিতে আইনশৃংখলা বাহিনিকে হাস্যকর হিসেবে উপস্থাপন করা হয়েছে।’

চলতি বছরের জুলাইয়ে ছবিটি সেন্সরে জমা দেয়া হয়। সেন্সরবোর্ড সেই আবেদনকে অগ্রাহ্য করে।

মুন্সী জালাল বললেন, “এর ত্রিশ দিনের মাথায় আপিল বোর্ডে আপিল করার নিয়ম থাকলেও পরিচালক তা করেননি। পরে পরিচালক রিভাইজড ভার্সনটা জমা দিয়েছে সেপ্টেম্বরের দিকে। পুনঃনিরীক্ষা শেষে দেখা যায়, যে কারণে ছবির ছাড়পত্রের আবেদন বাতিল করা হয় সেই উপাদানগুলো আবারও সিনেমায় রয়ে গেছে। ফলে দ্বিতীয়বার আবেদন বাতিল করা হয়।”

অন্যদিকে, নির্মাতা উত্তম আকাশ বলেন, ‘সিনেমায় বৈচিত্র থাকতে হবে। সমাজে কি নারী নির্যাতন হচ্ছে না, মানুষকে তুলে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে না। তাহলে সিনেমায় সেগুলো দেখালে সমস্যা কী? আমি ২৭টারও বেশি চলচ্চিত্র নির্মাণ করেছি। আর আমার সিনেমাই কিনা অশ্লীলতার দায়ে আটকে দেয়া হলো।’

তিনি আরো বলেন, ‘সেন্সরবোর্ডে যারা আছেন তারা তো পাবলিকের ইমোশন বোঝেন না। পরিচালক হিসেবে আমার দুঃখবোধ হয়। তাছাড়া সিনেমাটি তৈরির পর এমন কোনো কিছু দৃষ্টিগোচর হয়নি যে কারণে ছবির ছাড়পত্রের আবেদন বাতিল করা হবে। রিভাইজড ভার্সন জমা দেয়ার পর প্রথমে সাতজন বোর্ড-মেম্বার ছবি দেখেন। তখন কোনও সমস্যা পাননি। কিন্তু পরে আবার তিন জনকে দেখানো হলো। তখন নাকি ছবির সমস্যা পাওয়া গেল। এটা কেমন কথা?’

এই পরিপ্রেক্ষিতে তাহলে সিনেমাটির ভবিষ্যত প্রসঙ্গে মুন্সী জালালের পরামর্শ, “আবারও আপিল বোর্ডে আপিল করতে হবে। তারপর নিয়মতান্ত্রিকভাবে আপিল বোর্ডের নির্দেশনায় কাজ করতে হবে। সব কিছু ঠিক থাকলে তো ছবির ছাড়পত্রের কোনো বাধা নেই। যতবার ছাড়পত্রের আবেদন বাতিল করবে সেন্সরবোর্ড ততবার আপিল বোর্ডে প্রযোজকের আপিল করার সুযোগ থাকবে।”

নির্মাতা জানালেন, সেন্সরবোর্ডর বাতলে দেওয়া পথে শুরুতে আপিল বোর্ডে আপিল করবেন নির্মাতা। সেখানেও ছাড়পত্রের প্রক্রিয়া না এগোলে হাইকোর্টে রিট করবেন।

উত্তম আকাশের পরিচালনায় ‘ধূসর কুয়াশা’ ছবিতে নায়িকা হিসেবে অভিনয় করেছেন নিপুণ। নায়কের চরিত্রে অভিনয় করবেন নবাগত মুন্না। চলতি বছরেই ছবিটি মুক্তি পাওয়ার কথা ছিল।

এ বিভাগের আরও সংবাদ