ঢাকা সকাল ৯:০৭, বুধবার, ৭ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ২২শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

এশিয়ার অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি হবে ৬.৫ শতাংশ

চলতি ও আগামী ২০১৮ সালে এশিয়ার উদীয়মান অর্থনীতির দেশগুলোর মোট দেশজ উৎপাদন (জিডিপি) প্রবৃদ্ধি সাড়ে ৬ শতাংশ (৬.৫) হবে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল (আইএমএফ)। আইএমএফ প্রকাশিত ‘ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক আউটলুক ২০১৭’-এর সর্বশেষ সংস্করণে এ তথ্য তুলে ধরা হয়। আইএমএফ-এর ধারণা, চলতি বছর বিশ্ব অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি হবে ৩ দশমিক ৬ শতাংশ এবং ২০১৮ সালে তা বেড়ে ৩ দশমিক ৭ শতাংশে দাঁড়াবে। গত জুনে এক পূর্বাভাসে আইএমএফ বলেছিল, চলতি ২০১৭-১৮ অর্থবছরের জন্য বাংলাদেশের জিডিপি প্রবৃদ্ধি ৭ শতাংশের কাছাকাছি হবে। আর ২০১৬-১৭ অর্থবছরে জিডিপি প্রবৃদ্ধি হবে ৬ দশমিক ৮ শতাংশ। এশিয়ার উদীয়মান অর্থনীতি চীনের বিষয়ে আইএমএফ বলছে, চলতি বছর দেশটির জিডিপি প্রবৃদ্ধি গত বছরের মতই ৬ দশমিক ৭ শতাংশ হবে। তবে আগামী বছর সেটি কিছুটা কমে ৬ দশমিক ৪ শতাংশ হতে পারে। এ অঞ্চলের আরেক উদীয়মান অর্থনীতির দেশ ভারতের বিষয়ে প্রতিবেদনে বলা হয়, নোট বাতিলের মতো আর্থিক সংস্কারের ধাক্কা সামলে আগামী দুই বছরে জিডিপির প্রবৃদ্ধি বাড়বে। চলতি বছর ভারতের জিডিপি প্রবৃদ্ধি হবে ৭ দশমিক ২ শতাংশ, ২০১৮ সালে তা আরও বেড়ে ৭ দশমিক ৭ শতাংশ হবে। মূলত ব্যাপক অভ্যন্তরীণ উন্নয়ন কর্মকর্তা এবং দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার প্রতিবেশী দেশগুলোর ইতিবাচক প্রবৃদ্ধির কারণে দেশটির জিডিপি প্রবৃদ্ধি ইতিবাচক ধারায় থাকবে বলে মনে করছে আইএমএফ। অন্যদিকে বিশ্বের সবচেয়ে বড় অর্থনীতির দেশ যুক্তরাষ্ট্রের জিডিপি প্রবৃদ্ধি চলতি বছর কমে যাবে বলে আইএমএফের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।
ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) থেকে বেরিয়ে যাওয়ার প্রক্রিয়ায় থাকা যুক্তরাজ্যের জিডিপি প্রবৃদ্ধিও চলতি বছর কমে যাবে। আইএমএফ বলছে, এ বছর দেশটির প্রবৃদ্ধি হবে ১ দশমিক ৭ শতাংশ, যা গত বছর ছিল ১ দশমিক ৮ শতাংশ।

এ বিভাগের আরও সংবাদ