০১:৪৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪

মালাউইয়ের ভাইস প্রেসিডেন্টকে বহনকারী বিমান নিখোঁজ

ছবি সংগৃহীত

পূর্ব আফ্রিকার দেশ মালাউইয়ের ভাইস-প্রেসিডেন্ট সাওলোস চিলিমাকে বহনকারী বিমান নিখোঁজ হয়ে গেছে। বিমানটিতে আরও ৯ জন অরোহী ছিলেন এবং তারাও নিখোঁজ রয়েছেন।

এই ঘটনায় অনুসন্ধান এবং উদ্ধার অভিযান চালাচ্ছে দেশটির কর্তৃপক্ষ। মঙ্গলবার (১১ জুন) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মালাউইয়ের ভাইস-প্রেসিডেন্ট সাওলোস চিলিমা এবং অন্য আরও ৯ জনকে বহনকারী একটি বিমান নিখোঁজ হয়ে গেছে বলে পূর্ব আফ্রিকার এই দেশটির প্রেসিডেন্টের কার্যালয় থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে।

এতে আরও বলা হয়েছে, সোমবার সকালে রাজধানী লিলংওয়ে ছেড়ে যাওয়ার পর মালাউই প্রতিরক্ষা বাহিনীর ওই বিমানটি ‘রাডারের বাইরে চলে যায়’। বিমানটির স্থানীয় সময় সকাল ১০টার পরে দেশের উত্তরে অবস্থিত মজুজু আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণের কথা ছিল।

সোমবার গভীর রাতে দেওয়া এক বক্তৃতায় প্রেসিডেন্ট লাজারাস চাকভেরা বলেন, ভাইস প্রেসিডেন্টকে বহনকারী বিমান নিখোঁজ হওয়ার ঘটনায় অনুসন্ধান ও উদ্ধার অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

তিনি বলেন, ‘সৈন্যরা এখনও তল্লাশি চালিয়ে যাচ্ছেন এবং বিমানটি না পাওয়া পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে যাওয়ার জন্য আমি কঠোর নির্দেশ দিয়েছি।’

এর আগে প্রেসিডেন্ট চাকভেরা তার বাহামাস সফরে যাওয়ার ফ্লাইট বাতিল করেন। সোমবার সন্ধ্যায় ওই সফরে তার রওনা হওয়ার কথা ছিল।

এদিকে বিমানটির নিখোঁজ হওয়ার কারণ এখনও জানা যায়নি বলে জেনারেল ভ্যালেন্টিনো ফিরি প্রেসিডেন্ট চাকভেরাকে জানিয়েছেন। মালাউইয়ের তথ্যমন্ত্রী মোসেস কুনকুয়ু বিবিসিকে বলেছেন, বিমানটি খুঁজে বের করার প্রচেষ্টা “নিবিড়” ভাবে চলছে।

ভাইস-প্রেসিডেন্ট সাওলোস চিলিমা তিন দিন আগে মারা যাওয়া সাবেক ক্যাবিনেট মন্ত্রী রালফ কাসাম্বারার অন্তেষ্টিক্রিয়ায় সরকারের প্রতিনিধিত্ব করতে যাচ্ছিলেন। কুনকুয়ু বলেছেন: ‘অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া অনুষ্ঠানস্থল থেকে মজুজু আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরটিই সবচেয়ে কাছে অবস্থিত।’

উল্লেখ্য, ২০২২ সালে ড. চিলিমাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল এবং তিনি সরকারি চুক্তি প্রদানের বিনিময়ে অর্থ গ্রহণ করেছিলেন বলে তাকে অভিযুক্ত করা হয়েছিল। তবে গত মাসে সেই অভিযোগ প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়। যদিও এই সিদ্ধান্তের কোনও কারণ দেখানো হয়নি।

সাওলোস চিলিমা কে?
নিজের রাজনৈতিক জীবন শুরুর আগে ড. চিলিমা ইউনিলিভার এবং কোকা কোলার মতো বহুজাতিক কোম্পানিতে প্রধান নেতৃত্বের ভূমিকা পালন করেছিলেন। তার বয়স ৫১ বছর এবং তিনি বিবাহিত ও দুটি সন্তান আছে।

সরকারের ওয়েবসাইটে ড. চিলিমাকে একজন ‘পারফরমার’, ‘ওয়ার্কহলিক’ এবং ‘একজন লক্ষ্য অর্জনকারী’ হিসাবে বর্ণনা করা হয়েছে। তিনি নলেজ ম্যানেজমেন্টে পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেছেন।

বিজনেস বাংলাদেশ/DS

জনপ্রিয়

মালাউইয়ের ভাইস প্রেসিডেন্টকে বহনকারী বিমান নিখোঁজ

প্রকাশিত : ১১:৩৫:০৪ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১১ জুন ২০২৪

পূর্ব আফ্রিকার দেশ মালাউইয়ের ভাইস-প্রেসিডেন্ট সাওলোস চিলিমাকে বহনকারী বিমান নিখোঁজ হয়ে গেছে। বিমানটিতে আরও ৯ জন অরোহী ছিলেন এবং তারাও নিখোঁজ রয়েছেন।

এই ঘটনায় অনুসন্ধান এবং উদ্ধার অভিযান চালাচ্ছে দেশটির কর্তৃপক্ষ। মঙ্গলবার (১১ জুন) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মালাউইয়ের ভাইস-প্রেসিডেন্ট সাওলোস চিলিমা এবং অন্য আরও ৯ জনকে বহনকারী একটি বিমান নিখোঁজ হয়ে গেছে বলে পূর্ব আফ্রিকার এই দেশটির প্রেসিডেন্টের কার্যালয় থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে।

এতে আরও বলা হয়েছে, সোমবার সকালে রাজধানী লিলংওয়ে ছেড়ে যাওয়ার পর মালাউই প্রতিরক্ষা বাহিনীর ওই বিমানটি ‘রাডারের বাইরে চলে যায়’। বিমানটির স্থানীয় সময় সকাল ১০টার পরে দেশের উত্তরে অবস্থিত মজুজু আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণের কথা ছিল।

সোমবার গভীর রাতে দেওয়া এক বক্তৃতায় প্রেসিডেন্ট লাজারাস চাকভেরা বলেন, ভাইস প্রেসিডেন্টকে বহনকারী বিমান নিখোঁজ হওয়ার ঘটনায় অনুসন্ধান ও উদ্ধার অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

তিনি বলেন, ‘সৈন্যরা এখনও তল্লাশি চালিয়ে যাচ্ছেন এবং বিমানটি না পাওয়া পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে যাওয়ার জন্য আমি কঠোর নির্দেশ দিয়েছি।’

এর আগে প্রেসিডেন্ট চাকভেরা তার বাহামাস সফরে যাওয়ার ফ্লাইট বাতিল করেন। সোমবার সন্ধ্যায় ওই সফরে তার রওনা হওয়ার কথা ছিল।

এদিকে বিমানটির নিখোঁজ হওয়ার কারণ এখনও জানা যায়নি বলে জেনারেল ভ্যালেন্টিনো ফিরি প্রেসিডেন্ট চাকভেরাকে জানিয়েছেন। মালাউইয়ের তথ্যমন্ত্রী মোসেস কুনকুয়ু বিবিসিকে বলেছেন, বিমানটি খুঁজে বের করার প্রচেষ্টা “নিবিড়” ভাবে চলছে।

ভাইস-প্রেসিডেন্ট সাওলোস চিলিমা তিন দিন আগে মারা যাওয়া সাবেক ক্যাবিনেট মন্ত্রী রালফ কাসাম্বারার অন্তেষ্টিক্রিয়ায় সরকারের প্রতিনিধিত্ব করতে যাচ্ছিলেন। কুনকুয়ু বলেছেন: ‘অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া অনুষ্ঠানস্থল থেকে মজুজু আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরটিই সবচেয়ে কাছে অবস্থিত।’

উল্লেখ্য, ২০২২ সালে ড. চিলিমাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল এবং তিনি সরকারি চুক্তি প্রদানের বিনিময়ে অর্থ গ্রহণ করেছিলেন বলে তাকে অভিযুক্ত করা হয়েছিল। তবে গত মাসে সেই অভিযোগ প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়। যদিও এই সিদ্ধান্তের কোনও কারণ দেখানো হয়নি।

সাওলোস চিলিমা কে?
নিজের রাজনৈতিক জীবন শুরুর আগে ড. চিলিমা ইউনিলিভার এবং কোকা কোলার মতো বহুজাতিক কোম্পানিতে প্রধান নেতৃত্বের ভূমিকা পালন করেছিলেন। তার বয়স ৫১ বছর এবং তিনি বিবাহিত ও দুটি সন্তান আছে।

সরকারের ওয়েবসাইটে ড. চিলিমাকে একজন ‘পারফরমার’, ‘ওয়ার্কহলিক’ এবং ‘একজন লক্ষ্য অর্জনকারী’ হিসাবে বর্ণনা করা হয়েছে। তিনি নলেজ ম্যানেজমেন্টে পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেছেন।

বিজনেস বাংলাদেশ/DS